ডঃ মুহম্মদ জাফর ইকবাল কে লেখা খোলা চিঠি: কিছু প্রশ্ন

স্যার, আমার বয়স যখন দশ বছর, তখন কিশোর বাংলার ঈদ সংখ্যায় দীপু নাম্বার টু পড়ে আপনার লেখার ভক্ত হয়ে যাই। এরপর পড়ি কপোট্রনিক সুখ দুঃখ, যা অনেকভাবেই আমাকে বিজ্ঞানে আগ্রহী করে তোলে। পরে আপনার লেখা আরও কত পড়েছি, সব মনেও নেই। আপনি বিদেশে ভাল চাকুরী ছেড়ে দেশে কাজ করতে এসেছেন, আমাদের স্বাধীনতার কথা শুনিয়েছেন, দেশকে ভালবাসার কথা শুনিয়েছেন, সব ধর্মের মানুষের সমান অধিকারের কথা বলেছেন, দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা আধুনিক করার চেষ্টা করছেন, এমন আরও কত ভাল কাজ করে চলেছেন। আপনি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক/গবেষক; আপনার গুনগত মানের ধারে কাছে না হলেও আমারও একই নেশা ও পেশা। উপরের কারণগুলোর জন্য যদি আপনাকে আদর্শ হিসাবে সামনে রাখি তাহলে তা মোটেই অস্বাভাবিক কিছু হবে না।

আমার দীর্ঘ ভূমিকার জন্য দুঃখিত, কিন্তু এর পরের কথা গুলোর জন্য নিজেকে তৈরি করতে এর প্রয়োজন ছিল। দেশের বর্তমান অবস্থার প্রেক্ষিতে আপনার সাম্প্রতিক লেখাটি (http://dailyjanakantha.com/index.php?p=details&csl=106195) পড়ে আমি বেশ হতাশ। আপনি সরাসরি না বললেও যা বোঝাতে চেয়েছেন তা হল আমাদের দেশে যেহেতু যথার্থ গণতন্ত্র নেই, তাই নির্বাচনের তেমন উপযোগিতা নেই। আপনি প্রশ্ন রেখেছেন নির্বাচন হলেও সে নির্বাচনে অংশ নেবে কারা? এরপর আপনি উত্তর দিয়েছেন যেহেতু তারেক জিয়া বঙ্গবন্ধুকে অশালীন সমালোচনা করে বক্তব্য দিয়েছে এবং খালেদা জিয়া তা সমর্থন করেছেন তাই বিএনপির রাজনীতির কফিনে পেরেক ঠুকে দেয়া হয়েছে। এর আগে জামায়াতের সাথে সরকার করে তারা এদেশে রাজনীতি করার নৈতিক অধিকার হারিয়েছিল। তারা সম্ভবত আর জনগণের কোন সমবেদনা খুঁজে পাবে না। তারেক জিয়ার বঙ্গবন্ধুর অশালীন সমালোচনা এবং তাতে খালেদা জিয়ার সায় অবশ্যই অন্যায়, কিন্তু এই সরকারের আমলে জিয়াউর রহমানকে যেভাবে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করা হয়েছে সেটা কেমন ন্যায়? ইতিহাসে যার যা প্রাপ্য তা তো তাঁকে দিতে হবে। বুঝতে পারছি, বিএনপির সাথে জামাতের সরকার গঠন অনৈতিক ছিল, কিন্তু অতীতে আওয়ামী লীগ যখন জামাতের সাথে যুগপৎ আন্দোলন করেছিল সেটাও কি তাহলে অনৈতিক ছিল? আওয়ামী লীগে যারা রাজাকার আছে তাদের সম্পর্কে কি বলবেন? যদিও কিছুটা অপ্রাসঙ্গিক, তবুও বাকশাল সম্পর্কে আপনার কি মূল্যায়ন তাও জানার কৌতূহল রইল।

আপনার মতে এই দেশের জন্য “এককভাবে” অবদান রেখেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীনতা আন্দোলনের প্রাণপুরুষ একথা মনে প্রাণে বিশ্বাস করি। আমি তাঁর অসমাপ্ত আত্মজীবনী পড়ে, ত্যাগী জীবন সম্পর্কে জেনে আপ্লুত হয়েছি। কিন্তু বাংলাদেশ তাঁর একক অবদান, একথা বলে আপনি বাংলাদেশের জনগণ যারা জান-বাজী রেখে পাকিস্তানি হানাদারদের বিরুদ্ধে লড়েছেন, নিজেদের জীবনকে উৎসর্গ করেছেন (আমার পরিবারের লোকও আছেন), যারা ভারতে বসে প্রবাসী সরকার চালিয়েছেন (তাজউদ্দীন সাহেব বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য), ভারত সরকার আর এর জনগণ আমাদের যে সাহায্য করে চির-ঋণী করেছেন এর সবকিছুকেই তুচ্ছ করেছেন।

