একুশের বইমেলা এসে পড়লেই লোকজন জিজ্ঞেস করতে শুরু করে, ফেসবুক, ম্যাসেজ কিংবা ইমেইলে-‘ভাই এইবার কি বই বাইরাইতাছে আপনের?’

না রে ভাই, এ বছর আমার কোন বই বেরুচ্ছে না। এর আগে প্রায় প্রতিবছরই আমার একটি বা দুটি বই বেরিয়েছিল। তাই ভাবলাম এ বছর একটু বিরতি দেয়া যাক। প্রতিবছর মেলা এলেই বই প্রসব করতেই হবে, এমন তো কোন কথা নেই।

তা এ বছর আমার কোন বই না বেরুলেও [ওয়েল, একেবারে বেরুচ্ছে না তা নয়, সমকামিতা : বৈজ্ঞানিক এবং সমাজ-মনস্তাত্ত্বিক অনুসন্ধান বইটার ২য় সংস্করণ বেরিয়েছে, পাওয়া যাচ্ছে শুদ্ধস্বরের স্টলে; এছাড়া আমার ‘ভালবাসা কারে কয়’ বইটি বের হয়েছিল একেবারে গতবারের মেলা শেষ করে, সেটাকে কেউ চাইলে নতুন বই হিসেবে নিতে পারেন], আমার প্রিয় মুক্তমনা লেখকদের বেশ কিছু বইয়ের খবর আমি ইতোমধ্যেই পেয়েছি, যে বইগুলোর জন্য আমি উন্মুখ হয়ে থাকব বলা যায়। এ নিয়েই এই নোট। এ সংক্রান্ত একটা নোট আমি ফেসবুকে দিয়েছিলাম। সাইফুল সহ অনেকেই মত দিয়েছেন ব্লগেও থাকা দরকার, কারণ বইগুলো তো মুক্তমনা লেখকদেরই বই।

    • মুক্তমনার এক সময়কার সম্পাদক এবং সর্বময়প্রাণ ফরিদ আহমেদের একক  প্রবন্ধ সংকলন বেরুচ্ছে এই বই মেলায়। এর আগে আমি ফরিদ আহমেদের সাথে লিখেছিলাম একটা বৈজ্ঞানিক গ্রন্থ – ‘মহাবিশ্বে প্রাণ ও বুদ্ধিমত্তার খোঁজে’ নামে। এবারের বইটা একেবারেই তাঁর একক কীর্তি। বইয়ের শিরোনাম – বিস্ময়কর নোটবুক‘। তার বইয়ের শিরোনামের মতোই বিস্ময়কর ছিল এই তথ্যটা। দুদিন আগেও এর খবর আমি জানতাম না। জনান্তিক প্রকাশনী থেকে বেরুচ্ছে বইটা।
      প্রবন্ধকার হিসেবে ফরিদ আহমদ যেমন শক্তিশালী, ঠিক তেমনি ছোট গল্পকার হিসেবেও। বলতে দ্বিধা নেই, উনি আমার পড়া সেরা গল্পকারদের একজন। টান টান উত্তেজনাময় থ্রিলার টাইপের ছোট গল্পগুলোর তুলনা আমি কোথাও পাইনি। তার ছোটগল্পগুলোর সংকলনও বেরুনোর পথে সংকলনটির নাম – ইলেক্ট্রা।   বইয়ের প্রচ্ছদ করেছেন নিলীম আহসান। নিলীমের কাজের সাথে আমরা সবাই পরিচিত। মুক্তমনার সুন্দর সুন্দর ব্যানারগুলো তার হাতেই গড়া। গ্রন্থাকারের পাশাপাশি অভিবাদন তাকেও।

 

