দীপেন ভট্টাচার্য

লেখক: দীপেন ভট্টাচার্য

ড. দীপেন ভট্টাচার্য; আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্যোতির্পদার্থবিদ্যার গবেষক।

জলা মাঠ ছেড়ে নক্ষত্রের পানে

বাংলায় তারা নক্ষত্র গ্রহ এসব নিয়ে কিছু লিখতে হলে যদি কোন কবির উদ্ধৃতি দিতে হয় তো আমরা অনেকেই জীবনানন্দকে (১৮৯৯-১৯৫৪) টেনে আনি। জীবনানন্দকে মহাবিশ্বের এক ধরণের অর্থহীনতা নাড়া দিয়েছিল। প্রকৃতির সৌন্দর্য তাঁর কাছে ছিল রহস্যময়, মানুষের ক্রিয়া আরো অবোধ্য। আমাদের ধরা ছোঁয়ার বাইরে দূর আকাশের নক্ষত্র, শুধুমাত্র তার ইশারা নিয়ে আমাদের বিজ্ঞান গড়তে হয়, আমাদের [...]

লিখেছেন |জুলাই ১৪, ২০১৭|বিষয়: বিজ্ঞান, ব্লগাড্ডা|১টি মন্তব্য|

শূন্যতা ও মহাবিশ্ব

আজ অভিজিতের মৃত্যুদিনে তাঁকে স্মরণ করছি, তাঁর অনুপস্থিতি অনুভব করছি। তবু এই শোকের মাঝে আমি বলি অভিজিৎ এই বইটি তাঁর জীবদ্দশায় বের করে যেতে পেরেছিল, সে বুঝেছিল বইটি ভবিষ্যৎ পড়ুয়াদের চিন্তার খোরাক হবে, তাদের মনের দুয়ার হয়ত খুলবে। শত শোকের মাঝে এই আনন্দটুকু ফুটে উঠুক। 'শূন্য থেকে মহাবিশ্ব' বইটিতে গুণে গুণে ৪০০টি পাতা আছে। অধ্যাপক [...]

দ্বিজেন শর্মার ভাষায় প্রাকৃতিক নির্বাচন

১৯৭০ ও ১৯৮০'র দশক দুটিতে পড়ুয়া বাঙ্গালী কিশোরী ও কিশোর সম্মোহিত হয়েছিল বাংলা অনুবাদে রুশ তথা সোভিয়েত সাহিত্যে। শঙ্কর রায়ের অনুবাদে আর্কাদি গাইদারের চুক আর গেক, রেখা চট্টোপাধ্যায়ের অনুবাদে পাভেল বাঝোভের ম্যালাকাইটের ঝাপি, আলেক্জান্দার বেলায়েভের উভচর মানুষ। এরকম অনেক বই প্রচুর গুণী বাঙালী যত্ন করে, পরিশ্রম করে আমাদের উপহার দিয়েছেন। এর মধ্যে আছেন খালেদ চৌধুরি, [...]

রোজেটা, ফাইলি ও হায়াবুসা – নামাকরণের নাটক

ফাইলি নামে একটি মহাকাশযান 67P চুরিউমভা-গেরাসিমেঙ্কো নামে একটি ধূমকেতুতে অবতরণ করেছে। এই ধূমকেতুটির নাম হয়েছে দুজন রুশ জ্যোতির্বিদের নামে যাঁরা ধূমকেতুটি ১৯৬৯ সনে আবিষ্কার করেছিলেন। ফাইলির মাতৃযান, অর্থাৎ যে কিনা গত দশ বছর তাকে বহন করেছে, সেই রোজেটা (Rosetta) মহাকাশযান 67P ধূমকেতুকে এখনো প্রদক্ষিণ করছে, ৫০০ মিলিয়ন কিলোমিটার দূর থেকে তার কেন্দ্র জার্মানীর ডার্মস্টাডে বার্তা [...]

লিখেছেন |নভেম্বর ১৮, ২০১৪|বিষয়: বিজ্ঞান|২৪ টি মন্তব্য|

নিওলিথ স্বপ্ন

১. অনেক দিন আগে, প্রায় দশ হাজার বছর আগে এক নিওলিথ মানুষ বেরিয়ে এসেছিল তার পাহাড়ী গুহা থেকে শিশির ভেজা সকালে। তার সামনে - কিছু ছোট সবুজ গাছ পেরিয়ে - বহু নিচে একটা উপত্যকা নিজেকে বিছিয়ে রেখেছিল লাল, হলুদ আর বাদামি গাছের আবরণে। উপত্যকার মাঝখান দিয়ে চলে গিয়েছিল এক স্বচ্ছ নদী। তারপর নদী পেরিয়ে জংলী [...]

বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের সংখ্যাগত ভবিষ্যৎ

২০৫১ সনে হিন্দুদের সংখ্যা ১৯৭৪ সনে যা ছিল তাই হতে পারে বাংলাদেশে সমগ্র জনসংখ্যার তুলনায় হিন্দু সংখ্যার আনুপাতিক অবস্থান ক্রমাগতই নিম্নমুখী হচ্ছে সেটা এতদিনে আমরা সবাই জানি। সাধারণ ভাবে বলা যায় যে এই অবক্ষয়ের প্রক্রিয়াটি ১৯৪৭ সনের দেশভাগের ও পরবর্তীকালের সরকারদের ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের অধিকার নিশ্চিত না করার পরিণতি। অন্যাদিকে ভারতে বিজেপি ও অন্যান্য চরমপন্থী দলের [...]

লিখেছেন |জানুয়ারী ১২, ২০১৪|বিষয়: ব্লগাড্ডা|৩৯ টি মন্তব্য|

অদৃশ্য সমচ্ছেদ (একটি কাল্পনিক কাহিনী, শেষ অংশ)

[এই বছর গ্রীষ্মে এই কাহিনীটি মুক্তমনায় লিখছিলাম। অবশেষে শেষ হল। যাঁরা লেখাটি আগে দেখেন নি বা ভুলে গিয়েছেন তাঁদের পুরোনো পোস্টগুলোর লিঙ্কগুলো দিলাম। প্রথম থেকে পড়লে হয়তো কিছুটা গতিময়তা থাকবে যদিও ঐ পোস্টগুলোয় কিছু ভুল-ভ্রান্তি থেকে গিয়েছে। শেষ অংশটি বেশ বড়, কিন্তু না ভেঙ্গেই দিলাম। আশা করি লেখাটা আপনাদের ভাল লাগবে।] ১ম পোস্ট, ২য় পোস্ট, [...]

অদৃশ্য সমচ্ছেদ – ৬

গল্পটা এত বড় করব বলে আদিতে ভাবি নি। বড় গল্প বা উপন্যাস ক্রমশঃ দেয়ার মধ্যে কিছুটা risk আছে। তবে একবার যা শুরু হয়েছে সেটা শেষ করাই ভাল। পূর্বের অধ্যায়গুলো ষষ্ঠ অধ্যায় (চলছে) ম্যানেজারের এখনো দেখা নেই। চার তলার ফ্ল্যাট বাড়ি আমার মাথার ওপর বোঝার মত বসে থাকে। জেনেরেটর ঘট ঘট শব্দে চলছে। আমি সিঁড়ির ওপর [...]

অদৃশ্য সমচ্ছেদ – ৫

বিভিন্ন জায়গা থেকে এই পর্বগুলো পোস্ট করছি। অনেক জায়গাতেই ইন্টারনেট সংযোগ নেই। কিছু বানান ও বাক্য সংগঠন জোরাল হতে পারত, কিন্তু গল্পের ধারাটা ধরে রাখতে পোস্টগুলি দিচ্ছি। পাঠক আশা করি ক্ষমাসুন্দর চোখে দেখবেন। পূর্বের অধ্যায়গুলো নওশাদ বলে, “গত বারো ঘন্টায় ঢাকা থেকে অনেক লোক উধাও হয়ে গেছে। পৃথিবীর অনেক জায়গা থেকে এরকম ঘটনার খবর আসছে। [...]

অদৃশ্য সমচ্ছেদ – ৪

অন্যান্য অধ্যায় “তুমি কি বলছ, নওশাদ?” “আমি বলছি সেই বিওএসি বিমানের একজনও যদি জেগে থাকত তবে যাত্রীরা কেউই অদৃশ্য হত না,” নওশাদ বলে। “কিন্তু তুমি নিশ্চিত নও, এত বছর আগে সেই বিমানের ভেতরে কি ঘটেছে তা আমরা সঠিক জানি না,” আমি বলি। “না, আমরা তা জানি না। কিন্তু আমি জানি প্লেনের চারজন চালক, যারা একে [...]