স্যার, আপনি দেশে গণতন্ত্রের সমালোচনা করেছেন, কিন্তু এর বিকল্প কি চাইছেন তা আপনার লেখায় পরিষ্কার না। দেশে কিভাবে নেতা নির্বাচিত হবে এবং তা নির্বাচনের মাধ্যমে হলে জনমতের প্রতিফলন কিভাবে নিশ্চিত করা যাবে তা নিয়েও কিছু বলেন নি। আপনি ধরে নিয়েছেন যে নির্বাচন হলে বিএনপি জনগণের সমবেদনা পাবে না। ঠিক আছে, সেটা হতেই পারে; এর আগের কার্যকালে তারা যে অপকর্মগুলো করেছে আর এখন যে সন্ত্রাস আর নাশকতা করছে তার জন্য জনগণ তাদের সমবেদনা না দেখালে অবাক হওয়ার কিছু নেই। কিন্তু জনগণকে সেই কথাটা বলার সুযোগ দিতে হবে; আমার, আপনার কথা জনগণের মুখে পুরে দিলে তো চলবে না। তাহলে বলুন কেন আমরা একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবীতে সোচ্চার হবো না?

একজন নিরপেক্ষ মানুষ একথা স্বীকার করবেন যে বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর কোনটাই ধোয়া তুলসী পাতা নয়। ক্ষমতার লোভে জানমালের ক্ষয়-ক্ষতি দু’দলই করেছে। দু’দলেই এমন রাজনীতিক আছে যারা অনেক ভয়াবহ অপরাধের সাথে জড়িত। এখন আমরা যদি কেবল মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি বলে এদের অপরাধের প্রতিবাদ না করি, তাহলে প্রকারান্তরে আমরা তাদের সমর্থনই করছি। এই প্রবণতা খুবই বিপদজনক হতে পারে। মুখে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলেন অথচ দুর্নীতিবাজ, ক্ষমতার অপ-ব্যবহারকারী, দেশের সম্পদ বিদেশীদের হাতে তুলে দিতে প্রস্তুত এমন লোক আমাদের চারপাশে অনেক রয়েছে। কেবল মুক্তিযুদ্ধকে “ফিল্টার” হিসাবে ব্যবহার করলে এদের অনেকেই পার পেয়ে যাবে। এইসব লোকদের দিয়ে কি আপনার স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে তোলা সম্ভব হবে?

নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণের দেয়া বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করেছিল। আপনার মনে কি প্রশ্ন জাগে না কেন দলটি তাদের মেয়াদ শেষে নিরপেক্ষ নির্বাচনের মুখোমুখি হতে চায় নি? যদি দলটি বছরের পর বছর সত্যিকার নির্বাচনকে পাশ কাটিয়ে এভাবেই দেশ শাসন করার সুযোগ পায় তাহলে তাদের রাজনীতির গুনগত পরিবর্তন হবে কি? আমরা কি আমাদের রাজনীতির পরিবার-তান্ত্রিক ধারা থেকে বের হতে পারবো?

আমার মনে হয় সময় এসেছে দল আর ব্যক্তির চেয়ে দেশকে বেশী গুরুত্ব দেবার। আর একটা দেশের ভিত্তিমূল হচ্ছে সেই দেশের জনগণ, তাদের ঘিরেই দেশের সব কর্মকাণ্ড। সেই জনগণ যদি নিজেদের পছন্দ মতো নেতা নির্বাচন করতে না পারে, সংসদে নিজেদের পছন্দের প্রতিনিধি না পাঠাতে পারে, তাহলে কেন আমাদের তা মুখ বুজে মেনে নিতে হবে বলতে পারেন? আমার দৃঢ় বিশ্বাস যে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা করার জন্যই আমার পূর্ব-পুরুষেরা মুক্তিযুদ্ধ করেছিলেন, কোন বিশেষ দল বা একনায়কতন্ত্রের সেবা বা ব্যক্তিপূজা করার জন্য নয়।