    • এর পরেই আসবে হয়রানাবীরের (ব্লগ লিঙ্ক) বইটা। অবিশ্বাসের দর্শনের অবিস্মরণীয় সাফল্যের পর রায়হান আবীর বের করছেন তার নতুন বই মানুষিকতা। কেন মানুষ অযৌক্তিক বিষয়ে বিশ্বাস স্থাপন করে, কেনও প্রমাণহীন বিষয়কে সত্য হিসেবে গ্রহণ করে, কেনই বা আবার অপ্রমাণিত বিষয়কে বিশ্বাস বশে মিথ্যা মনে করে ছুঁড়ে ফেলে আস্তাকুড়ে, কেনোই বা সে নিজেকে মনে করে প্রাণীজগতের মধ্যে সবচেয়ে সেরা বা আশরাফুল মাখলুকাৎ, তার বিশ্লেষণের বয়ান আছে এ বইয়ে। বইটির ভূমিকা লিখেছেন শফিউল জয়। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন সামিয়া হোসেন। রায়হানের এই স্ট্যাটাস থেকে জানলাম বইটি ইতোমধ্যেই শুদ্ধস্বরের স্টলে চলে এসেছে।
    • এই বইমেলায় আসছে অধ্যাপক ইরতিশাদ আহমদেরআমার চোখে একাত্তর’ গ্রন্থটি। অধ্যাপক ইরতিশাদ আহমদ মুক্তমনার একজন নিবেদিতপ্রাণ সদস্য (ব্লগ লিঙ্ক)। তিনি বহুদিন ধরেই মুক্তমনার সাথে, মুক্তমনাদের মুক্তবুদ্ধির আন্দোলনের সাথে জড়িত আছেন। তিনি আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ছিলেন সতের বছরের এক কিশোর। তিনি তখনকার দেখা ঘটনাবলী মুক্তমনায় লিখেছিলেন সিরিজ আকারে। মুক্তিযুদ্ধের চল্লিশ বছর পরে লেখা দশ পর্বের সেই সিরিজটিকেই বইয়ে রূপান্তরিত করেছেন তিনি, যেখানে মূর্ত হয়ে উঠেছে তার নিজের দেখা একাত্তরের অবিস্মরণীয় সংগ্রামের কাহিনি। বাঙালি জাতির এ পর্যন্ত সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি, সবচেয়ে বড় গর্বের ফসল সেই ‘একাত্তর’কে তিনি বিশ্লেষণ করেছেন তাঁর নিজস্ব দৃষ্টিকোণ থেকে, সাবলীলভাবে। তাঁর সব বিশ্লেষণের সাথে হয়তো সবাই একমত হবেন না, কিন্তু তাঁর এই রচনাটি নিঃসন্দেহে আমাদের নতুন প্রজন্মের জন্য এক মহামূল্যবান সম্পদ। এটি আমাদের জন্য এক ধরণের আলোকবর্তিকা যেন; নানা ধরণের রাজনৈতিক গলাবাজি, দলবাজি এবং কোন্দলের ঊর্ধ্বে উঠে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস যারা সঠিকভাবে জানতে চান এবং বুঝতে চান, তাদের নতুন করে ভাবতে শেখাবে এই বই। আমি বইটির বহুল প্রচার কামনা করি। বইটি প্রকাশ করেছে চার্বাক প্রকাশনী। বইটি পাওয়া যাবে প্যাপিরাস, র‍্যামন এবং কাশবন প্রকাশনীর স্টলে। বইটির একটি চমৎকার ভূমিকা লিখেছেন দেশের খ্যাতনামা বুদ্ধিজীবী অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী।
    • বইমেলায় আসছে আরেকটি উল্লেখযোগ্য বই। ড. প্রদীপ দেবেরউপমহাদেশের ১১ জন পদার্থবিজ্ঞানী‘ নামের বইটি। প্রদীপ দেব মুক্তমনার একজন ধীমান লেখক, যার তুলনা উনি নিজেই (ব্লগ লিঙ্ক)। যারা উপমহাদেশের বিজ্ঞানীদের জীবন এবং কাজ সম্বন্ধে বিস্তৃতভাবে জানতে চান, তাদের জন্য এই বইটি অবশ্য পাঠ্য। জগদীশচন্দ্র বসু, দেবেন্দ্রমোহণ বসু, চন্দ্রশেখর ভেঙ্কট রামন, শিশির কুমার মিত্র, মেঘনাদ সাহা, সত্যেন্দ্রনাথ বসু, কে এস কৃষ্ণান, হোমি জাহাঙ্গির ভাবা, সুব্রাহ্মনিয়ান চন্দ্রশেখর, বিক্রম সারাভাই ও আবদুস সালামের মত প্রথিতযশা বিজ্ঞানীদের নিয়ে এত বিস্তৃত কলেবরে এর আগে কেউ গ্রন্থ লিখেছেন বলে আমার জানা নেই। এই বইটিরও বেশ কিছু অংশ মুক্তমনায় সিরিজ আকারে প্রকাশিত হয়েছিল। বইটির একটি চমৎকার ভূমিকা লিখেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সময়কার পদার্থবিদ এবং সুপরিচিত শিক্ষাবিদ অধ্যাপক অজয় রায়। এই বইটিরও বহুল প্রচার আমি কামনা করছি এই বইমেলায়। বইটি প্রকাশিত হচ্ছে শুদ্ধস্বর থেকে।