অদৃশ্য সমচ্ছেদ – ৩

প্রথম ও দ্বিতীয় অধ্যায় তৃতীয় অধ্যায় ২০৩০ ঢাকার নতুন টেলিভিশন স্টেশন মহাবিশ্ব এক বছর হল চালু হয়েছে। প্রথম থেকেই মহাবিশ্ব নতুন আঙ্গিকে সংবাদ, বিভিন্ন পর্যালোচনা ও বিনোদন অনুষ্ঠান এমন ভাবে পরিবেশ করেছে যে ইতিমধ্যেই এই স্টেশনের জনপ্রিয়তা পুরোনো স্টেশনগুলোকে ছাড়িয়ে গেছে। মহাবিশ্বের একজন স্টার হচ্ছেন দীপ্তি আহমেদ। দীপ্তি একাধারে একশো – সংবাদ পর্যালোচনা, নামকরা ব্যক্তিত্বদের [...]

লিখেছেন |জুলাই ২, ২০১১|বিষয়: ব্লগাড্ডা|১৩ টি মন্তব্য|

অদৃশ্য সমচ্ছেদ – ২

দ্বিতীয় অধ্যায়টি প্রথম অধ্যায় থেকেও ছোট। অনেক পাঠকের এখন আমার ঘাড় মটকাবার অধিকার আছে। প্লট-লাইনটা নিয়ে আপনারা ভাবতে পারেন। বলাই বাহুল্য নিচে যা লেখা হয়েছে তা কাল্পনিক। অদৃশ্য সমচ্ছেদ প্রথম অধ্যায় এখানে দ্বিতীয় অধ্যায় ১৯৫৪: লন্ডন থেকে লিসবন, লিসবন থেকে ফরাসী পশ্চিম আফ্রিকার ডাকার, ডাকার থেকে ব্রাজিলের রেসিফে। ব্রিটিশ যাত্রীবাহী বিমান বিওএসি’র ডে হ্যাভিল্যান্ড কমেট। [...]

অদৃশ্য সমচ্ছেদ – ১

নিচের কাহিনীটি সবে শুরু করেছি। এর শেষ কোথায় সম্বন্ধে আমার এই মূহুর্তে পরিষ্কার ধারণা নেই, এর যে কোন সঠিক সমাধান আমি দিতে পারব তাও মনে হয় না। এই পর্যায়ে শুধু প্রথম অধ্যায়টি দেয়া হল। অদৃশ্য সমচ্ছেদ, একটি বিজ্ঞান কল্পকাহিনী ২০৩০: ঘটনাটা কোথায় শুরু হয়েছিল কেউ বলতে পারে না। একটা নির্দিষ্ট ঘটনা নিশ্চয়ই একটা জায়গা থেকেই [...]

অসীম আদি মহাবিশ্ব?

বেশ কয়েক মাস আগে মুক্তমনায় একটা লেখা লিখেছিলাম – “মহাবিশ্বের শেষ প্রান্তে পৌঁছে।” লেখাটা সবচেয়ে দূরবর্তী গ্যালাক্সী আবিষ্কারের ওপর ছিল, গ্যালাক্সীটি বিগ ব্যাংগের মাত্র ৬০০ মিলিয়ন বছরের মধ্যেই সৃষ্টি হয়েছিল। ঐ লেখাটার সূত্র ধরে ও কিছু প্রশ্নের আলোকে কিছু বক্তব্যকে পুনরায় উপস্থাপনা করছি। সবচেয়ে দূরবর্তী গ্যালাক্সীগুলো পার হলে আমরা পাই নিউট্রাল হাইড্রোজেনের একটা স্তর, তার [...]

মহাবিশ্বের শেষ প্রান্তে পৌঁছে…

গত সপ্তাহের সংবাদ অনুযায়ী জ্যোতির্বিদরা পর্যবেক্ষিত বা অবলোকিত গ্যালাক্সীদের মধ্যে সবচেয়ে দূরতম গ্যালাক্সীটি খুঁজে পেয়েছেন। এই গ্যালাক্সীটি আমাদের মহাবিশ্ব সৃষ্টির আদি মূহুর্ত বিগ ব্যাংএর মাত্র ৬০০ মিলিয়ন (৬০ কোটি) বছরের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছিল। বিগ ব্যাংএ সৃষ্ট হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম গ্যাস থেকে ক্রমঃশীতল মহাবিশ্বের প্রথম নক্ষত্ররা হয়তো এই গ্যালাক্সীর অধিবাসী। এই গ্যালাক্সী থেকে যে আলো আমরা [...]