বেঙ্গলেনসিস

লেখক: বেঙ্গলেনসিস

'সবার জন্য বিজ্ঞান' এই মটো মনে ধারন করে লিখি।

প্লুটো এখন আর গ্রহ নয় কেন?

নব্বইয়ের দশক পর্যন্ত আমরা যারা প্রাথমিক বা মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থী ছিলাম তারা প্লুটোকে গ্রহ হিসেবে জেনে এসেছি। সেই সময় গ্রহের সংখ্যা ছিলো 'নয়'। কিন্তু পরবর্তীতে, যথাযথভাবে বললে ২০০৬ সালে প্লুটোকে সর্বসম্মতিক্রমে গ্রহ তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। যদিও প্লুটো গ্রহ থাকবে কি থাকবে না সেই বিতর্ক এখনো শেষ হয় নি। কিছুদিন পূর্বেও প্লুটোকে পুনরায় গ্রহ [...]

আইনস্টাইন কি তবে আলোর গতির ব্যাপারে ভুল ছিলেন?

নবজাতক মহাবিশ্বে বর্তমান সময়ের চেয়ে আলোর গতি হয়তো বেশী ছিলো। সাম্প্রতিক একটি তত্ত্ব অনুযায়ী এমন ধারনাই উঠে এসেছে যা আলোর গতি নিয়ে আইনস্টাইনের ধারনার সাথে মেলে না। আইনস্টাইন আলোর গতিকে শূন্য মাধ্যমে সর্বদা ধ্রুব মনে করতেন যার উপর ভিত্তি করে পদার্থবিদ্যার নানাবিদ তত্ত্ব প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের ম্যাগুয়েইজো এবং ক্যানাডার ওয়াটারলু বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়াযেশ আফশর্দি [...]

বিপন্ন প্রজাতিকে রক্ষা করতে হবে কেন?

১৯৮১ সালে পার্বত্য গরিলার সংখ্যা একেবারে তলানীতে গিয়ে ঠেকেছিলো। মানুষের আক্রমনে কোণঠাসা হয়ে গিয়ে শিকার এবং গৃহযুদ্ধের প্রভাবে এরা আফ্রিকার একটি ছোট অঞ্চলে সীমাবদ্ধ হয়ে পড়েছিলো। এই সময় এরা সংখ্যায় ছিলো মাত্র ২৫৪ টি। সবাই মিলে একটি মাত্র বোয়িং ৭৪৭ বিমানে এঁটে যায়! বর্তমানে পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতির দিকে। ২০১২ সালের একটি জরিপে দেখা গেছে এদের [...]

লিখেছেন |আগস্ট ২২, ২০১৬|বিষয়: পরিবেশ|১টি মন্তব্য|

মেঘনাদ সাহা- একজন বিজ্ঞানী ও বিপ্লবী

বৃটিশ শাসনামলে মেঘনাদ সাহা ভারতবর্ষ তথা সারা বিশ্বে একজন খ্যাতিমান পদার্থবিদ হিসেবে সমাদৃত হয়েছিলেন। ১৯২০ এর দশকে তিনি নক্ষত্রের বর্ণালী বিশ্লেষণে তাপীয় আয়নীকরণ তত্ত্বে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখেন। ভারতের স্বাধীনতার পূর্বে ও পরে আমৃত্যু তিনি বিজ্ঞানের জন্য এবং বিজ্ঞানমনষ্কতা ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য নিরন্তর কাজ করে গেছেন। তাঁর জীবনী আমাদের উৎসাহীত করবে নানা ভাবে। প্রথমতঃ তিনি বাংলাদেশের [...]

লিখেছেন |আগস্ট ১৫, ২০১৬|বিষয়: বাঙালি বিজ্ঞানী|৬ টি মন্তব্য|

পীথাগোরাসের গণিত

পীথাগোরাস সম্ভবতঃ সর্বকালের হাতেগোনা সবচেয়ে খ্যাতিমান গণিতবিদদের একজন। তাঁকে অনেক সময় ইতিহাসের প্রথম ‘প্রকৃত’ গণিতবিদ হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। পীথাগোরাসের উপপাদ্য গণিতের সবচেয়ে বহুল আলোচিত এবং সবচেয়ে বেশি ভিন্ন ভিন্ন পদ্ধতিতে প্রমানীত উপপাদ্য। আমরা গণিতের সৌন্দর্য বইটিতে এই উপপাদ্যটির বেশকিছু খুব সহজ প্রমাণ দেখেছিলাম। পীথাগোরাসের আবক্ষ মূর্তি তবে গণিতবিদ হিসেবে পীথাগোরাসের যতোই নামডাক [...]

