About তানভীর

মুক্তমনা ব্লগ সদস্য।

প্রোগ্রামিং

‘‘The most profound technologies are those that disappear. They weave themselves into the fabric of everyday life until they are indistinguishable from it.’’ -Mark Weiser [১] আমরা কি অনুভব করি কী অভাবনীয় একটা সময়ে আমরা বাস করছি? এইতো একটু আগে আমি ডানে ঘুরে তাকালাম, আর পাঁচ ফুট দূরেই জানালার কাঁচে দেখতে পেলাম নিজের প্রতিবিম্ব। আমার [...]

কোয়ান্টাম তত্ত্ব

"জানার কোনো শেষ নাই, জানার চেষ্টা বৃথা তাই" লাইনটা কি খুব পরিচিত মনে হচ্ছে? হীরকরাজার দেশে এই মন্ত্র শিখিয়ে দেওয়া হয়েছিলো তার প্রজাদের। কোয়ান্টাম তত্ত্ব সম্পর্কেও ঠিক তেমন কিছু বাজে মন্ত্র প্রচলিত হয়ে গেছে বাজারে। সবচেয়ে দুঃখের বিষয় হলো, এগুলোর প্রচলন হয়েছে সেইসব বড় বড় বিজ্ঞানীদের দ্বারাই যারা এই অভাবনীয় তত্ত্বের শুরুর দিককার তাত্তিক। কী [...]

By |2012-10-16T22:13:51+06:00অক্টোবর 15, 2012|Categories: দর্শন, পদার্থবিজ্ঞান|57 Comments

যে লেখাটি হতে পারতো কোয়ান্টাম তত্ত্ব নিয়ে

সবচেয়ে অসাধারণ জিনিশটা যদি সবচেয়ে সহজ হতো, তাহলে আর মজা থাকতো না। আর আমরা তো বাঁচি মজার এককে। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো, মজার জিনিশ বেশিরভাগ সময়ই আরামদায়ক নয়। কষ্ট করার মানসিকতা আর সাহস না থাকলে মজা মেলে না। তা সে হিমালয়ে চড়া, কম্পিউটার প্রোগ্রামিং করা বা আকর্ষণীয় সঙ্গী জোগাড় করা, যাই হোক না কেন। এছাড়া [...]

By |2012-10-13T18:50:52+06:00অক্টোবর 12, 2012|Categories: শিক্ষা, সংস্কৃতি|42 Comments

কত অজানারে – ১

লিখতে বসে আজকাল আজব এক সমস্যায় পড়ছি। মাথার মধ্যে কাজ করতে থাকে ভালো কিছু লিখতে হবে। কার্যকর, তথ্য সমৃদ্ধ, শিক্ষামূলক, আর কজের কিছু লিখতে হবে। এমন কিছু লিখতে হবে যেন পাঠকের কিছু পাবার থাকে সেখান থেকে। এতকিছু মাথায় নিলে কিছু দূর লেখার পরে দেখা যায় লেখাটা হয়েছে উচ্ছে ভাজির মত। ভিটামিন মিনারেল সমৃদ্ধ, কিন্তু বিদঘুটে [...]

দ্য গ্র্যান্ড থেফ্‌ট

এমন একটা লেখা কখনো লিখতে হবে ভাবি নি। কিন্তু এই তো, খট খট করে লিখতে শুরু করেই দিলাম। এক রকম বাধ্য হয়েই। লেখাটা লেখাচুরি নিয়ে। বেশ কিছুদিন ধরে একদম আশেপাশেই এমন ঘটতে দেখছি। সহ ব্লগারদের লেখা চুরি হচ্ছে অহরহ। কখনো ভিক্টিম মুক্তমনার বিপ্লব পাল, কখনো সচলায়তনে শুভাশীষ দাশ, কখনো অন্য কেউ। এরা সবাই সহ ব্লগার [...]

