একান্ত অনুভবে

By |2013-12-24T22:59:17+00:00ডিসেম্বর 20, 2013|Categories: কবিতা, স্মৃতিচারণ|12 Comments

এই সবুজ মাঠের প্রতিটি ঘাসের সাথে,
এই ক্ষেতের প্রতিটি ফসলের গাছের সাথে
আমার কথা হতো প্রতিদিন।
এই বনের গাছগুলির প্রতিটি পাতা
আমি ছুঁয়ে ছুঁয়ে দেখতাম পরম আদরে।

এই কুটিরের ছাউনির খড়ের সাথে
মাটির মেঝের সাথে
বাঁশের বেড়ার সাথে
ছিল আমার গভীর ঘনিষ্ঠতা।

এই পুকুরের প্রতিটি জলবিন্দুর সাথে
প্রতিটি কলমিলতার সাথে
প্রতিটি শাপলা ফুল ও কচুরিপানার সাথে
আমার অন্তরের সখ্যতা ছিল।

আমার নিত্যদিনের পদচারণা ছিল এই মেঠোপথে,
আমার কতো আপনার যে ছিল
এই উঠোনের ধূলিকণাগুলি, এই ঝোপের বুনোফুলগুলি
দূরের ওই চাঁদটা,ওই তারাগুলি, মাটির এই সুবাস!

এই আকাশ মেঘ করে মুখ গোমড়া করলে
আমার মনেও মেঘ জমে যেতো,
সে কাঁদলে আমার মনও কাঁদতো ঝরঝরিয়ে,
ঝলমল করে হাসলে আমার মনও খুশিতে নাচতো।
এই হাওয়া গাইলে আমিও গুনগুন করতাম।

একদিন আমার জীবন আবর্তিত হতো এদের নিয়ে,
আমি আবর্তিত হতাম এদের ঘিরে।
আমার দিনরাত্রি কেটেছে এদের পরম ভালোবাসার ছোঁয়ায়।
আজ আক্ষরিকভাবে আমি এদের থেকে বহুদূরে।
তবুও মনের গভীরে নিবিড়তম বন্ধনে
বাঁধা রয়েছে এরা
রয়েছে একান্ত অনুভবে।

About the Author:

মুক্তমনা ব্লগার

মন্তব্যসমূহ

  1. ফারজানা কবীর খান স্নিগ্ধা ডিসেম্বর 27, 2013 at 6:32 অপরাহ্ন - Reply

    বাহ, ‍মুগ্ধতা দিয়ে গেলাম কবি

    • তামান্না ঝুমু ডিসেম্বর 27, 2013 at 10:50 অপরাহ্ন - Reply

      @ফারজানা কবীর খান স্নিগ্ধা,
      ধন্যবাদ স্নিগ্ধা।

  2. শুভ মাইকেল ডি কস্তা ডিসেম্বর 27, 2013 at 1:55 পূর্বাহ্ন - Reply

    আপু বেশ ভাল লাগলো। খুব সাধারণ শব্দ ব্যবহারে অন্যরকম এক অনুভূতি দিলে।

    • তামান্না ঝুমু ডিসেম্বর 27, 2013 at 5:06 পূর্বাহ্ন - Reply

      @শুভ মাইকেল ডি কস্তা,
      আরে শুভ যে! কেমন আছ তুমি? ধন্যবাদ তোমার পাঠ-প্রতিক্রিয়া জনানোর জন্য।

      • শুভ মাইকেল ডি কস্তা ডিসেম্বর 27, 2013 at 5:39 পূর্বাহ্ন - Reply

        @তামান্না ঝুমু, :lotpot:

        • তামান্না ঝুমু ডিসেম্বর 27, 2013 at 10:50 অপরাহ্ন - Reply

          @শুভ মাইকেল ডি কস্তা, এত বাধভাঙা হাসির কী হলো শুভ?

  3. বাউন্ডুলে বাতাস ডিসেম্বর 25, 2013 at 12:30 অপরাহ্ন - Reply

    তবুও মনের গভীরে নিবিড়তম বন্ধনে
    বাঁধা রয়েছে এরা
    রয়েছে একান্ত অনুভবে

    আপনি যেখানেই থাকুন না কেন, অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে বাংলার মা’কে আর মায়ের সৌন্দর্যকে কখনোই ভুলতে পারবেন না। কারন বাংলার মা’ই পৃথিবীর সবচাইতে সুন্দর মা। কবিতাটি ভালো লাগলো।

  4. নিলয় নীল ডিসেম্বর 25, 2013 at 9:41 পূর্বাহ্ন - Reply

    আসলে যারা অনেক দুরে থাকে তাদের দেশের প্রতি টানটা অনেক বেশী হয় যা আমরা দেশে বসে কখনোই উপলব্ধি করতে পারি না। ভালো লাগলো, তাড়াতাড়ি দেশে চলে আসেন। (F) (F) (F)

    • তামান্না ঝুমু ডিসেম্বর 25, 2013 at 10:26 অপরাহ্ন - Reply

      @নিলয় নীল, দেশে যেতে ইচ্ছে তো করে। বিভিন্ন কারণে যাওয়া হয় না অনেকদিন। গেলে তোমার সাথে দেখা হবে নিশ্চয়ই।

  5. গৌমূমোকৃঈ ডিসেম্বর 23, 2013 at 1:38 অপরাহ্ন - Reply

    গাছের কান্ড যতো উপরেই উঠুক শেকড়ের সাথে সংযুক্ত থাকবেই।
    আপনি যত দূরেই থাকুন না কেন আপনার শেকড় আপনার নিজ গ্রাম, মেঠোপথ, বাড়ির পাশের পুকুর, পুকুরের শেওলা — এসবের সাথে আপনি যে মিশে আছেন—তারই এক ব্যাকুল চিত্র ফুটে উঠেছে আপনার কবিতায়।

    খুব ভাল লাগল।
    শুভকামন। (F)

    • তামান্না ঝুমু ডিসেম্বর 25, 2013 at 10:24 অপরাহ্ন - Reply

      @গৌমূমোকৃঈ,
      শেকড় নাড়িতে লুকিয়ে থাকে। শুভ কামনা আপনার জন্যও (F) (F)

মন্তব্য করুন