গত কিছুদিন ধরে মুক্তমনা প্রতিষ্ঠাতা এবং লেখক অভিজিৎ রায়ের হত্যাকান্ডের তদন্ত বিষয়ক কয়েকটি সংবাদ আমাদের নজরে এসেছে। ‘বন্যা আহমেদ অভিজিৎ রায়ের খুনীদের সনাক্ত করেছেন’ বা ‘অভিজিতের খুনীদের তথ্য দিয়েছিলেন বন্যার এক বন্ধু’ এমন ধরনের চটুল শিরোনাম, ভুল-তথ্য প্রচার করে জনমনে সস্তা আলোড়ন সৃষ্টির চেষ্টা করা হচ্ছে বলে মুক্তমনার পক্ষ থেকে আমরা প্রতিবাদ করছি। অনেকেই যেহেতু আমাদের সাথে এ ব্যাপারে জানতে যোগাযোগ করছেন তাই আমরা বন্যা আহমেদের পক্ষ থেকে সবাইকে সঠিক তথ্য জানানোর প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছি।

কাকতালীয় ভাবে বন্যা আহমেদ যখন ২রা জুলাই লন্ডনে ভলতেয়ার লেকচার ২০১৫ দিতে যান তার ঠিক আগে থেকে এ ধরণের সংবাদগুলোর প্রচার শুরু হয়। বিট্রিশ হিউম্যানিস্ট এসোসিয়েশনের এ পাতায় গেলে বন্যা আহমেদের ভলতেয়ার লেকচার নিয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

আক্রমণের পর চার দিন স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসা শেষে বন্যা আহমেদ যখন উন্নত চিকিৎসার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যান তখন থেকে আজ পর্যন্ত তাকে বাংলাদেশ পুলিশ বা এফবিআই কারও পক্ষ থেকেই কোনো ছবি পাঠানো হয় নি সনাক্ত করা জন্য। তিনি কখনই অভিজিৎ রায়ের কোনো খুনিকে সনাক্ত করেন নি।

বন্যা আহমেদের সাথে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এর নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে। আমরা সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করতে চাই, বাংলাদেশ সরকার, প্রশাসন, অথবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাংলাদেশ দূতাবাস কেউই সরাসরি বা এফবিআই এর মাধ্যমে তার সাথে যোগাযোগ করে নি। বন্যা আহমেদ রয়টার্সকে সাক্ষাৎকার (বিডি নিউজ লিংক) প্রদানের পর সজীব ওয়াজেদ জয় তাড়াহুড়ো করে রয়টার্সের সাথে যোগাযোগ করলেও সরকারের পক্ষ থেকে কেউ বন্যা আহমেদের সাথে সরাসরি কথা বলার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন নি।

অভিজিৎ রায়ের খুনিদের তথ্য দিয়েছেন বন্যা আহমেদের বন্ধু, এমন একটি মনগড়া খবরও প্রকাশিত হয়েছে “গোয়েন্দা পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তা”র বরাত দিয়ে, যদিও বন্যা আহমেদের কোনো বন্ধুর ব্যাপারে এফবিআই বা বাংলাদেশ পুলিশ কখনও জানতে চায় নি। যাচাই না করে, উপযুক্ত প্রমাণ না দেখিয়ে, কাউকে গ্রেফতার না করে বন্যা আহমেদের “বন্ধু” নামক অশরীরিকে সংবাদপত্রে অভিযুক্ত করা তীব্র পেশাদারিত্বের অভাব ছাড়া আর কিছু নয়।

আমরা অভিজিৎ রায় হত্যাকারীদের গ্রেফতার এবং বিচারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ শাস্তি চাই, আমরা অনন্ত বিজয় দাশের হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচার চাই। আমরা রাজীব হায়দার, ওয়াশিকুর বাবু সহ সকল মুক্তচিন্তক হত্যাকারীদের বিচারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ শাস্তি চাই। মিথ্যা কথায় ভরপুর সংবাদ সম্মেলন/সংবাদ চাই না।

[75 বার পঠিত]