(ছবির কৃতজ্ঞতা – কাজী মাহবুব হাসান)

মূলতঃ বাংলাদেশের স্বাধীনতাবিরোধী এবং মৌলবাদী গোষ্ঠীর প্ররোচনা এবং চাপে সরকারী সংস্থা বাংলাদেশ টেলকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি)র পক্ষ থেকে   দুটি জনপ্রিয় ব্লগে কিছু ব্লগারের ব্লগ বন্ধ সহ তাদের আনুষঙ্গিক তথ্য চেয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে আমরা অবগত হয়েছি।

মুক্তমনা এ ব্যাপারে কোন চিঠি না পেলেও অনেক ব্লগারই এ ব্যাপারে মুক্তমনার ভূমিকা এবং পদক্ষেপের ব্যাপারে অবস্থান জানতে চেয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে আমাদের ইমেইল করেছেন।  এ ব্যাপারে আমাদের বক্তব্য খুবই স্পষ্ট। মুক্তমনা বরাবরই বাক স্বাধীনতার পক্ষে থেকেছে এবং ভবিষ্যতেও বাক স্বাধীনতা সমুন্নত রাখার জন্য সবসময় কাজ করে যাবে। সমাজকে এগিয়ে নেবার জন্য ব্লগে যে কোন ধরণের আলোচনা এবং সমালোচনাকে মুক্তমনা গুরুত্বপূর্ণ মনে করে।  ধর্মীয় বা যে কোন অনুভূতির ছুতায় এই পারস্পরিক মিথষ্ক্রিয়া বন্ধের উদ্যোগ কোনভাবেই মুক্তমনা কাঙ্ক্ষিত বলে মনে করে না।

আরো একটি ব্যাপার এখানে পরিষ্কার করে বলা প্রয়োজন। মুক্তমনায় ব্লগারদের নাম, ইমেইল অ্যাড্রেস এবং পোস্ট কিংবা মন্তব্য সংক্রান্ত আইপি অ্যাড্রেস ছাড়া আর কোনো তথ্য সংরক্ষণ করা হয় না। মুক্তমনার পক্ষ থেকে লেখক এবং পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ীদের এ আশ্বাস দেয়া হচ্ছে যে, এ ব্লগে প্রদত্ত ব্লগারদের ব্যক্তিগত তথ্য কোনো অনুরোধ বা হুমকিতে উন্মুক্ত করা হবে না।

মুক্তমনা মূলতঃ মুক্তচিন্তক, যুক্তিবাদী এবং মানবতাবাদীদের দ্বারা প্রতিষ্ঠিত এবং পরিচালিত আন্তর্জালিক আলোচনা চক্র। জন্মলগ্ন থেকেই থেকেই মুক্তমনার বাংলা এবং ইংরেজি ব্লগ এবং ফোরাম বহু দেশের নাগরিকদের পাদচারণায় উদ্ভাসিত, এবং বিবিধ গুরুত্বপূর্ণ ধ্যান ধারণার মিলনক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। মুক্তমনার বিচরণ কেবল একটি দেশের পরিমণ্ডলে সীমাবদ্ধ নয়, এর অবকাঠামো বহুভাবেই আন্তর্জাতিক। ‘ইউনিভার্সাল ডিক্লারেশন অব হিউম্যান রাইটস’-এর আর্টিকেল-১৯ এ স্পষ্ট বলা আছে –

“Everyone has the right to freedom of opinion and expression; this right includes freedom to hold opinions without interference and to seek, receive and impart information and ideas through any media and regardless of frontiers.”

মুক্তমনা এ ক্ষেত্রে  ইউনিভার্সাল ডিক্লারেশন অব হিউম্যান রাইটস এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক প্রাসঙ্গিক নিয়ম ও নীতিমালার উপর শ্রদ্ধাশীল থেকে ব্লগীয় নীতিমালার মাধ্যমে  ব্লগ পরিচালনা করে বলে অঙ্গীকার করছে।

বিভিন্ন ব্লগ এবং পত্রিকায় প্রকাশিত কিছু গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট এবং প্রবন্ধ

 

[13 বার পঠিত]