লিখেছেন |জুলাই ৩১, ২০১৬|বিষয়: গণিত|৬ টি মন্তব্য|

গণিতের সৌন্দর্য: সংখ্যা-ব্যবস্থার ইতিহাস

ধরুন আমি আপনাকে একটি সংখ্যা দেখালাম ৫৫। এই ৫৫ দেখে আপনি কি বুঝবেন? আপনি বুঝতে পারবেন আপনাকে আমি ঠিক কি পরিমান কোনো বস্তু বা কোনো কিছুর মান বা অন্য কোনো একটি সংখ্যাবাচক কিছু বোঝানোর চেষ্টা করছি। যেমন: আমি যদি বলি ৫৫ টি আম, তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন বা কল্পনা করতে পারবেন কি পরিমান আমের কথা [...]

লিখেছেন |জুলাই ২৩, ২০১৬|বিষয়: গণিত|৭ টি মন্তব্য|

গণিতের সৌন্দর্য: তিন-কয়েদি সমস্যা

সম্ভাব্যতার সমস্যাগুলো মাঝে মাঝে আমাদের হতবিহ্বল করে দেয়। এর আগে গণিতের সৌন্দর্য সিরিজে আমি জন্মদিনের সমস্যা বা মন্টিহল সমস্যা নিয়ে আলোচনা করেছিলাম, সেসব সমস্যার ফলাফল বা সেই ফলাফলের প্রমানগুলোও ছিলো বেশ চমকপ্রদ। আজ তিন-কয়েদি সমস্যা বা Three Prisoners problem নিয়ে আলোচনা করব। এই সমস্যাটিও অনেকটা মন্টিহল সমস্যার মতোই তবে এই ক্ষেত্রে বিষয়টি আরো বেশি চমকপ্রদ [...]

লিখেছেন |জুলাই ২০, ২০১৬|বিষয়: গণিত|১টি মন্তব্য|

মন্টি হল সমস্যা

মন্টিহল সমস্যা সম্ভাব্যতার একটি বহুল আলোচিত সমস্যা। এটি যেমন মজাদার তেমনই অদ্ভুতুড়ে! এই সমস্যা প্রথম প্রদর্শিত হয় “Let’s Make a Dill” নামক টিভি অনুষ্ঠানে। অনুষ্ঠানের উপস্থাপকের নাম মন্টি হল। সেই থেকে এই সমস্যার নাম হয়ে যায় মন্টি হল সমস্যা। সমস্যাটি হলো এইরকম: তিনটি দরজা আছে এবং এর যেকোনো একটির পেছনে একটি গাড়ি রাখা আছে।আর বাকি [...]

লিখেছেন |জুলাই ১, ২০১৬|বিষয়: গণিত|মন্তব্য নেই|

আজি হতে শতবর্ষ পরে প্রমাণ করিছ মোর তত্ত্ব খানি: স্থান-কালের হিল্লোলে মহাকর্ষীয় তরঙ্গ সনাক্তকরণ (অবশিষ্টাংশ)

(প্রথম অংশের পর) কিন্তু এই মহাকর্ষীয় তরঙ্গ দেখতে কেমন? দেখতে বলতে বোঝাচ্ছি এর গঠন কেমন? আমরা দু’ধরনের তরঙ্গের বিষয়ে পড়ে এসেছি, অনুদৈর্ঘ্য তরঙ্গ আর অনুপ্রস্থ তরঙ্গ। অনুদৈর্ঘ্য তরঙ্গের ক্ষেত্রে তরঙ্গ মাধ্যমের কণাগুলোর স্পন্দনের দিকের সাথে একই দিকে অগ্রসর হয়, আর অনুপ্রস্থ তরঙ্গ মাধ্যমের কণাগুলোর স্পন্দন দিকের সাথে সমকোণে অগ্রসর হয়। নিচের চিত্র দ্রষ্টব্য। অনুদৈর্ঘ্য [...]

আজি হতে শতবর্ষ পরে প্রমাণ করিছ মোর তত্ত্ব খানি: স্থান-কালের হিল্লোলে মহাকর্ষীয় তরঙ্গ সনাক্তকরণ

আপেক্ষিকতা তত্ত্বের জনক কে? এই প্রশ্নের উত্তরের আমরা চোখ মুখ বন্ধ করে বলে দিতে পারি আলবার্ট আইনস্টাইন। কিন্তু প্রকৃত পক্ষে আপেক্ষিকতার সূচনা হয়েছিলো গ্যালিলিও গ্যালিলির হাত ধরে। গ্যালিলিও বলেছিলেন একটি সুষম গতিতে চলমান জাহাজের কেবিনে বসে আমরা স্থির আছি নাকি চলছি তা বোঝার কোনো সাধ্য নেই। অনেকে হয়তো ভাবতে পারেন কেবিনে আবদ্ধ অবস্থায় আমরা যদি [...]

