এক কাজ কর বরং
বাড়িঘরগুলো সব পুড়িয়ে দাও পেট্রোল ঢেলে
তাহলে আর বেরুতে হবে না বজ্জাতগুলোকে!
আর পেট্রোডলার নিয়ে একেবারেই ভেবো না,
আছে উপচানো মজুদ- আসমানি এবং অসীম।

বাড়িঘরগুলি পোড়ালে পরে
কত সুনসান একটা দেশের দখল পাবে বল !
শ্মশানঘাটের মতই খোলামেলা, নিরিবিলি,
আর কঠিন আগ্নেয় শিলায় গড়া-পেটা ।

জানোই তো ওদের খুব পেট পোড়ায়
আর তাইত দেখ
যখন বোমার ভয়ে পালায় নামি-দামি বীমা
বেরোয় ওরা দলে দলে।

অবোধ জীব, অবরোধ বোঝে না,
পেটের আগুন নেভানোই চাই।
দেশ-গণতন্ত্র চুলোয় যাক,
পেট-যন্ত্রটা শুধু রক্ষা পাক।

আর তাইত পেটের জ্বালা জুড়োয় জন্মের তরে
ক্ষুধিত পতঙ্গের মত আসে যখন ঝাঁকে ঝাঁকে,
পেট্রোল ঢেলে অতর্কিত
মিটিয়ে দেয়া হয় যুগ-যুগান্তের অগ্নি-তৃষ্ণা ।

তারপর একদা জ্বালামুখ ফুটে বেরোয়
পাথর-চাপা প্রাণের লেলিহান অভিশাপ ।
পাতাল ফুড়ে রাজপথ দাপিয়ে বেড়ায় আজ
বোতলজাত জীবাশ্ম দানোর দল !

[20 বার পঠিত]