[211 বার পঠিত]

এই লেখাটি শেয়ার করুন:
0
By | 2015-02-02T19:14:12+00:00 February 2, 2015|Categories: বাংলাদেশ, রাজনীতি|৫১ Comments

Leave a Reply

51 Comments on "ডঃ মুহম্মদ জাফর ইকবাল কে লেখা খোলা চিঠি: কিছু প্রশ্ন"

avatar
Sort by:   newest | oldest
মানবিক মানব
Member
তাহলে বলুন কেন আমরা একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবীতে সোচ্চার হবো না? আপনার এই কথাটি দিয়ে আপনি আসলে কি বুঝাতে চেয়েছেন? আপনি কি বিএনপি-এর পক্ষ নিয়ে এই কথাটি বলেছেন নাকি একজন সাধারণ বাংলাদেশী হিসেবে নিজের অধিকারের কথা বলেছেন? আমার মনে হচ্ছে আপনি এই কথাটি দিয়ে এক পক্ষকে সমর্থন করছেন। যদি তাই হয় তবে আমি বলবো আপনি সম্পূর্ন নিরপেক্ষ হতে পারেননি। আর যদি এটি দিয়ে একজন সাধারণ বাংলাদেশীর অধিকারের কথা বলে থাকেন তবে বলবো সাধারণ মানুষ নির্বাচন চাইছে নাকি রাজনৈতিক অশান্তি চাইছে? সাধারণ মানুষ শান্তিতে থাকতে চায়। আমার মনে হয় না বর্তমান সরকার গঠনের এতো দিন পরে কোন সাধারন মানুষ আবার করে… Read more »
মুক্ত
Member
যারা মনে করেন বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কোন সমালোচনা করা যাবে না আমি তাদের দলে নই।বঙ্গবন্ধুকে নিয়েও সমালোচনা করা যায়, তবে আমার মতে সে সমালোচনার একটা মাত্রা বা সীমা থাকা উচিত।তারেক রহমান সে মাত্রা বা সীমা অতিক্রম করেছেন। আমি মনে করি এখন তারেক রহমানের আর একটি কথা বলা বাকি থাকলো, তা হলো, “গোলাম আযম একজন মুক্তিযোদ্ধা”। জিয়াকে আওয়ামীলীগ রাজাকার বলেছে অতএব তার পরিবর্তে বিজয় দিবসে বঙ্গবন্ধুকে তারেক রহমান রাজাকার বললে যারা কোন দোষ খুজে পান না তাদের উদ্দেশ্যে কয়েকটি কথা বলা প্রয়োজন। বঙ্গবন্ধুকে অনেকেই স্বৈরশাসক বলেছে, গণতন্ত্র হত্যাকারী এমনকি খুনি বলেছে তখন আওয়ামীলীগ এমন তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখায়নি কারণ এসব অভিযোগের আংশিক সত্যতা… Read more »
গুবরে ফড়িং
Member
কিন্তু অতীতে আওয়ামী লীগ যখন জামাতের সাথে যুগপৎ আন্দোলন করেছিল সেটাও কি তাহলে অনৈতিক ছিল? আওয়ামী লীগে যারা রাজাকার আছে তাদের সম্পর্কে কি বলবেন? বিএনপি সমর্থক বুদ্ধিজীবিদের টকশো কেউ দেখে থাকলে, অবধারিত যে, এই যুক্তিটি আপনাকে শ্রবন করতেই হবে! তবে এই বুদ্ধিজীবিদের মাথার উপর দিয়ে যায় যে সত্য, তা হল, আ’লীগের সাথে আন্দোলন করে জামাত পরবর্তী নির্বাচনে পেয়েছে মাত্র তিনটি সংসদীয় আসন; আর বিএনপির সঙ্গে রাজনীতি করে সংসদের ৩য় বৃহত্তম দলই শুধু নয়, সঙ্গে পেয়েছে রাজাকার হয়েও স্বাধীণ বাংলাদেশে পতাকা উড়াবার সুযোগ, শুধু তাই নয়, সরকারের মূল নীতিগুলি প্রনয়ন ও বাস্তবায়নে প্রধান ভূমিকা রাখার অবারিত সুযোগ! এখনো জামাতের সঙ্গ ছাড়ার… Read more »
জাকির আকন্দ
Member
জাকির আকন্দ
@মনজুর মুরশেদ, ১. জাফর ইকবাল স্যার তার লেখায় আওয়ামী লীগের ত্রুটিপূর্ণ নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় যাওয়া এবং তা ধরে রাখার চেষ্টার সমালোচনা করেননি এবং আমি যা বুঝেছি এটাই আপনার আপত্তির জায়গা। ২. জনগণের ভোটের অধিকার, গণতন্ত্র ইত্যাদি রক্ষা করতে হলে আমাদের প্রতিবাদ জানাতে হবে যদি তা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পক্ষের দলের বিরুদ্ধেও যায় তবুও। আমার ক্ষোভের জায়গাটাও এখানে।কোথায় গণতন্ত্র, ভোটের অধিকার আর কোথায় পেট্রোল বোমায় পুড়ে মরা।যেখানে আমি পুড়ে মারা যাচ্ছি সেখানে আমার প্রথম প্রয়োজন বেচেঁ থাকা।এই মুহূর্তে সবার আগে দরকার আগুনের বিরুদ্ধে আওয়াজ।আজ যদি দেশে বোমা আগুন না থাকত, বিএনপি নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন করতে গিয়ে দমন পীড়নের শিকার হতো তাহলে জাফর ইকবাল… Read more »
জাকির আকন্দ
Member
জাকির আকন্দ