পলায়নপর নিউট্রিনো এবং ২০১৫ সালের পদার্থের নোবেল-৩

[দ্বিতীয় খন্ডের পর] তৃতীয় পরিচ্ছেদ: নিউট্রিনোর স্পন্দন ১৯৩৬ সালে কার্ল ডেভিড এন্ডারসন পার্বত্যএলাকায় মহাজাগতিক রশ্মি নিয়ে গবেষণা করতে গিয়ে নতুন একটি কণিকা পেলেন। মেঘ প্রকোষ্ঠে (cloud chamber) নতুন একধরনের গতিপথ দেখে বোঝা গেলো এই কণিকাটির উপস্থিতি এবং এই গতিপথ আগের কোনো কণিকার গতিপথের সাথে মেলানো যায় না। এর গতিপথ ইলেক্ট্রনের মতো একই দিকে বেঁকে যায় [...]

লিখেছেন |অক্টোবর ১৫, ২০১৫|বিষয়: পদার্থবিজ্ঞান|১২ টি মন্তব্য|

পলায়নপর নিউট্রিনো এবং ২০১৫ সালের পদার্থের নোবেল-২

(প্রথম খন্ডের পর) দ্বিতীয় পরিচ্ছেদ (নিউট্রিনো সনাক্তকরণ) নিউক্লীয় বলের প্রতি সাড়া দেওয়ার ভিত্তিতে কণিকাগুলো দুই প্রকার, হেড্রন এবং লেপটন। নিউক্লীয় বল দুই প্রকার, সবল এবং দুর্বল (strong and weak nuclear forces) এটি আমরা অনেকেই জানি। যেসব কণিকা সবল বলটির প্রতি সাড়া দেয় তাদের বলা হয় হেড্রন আর যারা শুধুমাত্র দুর্বল বলটির প্রতি সাড়া দেয় তাদের [...]

লিখেছেন |অক্টোবর ৮, ২০১৫|বিষয়: পদার্থবিজ্ঞান|১৬ টি মন্তব্য|

পলায়নপর নিউট্রিনো এবং ২০১৫ সালের পদার্থের নোবেল-১

প্রথম পরিচ্ছেদ (পূর্ব কথা) পদার্থ বিজ্ঞানে বিভিন্ন ধরনের সংরক্ষণশীলতা সূত্র বজায় আছে যার মধ্যে দু-একটি সবারই মোটামুটি জানা। যেমন: শক্তির সংরক্ষণশীলতা সূত্র। এর উপরেই তাপগতিবিদ্যার প্রথমসূত্র টিকে আছে। এই সূত্রটি বিবৃত করে শক্তিকে সৃষ্টি বা ধ্বংস করা যায় না এবং মহাবিশ্বের মোট শক্তির পরিমান সুনির্দিষ্ট। এছাড়া আমরা অনেকে চার্জের সংরক্ষণশীলতার বিষয়টিও জানি। এই সূত্রের ভাষ্যমতে [...]

লিখেছেন |অক্টোবর ৭, ২০১৫|বিষয়: পদার্থবিজ্ঞান|১০ টি মন্তব্য|

স্মৃতিতে অভিজিৎ রায়

অভিজিৎ রায়ের স্মৃতির উদ্দেশ্যে ক্ষুদ্র শ্রদ্ধাঞ্জলি। [এই লেখাটি মূলত অভিজিৎ রায়ের সাথে আমার স্মৃতি কথা। এতে পূর্বে প্রকাশিত আমার একটি লেখার কিছু অংশও সরাসরি ব্যবহার করা হয়েছে। ব্যক্তিগত সম্পর্ক ইত্যাদি প্রাধান্য পাওয়ায় লেখাটি সর্বমহলে হয়তো আগ্রহোদ্দীপক প্রতীয়মান না-ও হতে পারে।] ২০০৯ বা ২০১০ সালের কথা। আমি তখনো ধর্মরোহিত হইনি পুরোপুরি। তবে বেশকিছু প্রশ্ন [...]

অভিপ্রেতানভিপ্রেত কাকতাল

কাকতাল বলতে কী বোঝায় আর কাকতালে কেনই বা আমরা বিস্ময়াভীভূত হই? অভিধান ঘেঁটে কাকতাল অর্থ পাওয়া গেল এমন: “কার্যকারণ সম্বন্ধ নাই অথচ একসঙ্গে সঙ্ঘটিত দেখিয়া মনে হয় পরস্পর সম্বন্ধযুক্ত”। এবার বিষয়টি একটু ব্যখ্যা করা যাক। ধরা যাক আপনার সাথে আপনার অফিসের বসের বেশ রাগারাগি হলো। আপনি তাঁর প্রতি বেশ অসন্তুষ্ট হওয়ায় বাসায় ফিরে ঠান্ডামাথায় সেটি [...]

লিখেছেন |জুলাই ২৫, ২০১৫|বিষয়: গণিত|৯ টি মন্তব্য|