কুষ্ঠ বিকার

By |2013-12-16T06:55:50+00:00ডিসেম্বর 16, 2013|Categories: কবিতা|2 Comments

সারা গাঁয়ে দগদগে ঘা-
কুতসিত কুষ্ঠ, কদাকার ঘ্রাণ।
এ তোমার বিকার।
এই নিয়ে করতে চাও সেবা,
করতে চাও কুষ্ঠ নিবারণ!
খাদে-গর্তে শরীরে সবার?
কি করে ভাবো তবে-
সহসা উবে যাবে দগদগে ঘা।
এ যাত্রা বেঁচে যাবে জাতির মানস।

এ কেমন স্বপ্ন-আশা তোমার দেহে,
মাথার কোটরে গাংচিল-সাধ?
সাদা কুয়াশার অমল চাদর,
আর পাখীর পালক একদা এক হলে-
শূন্যে মিলাবে তুমি,
মিশে যাবে কুম্ভকর্ণ ঘুমে।
এ জাতির সাধ-আশা মিশে যাবে
তোমার পালকে?
কদাচ উঠবে না জেগে তারা
মৈথুন পিয়াসে, মিলনের তরে?
প্রাণে প্রাণে জাগবে না সাধ-
একরঙা সঙ্খচিল-সাধ?

ভুলে যাও, ভোল সেসব।
এক হও নিজের সাথে।
দেহ মনে নিয়ে এসো
মাছরাঙা মন।
তাতে পাবে প্রাণ,
প্রাণ পাবে তোমার জীবন

কদাকার ঘা তবে,
শবযাত্রার সাথি হবে।
বিবর্ণ ইতিহাস ফিরে যাবে
অন্য কোন ঠিকানার রাতে।
এ জাতি জেগে যাবে-
ঠিক মত পেয়ে যাবে
তোমার পরশ।
কুষ্ঠহীন সে হাতে-
পাবে তারা এক সাথে
জীবন সরস।

About the Author:

যে দেশে লেখক মেরে ফেলানো হয়, আর রাষ্ট্র অপরাধীর পিছু ধাওয়া না করে ধাওয়া করে লেখকের লাশের পিছে, লেখকের গলিত নাড়ী-ভুড়ী-মল ঘেটে, খতিয়ে বের করে আনে লেখকের লেখার দোষ, সেই দেশে যেন আর কোন লেখকের জন্ম না হয়। স্বাপদ সেই জনপদের আনাচ-কানাচ-অলিন্দ যেন ভরে যায় জঙ্গী জানোয়ার আর জংলী পিশাচে।

মন্তব্যসমূহ

  1. গীতা দাস ডিসেম্বর 16, 2013 at 8:54 পূর্বাহ্ন - Reply

    ভাল লেগেছে।

    • শাখা নির্ভানা ডিসেম্বর 20, 2013 at 3:31 পূর্বাহ্ন - Reply

      @গীতা দাস,
      ভাল লেগেছে শুনে ভাল লাগলো। ধন্যবাদ পড়ার জন্যে।

মন্তব্য করুন