জাফর ইকবাল স্যারের গত লেখার (হায়দার রহমান এর “বাংলাদেশ মৃত চিন্তার” দেশ মন্তব্য নিয়ে)প্রতিক্রিয়াও মুক্তমনা ব্লগে তীব্র আক্রমনাত্মক লেখা এসেছিল।অনেক পরিচিত ব্লগাররাও দেখি জাফর ইকবালের বাক্য বিন্যাস, শব্দচয়ন ইত্যাদি সূক্ষ্ম বিষয়ে তীব্র আক্রমনাত্মক ভাষায় লিখতে। অনেকেই দেখি লিখেন জাফর ইকবালের মূল বক্তব্যর সাথে আমিও একমত কিন্তু তিনি এই কথাটা এই ভাবে বলতে পারতেন ইত্যাদি ইত্যাদি….দেখেশুনে মনে হচ্ছে জাফর ইকবাল স্যারকে সমালোচনাই বোধহয় হালের মুক্তমনা হবার সহজ উপায়!

এইসব তাত্ত্বিক কূটকচালে ভরা লেখা পড়ে আমার মনে হয় মুক্তমনা হওয়া আর এই জীবনে হলোনা!

আওয়ামী নির্বাচনে অনিয়ম করলে তার জবাবে পেট্রোল বোমা মেরে মানুষ পুড়িয়ে মারা যায় কিনা? মুক্তমনারা এই প্রশ্নের জবাব কেউ দিলোনা!

আকাশ মালিক
Member

@জাকির আকন্দ,

অনেকেই দেখি লিখেন জাফর ইকবালের মূল বক্তব্যর সাথে আমিও একমত কিন্তু তিনি এই কথাটা এই ভাবে বলতে পারতেন ইত্যাদি ইত্যাদি….দেখেশুনে মনে হচ্ছে জাফর ইকবাল স্যারকে সমালোচনাই বোধহয় হালের মুক্তমনা হবার সহজ উপায়! এইসব তাত্ত্বিক কূটকচালে ভরা লেখা পড়ে আমার মনে হয় মুক্তমনা হওয়া আর এই জীবনে হলোনা!

