আজ মুক্তমনার বন্যা আহমেদ এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেন। এই বিবৃতিটি প্রকাশিত হয়েছে সেন্টার ফর ইনকুইরি (সিএফআই)-তে। সেই বিবৃতিতে তিনি তাঁর স্বামী অভিজিৎ রায়ের হত্যার বিচার দাবি করেছেন। বিবৃতিটি ইংরেজিতে দেওয়া। সেটির অনুবাদ এখানে প্রকাশ করা হলো। সাথে সাথে মূল ইংরেজি বিবৃতিটিও।   আমার স্বামী অভিজিৎ রায় বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদ নিয়ে লেখালেখি করতেন, তিনি ধর্মীয় কুসংস্কারের বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনামূখর ছিলেন। শুধুমাত্র এই কারণেই তাঁকে হত্যা করা হয়েছে। গত ছাব্বিশে ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জনাকীর্ণ ক্যাম্পাসে আমরা দুজনে হামলার শিকার হই। অভিজিৎকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। আমি কোনোক্রমে বেঁচে যাই। তাঁর স্ত্রী, একই ধারার লেখক এবং একজন মুক্তচিন্তক হিসাবে, আমি এই পৈশাচিক সন্ত্রাসের তীব্র নিন্দা করি। ঐতিহাসিকভাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস হচ্ছে সকল প্রগতিশীল আন্দোলনের কেন্দ্রভূমি। অভিজিৎ নিজেও এই ক্যাম্পাসেই বেড়ে উঠেছে। মৃত্যুর হুমকি থাকা সত্ত্বেও আমরা কোনোভাবেই বিশ্বাস করতে পারি নি যে, এরকম একটা জঘন্য অপরাধ এখানে সংঘটিত হতে পারে। এই অপরাধ শুধুমাত্র একজন ব্যক্তির বিরুদ্ধে ছিলো না, ছিলো বাক স্বাধীনতা এবং মানবতার বিরুদ্ধে। আমি আর অভিজিৎ যখন নৃশংসভাবে আক্রান্ত হচ্ছি, স্থানীয় পুলিশ খুব কাছেই নিষ্ক্রিয়ভাবে দাঁড়িয়ে ছিলো। এখন আমাদের দাবি, যে করেই হোক খুনিদের বিচারের আওতায় আনতে বাংলাদেশ সরকার তার সর্বোচ্চ ক্ষমতা প্রয়োগ করুক। আমি মনে করি না যে, শুধুমাত্র খুনিদের ধরাটাই যথেষ্ট। আমি সরকারের প্রতি সন্ত্রাস নির্মূলের জন্য আবেদন জানাই, সেই সাথে লেখক-হত্যাকারীদের বিচারের আওতায় না আনার যে আইনী সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে তা বন্ধ করার দাবি জানাই। আমি যে নৃশংস ঘটনা ঘটেছে তার প্রতি সারা বিশ্বের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি এবং আমাদের সাথে এক হয়ে সুবিচার দাবি করার আহবান জানাচ্ছি। – রাফিদা আহমেদ বন্যা

My husband, Avijit Roy, wrote about science and rationalism and critiqued religious fundamentalism. Because of this, he was murdered. On February 26, 2015, he and I were attacked in a crowded area on the Dhaka University campus. Avijit was hacked to death by a machete; I survived. As his wife, fellow writer, and a freethinker, I strongly condemn this gruesome act of terror. The Dhaka University campus has historically been a space for progressive movements. It is also where Avijit grew up. Despite the death threat, we could not fathom that such a heinous crime could take place in such an area—a crime not only against a person, but against freedom of speech and humanity. While Avijit and I were being ruthlessly attacked, the local police stood close by and did not act. Now, we demand that the Bangladeshi government do everything in its power to bring the murderers to justice. I do not believe that simply catching the killers will be enough. I urge the government to address terrorism and stop a legal culture of impunity, where writers can be killed without the killers being brought to trial. I urge the world to recognize what has happened and join us in this demand for justice. – Rafida Bonya Ahmed

আজ বিবিসিও বন্যা আহমেদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ করে। সেই সাক্ষাৎকার রয়েছে এখানে। সাক্ষাৎকারের অডিওটা পাবেন এখানে। বিবিসিকে দেওয়া বন্যা আহমেদের বাংলা সাক্ষাৎকারের অডিও পাবেন এখানে। এছাড়া অডিওগুলো নিচে এমবেড করে দেয়া হলো।

ইংরেজী সাক্ষাৎকার:

বাংলা সাক্ষাৎকার:

[3 বার পঠিত]