ব্লগার থাবা বাবা https://www.facebook.com/thaba.babaওরফে রাজীব হায়দার আর আমাদের মাঝে নেই। তাঁকে নৃশংসভাবে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। কী করবো, কী বলবো কিছুই ভেবে পাচ্ছি না। শরীর কাঁপছে। দু’দিন আগেই যাঁর সাথে আমার কথা হলো, তিনি আজ জবাই হয়ে পড়ে আছেন নিথর! সোনার বাংলাদেশ ব্লগে তাঁকে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়েছে শাহবাগ আন্দোলনের বিশেষ উদ্যোক্তা ও ধর্মকারীর ঘৃণ্য ধর্মবিরোধী লেখক হিসেবে। ধর্মবিরোধিতা ও রাজাকার বিরোধিতা যে অতি উচ্চ মননশীলতার পরিচয় বহনকারী একটা ব্যাপার তা কি তারা বুঝতে পারে না? কিছুদিন আগেই আসিফ মহিউদ্দীনের উপর হামলা করেছিল ওরা। কুপিয়ে টুকরো টুকরো করতে চেয়েছিল তাঁকে। তাদের সেই উদ্দেশ্য ব্যর্থ হয়েছিল। ফেসবুকে দেখলাম মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগেও তিনি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন। আর এখন তিনি নিস্তব্ধ চিরতরে! সকল ব্লগার ও ফেসবুক বন্ধুদের প্রতি আহবান জানাচ্ছি, প্রতিবাদ হোক এই বর্বরতার। যে যেখানে আছেন, দেশে কিংবা বিদেশে; অনলাইনে এবং রাজপথে সামিল হোন এই মানবিক আন্দোলনে। প্রতিবাদ করুন রক্তপলাশে, প্রতিবাদ করুন রক্তজবায়।

*সোনার বাংলাদেশ ব্লগ থেকে থাবাকে নিয়ে লেখাটিকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এতেই কি থাবাকে হত্যায় তাদের সম্পৃক্ততা প্রমাণিত হয় না?

[52 বার পঠিত]