‘দ্য গ্রান্ড ডিজাইন’ – স্টিফেন হকিং [অধ্যায় ৮] (অনুবাদ) (সমাপ্ত)

৮ সেই মহান নকশা এই বইয়ে আমরা বলেছি কীভাবে নভোমন্ডলের বস্তুসমূহ, যেমন- চন্দ্র, সূর্য, গ্রহ, তারাদের, ছন্দবদ্ধ গতি থেকে বোঝা যায় এগুলো সুনির্দিষ্ট নিয়ম মেনে পরিচালিত হচ্ছে, কোনো দেব-দেবী বা অসুরের খেয়াল খুশি মত নয়। এ ধরণের কিছু নিয়মের যে অস্তিত্ব আছে সেটা শুরুতে সামনে আসে জ্যোতির্বিজ্ঞান চর্চার মাধ্যমে (আসলে জ্যোতিসশাস্ত্র, কারণ সে যুগে এ [...]

‘দ্য গ্রান্ড ডিজাইন’ – স্টিফেন হকিং [অধ্যায় ৭] (অনুবাদ)

(missing image) ৭ দৃশ্যত অলৌকিক চৈনিক উপকথায় আছে, হিসা সম্রাটদের রাজত্বকালে (খ্রিষ্টপূর্ব আনুমানিক ২২০৫ -১৭৮২) একদিন আমাদের এই মহাজাগতিক পরিবেশ ওলট পালট হয়ে গেলো। হঠাৎ করেই আকাশে দেখা যেতে লাগলো দশটা সূর্য। তাদের তাপে মানুষের দুর্ভোগের সীমা নেই। এসব দেখে সম্রাট এক বিখ্যাত তীরন্দাজকে বললেন সে যেন অতিরিক্ত সূর্যগুলোকে তীর মেরে ধ্বংস করে ফেলে। বিনিময়ে [...]

‘দ্য গ্রান্ড ডিজাইন’ – স্টিফেন হকিং [অধ্যায় ৬] (অনুবাদ)

(image missing) ৬ আমাদের এই মহাবিশ্ব নির্বাচন মধ্য আফ্রিকার বোসোঙ্গো জাতির লোকদের মতে, একদম আদিতে ছিলো শুধুই অন্ধকার, পানি এবং মহান ঈশ্বর বুমবা। একদিন বুমবা প্রচণ্ড পেটের ব্যাথা সইতে না পেরে বমি করে দিলেন, সৃষ্টি হলো সূর্যের। এরপর সূর্যের তাপে আস্তে আস্তে পানি শুকাতে লাগলো, দেখা গেলো ভূমি। কিন্তু বুমবার পেটব্যাথা তখনো সারেনি। তিনি আবারো [...]

‘দ্য গ্রান্ড ডিজাইন’ – স্টিফেন হকিং [অধ্যায় ৫] (অনুবাদ)

৫ সবকিছুর তত্ত্ব মহাবিশ্বের সবচেয়ে দুর্বোধ্য ব্যাপার হচ্ছে, এটাকে বোঝা সম্ভব। - আলবার্ট আইনস্টাইন মহাবিশ্বকে বোঝা যায় কারণ এটা বৈজ্ঞানিক নিয়মে চালিত হয়; অর্থাৎ এর আচরণের গাণিতিক রূপায়ণ সম্ভব। কিন্তু সেই রূপায়ণ বা নিয়মাবলি কী? সর্বপ্রথম যে বলকে গাণিতিক ভাবে বর্ণনা করা সম্ভব হয়েছিলো সেটা হল মহাকর্ষ। ১৬৮৭ সালে নিউটন যে মহাকর্ষের সূত্র প্রকাশ করেন [...]

‘দ্য গ্রান্ড ডিজাইন’ – স্টিফেন হকিং [অধ্যায় ৪] (অনুবাদ)

৪ বিকল্প ইতিহাস ১৯৯৯ সালে অস্ট্রিয়ার একদল পদার্থবিজ্ঞানী ফুটবল আকৃতির কিছু অণুকে দেয়ালের দিকে ছুঁড়ে একটি পরীক্ষা করেন। ষাটটি কার্বন পরমাণু দিয়ে তৈরি এই অণুগুলোকে প্রায়ই বাকিবল নামে ডাকা হয়, কারণ স্থপতি বাকমিন্সটার ফুলার এই আকৃতির ভবন নির্মাণ করতেন। ধারণা করা হয় ফুলারের ভূ-আকৃতির গম্বুজগুলোই পৃথিবীর বুকে ফুটবল আকৃতির বৃহত্তম বস্তু। আর বাকিবলরা হচ্ছে ক্ষুদ্রতম। [...]