রণাঙ্গনের সৈনিক~ ফটো ব্লগ

সিরাজগঞ্জ, ২৪ মার্চ ১৯৭১।
ছাত্রী সংগ্রাম পরিষদ ও মহিলা সংগ্রাম পরিষদের বিশাল মিছিলে নেতৃত্ব দিচ্ছেন (মুখের কাছে হাত গোল করে শ্লোগান রত) সৈয়দা এলিজা শিরাজি, মঞ্জু।

]
আমার ছোটখালা সৈয়দা এলিজা শিরাজি (ডাকনাম মঞ্জু) ছিলেন ১৯৭১ এর রণাংগনের সৈনিক, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক।

সাদাকালো ঐতিহাসিক ছবিতে মুখের কাছে হাত গোল করে শ্লোগান দিতে দেখা যাচ্ছে তাকে।
সেটি সিরাজগঞ্জে ১৯৭১ এর ২৪ মার্চের ঘটনা। মুক্তিযুদ্ধের সূচনালগ্ন। মঞ্জুখালা তখন বিএড কলেজে পড়েন, ছিলেন ছাত্রী সংগ্রাম পরিষদ ও মহিলা সংগ্রাম পরিষদ, সিরাজগঞ্জ মহকুমা (এখন জেলা, তখন সিরাজগঞ্জ ছিল পাবনা জেলার অন্তর্ভুক্ত) কমিটির আহবায়ক।

আগুন ঝরা ওই সকালে ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের ছাত্র মিছিলের পাশাপাশি তিনি সব কলেজের ছাত্রীদের সংগঠিত করে বিশাল মিছিলের নেতৃত্ব দিয়ে যোগ দেন মিছিলে।

১৯৭১ এ মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে এই ছবির সূত্র ধরেই পাক সামরিক জান্তা মঞ্জু খালাকে গ্রেপ্তার করার জন্য অনেক অভিযান চালিয়েছে।

খালার বড় ভাই, সৈয়দ মোস্তাফিজুর রহমান শিরাজি, মন্টু মামাও ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের কর্মী। ১৯৭১ এ রাজাকাররা তাকে ঘুমখুন করে। শহীদ মন্টুমামার লাশ খুঁজে পাওয়া যায়নি, তার কোনো ছবিও নেই। তার স্মৃতিচিহ্ন হিসেবে একটি নীল রংগের তিন ব্যান্ডের ফিলিপস রেডিও খালার কাছে সংরক্ষিত আছে।
মন্টু মামা মুক্তিযুদ্ধের এক অকথিত অধ্যায়।…

মণ্জু খালা এখন, পারিবারিক ছবি, ২ মার্চ ২০১৮


#JoyBangla #Joy71 #FF

পাহাড়, ঘাস, ফুল, নদী খুব পছন্দ। লিখতে ও পড়তে ভালবাসি। পেশায় সাংবাদিক। * কপিরাইট (C) : লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত।

মন্তব্যসমূহ

  1. গীতা দাস এপ্রিল 23, 2018 at 6:51 অপরাহ্ন - Reply

    সৈয়দা এলিজা শিরাজি মঞ্জুকে নিয়ে পারিবারিক সম্পর্কের বাইরে আরও বিস্তারিত লিখলে মুক্তি সংগ্রামে ্নারীর অবদানের বিস্তৃত বিবিরণ পেতাম। আর মন্টু মামাকে নিয়ে আরেকটি আলাদা পোস্ট হতে পারে।

    • বিপ্লব রহমান মে 19, 2018 at 7:52 পূর্বাহ্ন - Reply

      গীতা দি,

      পারিবারিক সম্পর্ক কী খুব লিখেছি? আমি মঞ্জুকে কেন্দ্র করে মুক্তিসংগ্রামে নারীর অবদানের কথাই ছোট করে লিখেছি, এটি ফোটো ব্লগ তাই। তবে বিস্তারিত লেখার ইচ্ছে আমারো আছে। এটি সময়ে হবে।

      তোমার আগ্রহের জন্য ধন্যবাদ।

  2. কাজী রহমান মার্চ 11, 2018 at 12:34 পূর্বাহ্ন - Reply

    আপনার মঞ্জুখালা’রা ছিল বলেই দেশ জুড়ে প্রতিবাদ হয়েছে, হয়েছে স্বাধীন বাংলাদেশ। অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের সেই উত্তাল দিনগুলো দেখেছি আমি কিশোর বয়সে। মুক্তিযুদ্ধের ঠিক আগের সময়টা গুমগুম করা বিশাল সব মিছিল হতেই থাকতো ঢাকাতে। সিরাজগঞ্জেও সেই সময়কার নারী’রা এত সংগঠিত আর শক্তিশালী ছিল দেখে অবাক হয়ে গেলাম। সম্ভব হলে সেই সময়ের আরো কিছু ছবি দিয়ে দিন। সৈয়দা এলিজা শিরাজি, মঞ্জু’কে অভিবাদন।

    • বিপ্লব রহমান মার্চ 11, 2018 at 12:38 অপরাহ্ন - Reply

      আপনার আগ্রহের জন্য ধন্যবাদ।

      খুব সম্ভবত, মুক্তিযুদ্ধের আরো ছবি ওনার কাছে নেই। আসলে সে সময় ফটোগ্রাফি জিনিষটিই বিরল ও ব্যায়বহুল ছিল। আর সিরাজগঞ্জের মতো ছোট্ট একটি মহকুমায় তো এটি ছিল আরো দুর্লভ। যে কারণে শহীদ মন্টু মামার কোনো ছবি পর্যন্ত নেই।

      তবু আমি আবার মঞ্জু খালার কাছে একাত্তরের আরো ছবি খুঁজে দেখবো।

মন্তব্য করুন