আপনারা অগবত আছেন যে মুক্তমনা ডয়চে ভেলের সম্মানজনক দ্য ববস জুরি পুরস্কার পেয়েছে। পুরস্কারটি ২৩ জুন, ২০১৫ তারিখে জার্মানির বন শহরে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রদান করা হবে। ডয়চে ভেলে’র পার্টনারশিপ অ্যান্ড প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট এর প্রধান আডেলহাইড ফাইল্‌কে মুক্তমনার পক্ষ থেকে পুরস্কারটি গ্রহণের জন্য বন্যা আহমেদ-কে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন যার যথাসাধ্য ভাবানুবাদ নিচে দেয়া হলো।

মূল ইংরেজি চিঠিটি এখানে পাওয়া যাবে

১৩.০৫.২০১৫

প্রিয় মিসেস আহমেদ,

প্রথমেই আমাদের আন্তরিক সমবেদনা জানবেন। আপনার স্বামীর মৃত্যু ডয়চে ভেলে’র সবাইকে মর্মাহত করেছে এবং এতে আমরা তীব্র হারানোর বেদনা অনুভব করেছি। বাংলাদেশের একটি সেকুলার সমাজের পক্ষে অভিজিৎ রায়ের কর্মকাণ্ড ছিল একটি অসামান্য অর্জন যার জন্য দরকার ছিল সাহস ও দৃঢ়সংকল্পের। আপনার স্বামীকে তার লেখালেখির জন্য যে মূল্য দিতে হয়েছে তা প্রচণ্ড মর্মান্তিক এবং কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

সে কারণে, এই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা আপনাকে জানাতে চাই যে, আপনার প্রয়াত স্বামীর এবং আপনার কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ দ্য ববস — বেস্ট অফ অনলাইন অ্যাক্টিভিজম ২০১৫ — মুক্তমনা ব্লগিং সাইট কে “সামাজিক পরিবর্তন” বিভাগে একটি জুরি পুরস্কার দিয়েছে

আপনি হয়ত জানেন যে ডয়চে ভেলে ২০০৯ সাল থেকে বাংলাদেশে ব্লগারদের কর্মকাণ্ড নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে যাচ্ছে। ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি অভিজিৎ রায় নির্মমভাবে নিহত হওয়ার পর ডয়চে ভেলের প্রধান সম্পাদক Alexander Kudascheff এটিকে “একটি জঘন্য অপরাধ” বলে আখ্যায়িত করেছিলেন এবং বলেছিলেন, “বাংলাদেশে বাক্‌স্বাধীনতা ও সংবাদপত্রের স্বাধীনতায় অনেক সীমাবদ্ধতা আছে। যেসব সাহসী সাংবাদিক ও লেখক ধর্ম প্রসঙ্গে সমালোচনামূলক অবস্থান গ্রহণ করেন তাদেরকে সহিংসতার শিকার হতে হয় এবং সর্বদা আতঙ্কের মধ্যে থাকতে হয়। সুতরাং, যাদের কণ্ঠ বাংলাদেশে শোনা যায় না তাদেরকে একটি প্লাটফর্ম দেয়ার জন্য ডয়চে ভেলে তার বাংলা সার্ভিসের মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছে।”

আমরা আশাকরি মুক্তমনা ব্লগিং সাইট দ্য ববস পুরস্কার পাওয়ার কারণে আপনি এবং আপনার স্বামী আপনাদের দেশে বাক্‌স্বাধীনতা নিশ্চিত করার পিছনে যে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন সে সম্পর্কে মানুষ আরো সচেতন হবে।

সুতরাং, ডয়চে ভেলে’র পক্ষ থেকে, আপনার প্রয়াত স্বামীর কাজের স্বীকৃত স্বরূপ, জার্মানির বন শহরে অনুষ্ঠিতব্য বিজয়ীদের অনুষ্ঠানে আপনাকে নিমন্ত্রণ জানাতে পেরে আমি আনন্দিত। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানটি ডয়চে ভেলে কর্তৃক ২০১৫ সালের ২২ থেকে ২৪ জুনের মধ্যে আয়োজিত “গ্লোবাল মিডিয়া ফোরাম” নামক আন্তর্জাতিক মিডিয়া কনফারেন্সের সময় অনুষ্ঠিত হবে।

জার্মান মিডিয়া যেহেতু আপনার সাথে দেখা করতে এবং আপনার সাক্ষাৎকার নিতে উন্মুখ হয়ে আছে সেহেতু আমি আপনাকে অন্তত ২৩ জুন সকাল ১০ টা’র মধ্যে বন-এ উপস্থিত থাকতে অনুরোধ করছি। আপনি পুরো কনফারেন্সে অংশ নিতে পারেন, বা কেবল ২৩ জুনের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানটিতেও অংশ নিতে পারেন।

দ্য ববস — বেস্ট অফ অনলাইন অ্যাক্টিভিজম ২০১৫ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে আপনি উপস্থিত থাকতে পারলে আমাদের খুব ভালো লাগবে। প্রয়োজনীয় সকল খরচ অবশ্যই ডয়চে ভেলে বহন করবে।

আমি আপনার সাথে সরাসরি দেখা করার এবং আপনার দেশে বাক্‌স্বাধীনতা রক্ষায় আপনাদের কাজ সম্পর্কে জানার অপেক্ষায় থাকলাম।

শুভেচ্ছান্তে,
আডেলহাইড ফাইলকে
পার্টনারশিপ ও প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট এর প্রধান
ডয়চে ভেলে

the bobs jury award 2015

[6 বার পঠিত]