তাইলে আপনি মুক্তমনার সংজ্ঞা বুঝতে ভুল করেছেন।

কেশব কুমার অধিকারী
Member
জনাব মনজুর মুরশেদ, আমি আমার বক্তব্য একটু ভিন্ন ভাবে উপস্থাপন করতে চাই। তার আগে এ বিষয়টাও পরিষ্কার করে নিতে চাই যে অধ্যাপক জাফরের সব কথার সাথে আমি সব সময একমত হতে না পারলেও তাঁর বক্তব্যের মূল সুরের সাথে অধিকাংশ সময়ে ঐক্য স্থাপন করি, বা করার সুযোগ পাই। এক্ষেত্রেও অনেকটা কিন্তু তাই। স্বাভাবিক ভাবেই আমি আপনার মূল সুরের খানিকটা আলোচনায় আনবো। আরোও একটা বিষয় আমি পরষ্কার করে নিতে চাই এই সুযোগে, আর সেটা হলো আমাকে আমার বক্তব্যের জন্যে আওয়ামীলীগার বলে ভুল করবেন না আশা করি। ধরুন বাংলাদেশ বিশ্বের আ্যডভান্সড দেশ গুলোর মতোই হঠাৎ উন্নত হয়ে উঠলো। পাশ্চাত্যের মতো আমাদের মেয়েরাও পথে… Read more »
সফিক
Member
স্যার জাফর ইকবালের কোমলমতি, সাধাসিধে ভক্তকুল ইদানীং কিছুটা বিভ্রান্ত হচ্ছেন। তার এক্সট্রিমিস্ট কথাবার্তায় বিভ্রান্ত হয়ে ভাবছে স্যার নিশ্চই আবেগাক্রান্ত হয়ে ঠিকভাবে চিন্তা করতে পারছেন না এজন্যেই এরকম লাগামহীন কথা বলছে। বেচারা বাংলার চিরকিশোরগুলি বোঝে না যে এই তীব্র মৌলবাদী লোকটি কোনো কিছুই না বুঝে বলে না। যে লোক একমুহুর্তে বলে যে এদেশে গনতন্ত্রের দরকার নেই আর তার পরমুহুর্তেই বলে যে ভাংচুড়-পোড়ানো জন্যে বিএনপি’র জনপ্রিয়তা শুন্যে নেমে যাচ্ছে, সেই লোক ভালো করেই জানে বাংলাদেশের আসল পরিস্থিতি কি। শুন্য জনপ্রিয়তার বিএনপি-জামাতের দেশে গনতন্ত্র থাকলে কি অসুবিধা সেই সহজ, স্বাভাবিক কথাটি সে তুলবে না। সে জানে যে জনমনে মৌলবাদকে শক্ত করে ধরে রাখার… Read more »
রসি মজুমদের
Member

@সফিক,

এই Taurus Caecus টি তার ভক্তকুলকে মৌলবাদে আচ্ছন্ন রাখার জন্যে যা বলার দরকার তাই বলবে, সেই কথাগুলি যত যুক্তিবিহীন আর মিথ্যাই হোক।

আপনার মন্তব্য যুক্তিহীন এবং বিভ্রান্তকর।জাফর ইকবাল সমালোচনার উর্ধ্দে নয়। কিন্তু কোন রকম যৌক্তিক বিশ্লেষণ ছাড়া তাকে মৌলবাদী আখ্যা দেওয়া মৌলবাদী মানসিকতার পরিচয় দেয়।আপনার কাছে মৌলবাদের সংজ্ঞা কি জানি না।কিন্তু কেন জাফর ইকবালকে মৌলবাদী বলেছেন তা যৌক্তিক ভাবে বিশ্লেষণ করে বলবেন কি?

আকাশ মালিক
Member
@সফিক, স্যার জাফর ইকবালের কোমলমতি, সাধাসিধে ভক্তকুল ইদানীং কিছুটা বিভ্রান্ত হচ্ছেন। তার এক্সট্রিমিস্ট কথাবার্তায় বিভ্রান্ত হয়ে ভাবছে স্যার নিশ্চই আবেগাক্রান্ত হয়ে ঠিকভাবে চিন্তা করতে পারছেন না এজন্যেই এরকম লাগামহীন কথা বলছে। বেচারা বাংলার চিরকিশোরগুলি বোঝে না যে এই তীব্র মৌলবাদী লোকটি কোনো কিছুই না বুঝে বলে না। যে লোক একমুহুর্তে বলে যে এদেশে গনতন্ত্রের দরকার নেই আর তার পরমুহুর্তেই বলে যে ভাংচুড়-পোড়ানো জন্যে বিএনপি’র জনপ্রিয়তা শুন্যে নেমে যাচ্ছে, সেই লোক ভালো করেই জানে বাংলাদেশের আসল পরিস্থিতি কি। শুন্য জনপ্রিয়তার বিএনপি-জামাতের দেশে গনতন্ত্র থাকলে কি অসুবিধা সেই সহজ, স্বাভাবিক কথাটি সে তুলবে না। সে জানে যে জনমনে মৌলবাদকে শক্ত করে ধরে… Read more »
রসি মজুমদের
Member

গনমানুষের তন্ত্র যদি মধ্যযুগের মৌলবাদী দর্শনের বহিঃপ্রকাশ হয় তবে সেই তন্ত্রের বিরুদ্ধে লড়াই করা আবশ্যক মনে করি।

wpDiscuz

মুক্তমনার সাথে থাকুন