 

    • ড. ফারসীম মান্নান মোহাম্মদী আমার প্রিয় লেখকদের একজন। তার সাথে খুব চমৎকার কিছু সময় কাটানোর সুযোগ হয়েছিল গতবার বইমেলার সময়টুকুতে, প্রায় প্রতিদিনই। বিজ্ঞানের উপর তার অনেকগুলো বই বাজারে আছে। স্বনামধন্য পদার্থবিদ অধ্যাপক হারুন অর রশীদের সাথেও তিনি বই লিখেছেন। তার একটি নতুন বই এসেছে ‘ইউডক্সাসের গোলক ও অন্যান্য প্রসঙ্গ’ শিরোনামে। এ বইটিরও বেশ কিছু অংশ মুক্তমনায় সিরিজ হিসেবে প্রকাশ করেছিলেন ফারসীম (ব্লগ লিঙ্ক)। বইটির বইয়ের একটি চমৎকার ভূমিকা লিখেছেন রমন রসার্চ সেন্টারের জ্যোতির্বিদ এবং সুলেখক ড. বিমান নাথ। চমৎকার প্রচ্ছদ করেছেন আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। বইটি প্রকাশিত হচ্ছে শুদ্ধস্বর থেকে। এই বইটির বাইরেও প্রলিফিক লেখক ফারসীম মান্নানের আরো দুটি বই মেলায় এসেছে।
    • জিরো টু ইনফিনিটির যোগ্য সম্পাদক এবং বুয়েটের তড়িৎ এবং প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ বর্ষের ছাত্র আব্দুল্লাহ আল মাহমুদের প্রথম বই প্রকাশিত হচ্ছে এবার ‘মহাবিশ্বের শিকড়ের সন্ধানে’ শিরোনামে। মুক্তমনাতেও তিনি সম্প্রতি লেখালিখি শুরু করেছেন (ব্লগ লিঙ্ক)। অত্যন্ত সহজবোধ্য ভাষায় লেখা হয়েছে বইটি, দুই কিশোর কিশোরী পলি আর শান্তার কথোপকথোনের ভিত্তিতে। বইয়ের এই ব্যতিক্রমী লেখাগুলো উনি ফেসবুকে পোস্ট করেছিলেন আগে, এবং যেগুলো ছিল প্রায় প্রতিদিনই আমাদের জ্ঞানান্বেষণ এবং আনন্দের এক বিরল উৎস। বইটি প্রকাশিত হয়েছে ‘ছায়াবীথি’ প্রকাশনী থেকে। বইটির ভূমিকা লিখেছেন ড. ফারসীম মান্নান মোহম্মদী
    • বাংলা ব্লগের ‘একাত্তরের সাইবারযোদ্ধা’রা অমি রহমান পিয়ালকে এক নামে চেনেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বলতে আমরা যেটাকে বুঝি সেটা আক্ষরিক অর্থেই সবার মাঝে ছড়িয়ে দেবার সংকল্প তার হৃদয়ে। নিজের তারুণ্যের শক্তি আর দেশপ্রেমকে পুঁজি করে যেন আক্ষরিক অর্থেই কবর থেকেই উঠিয়ে এনেছেন মুক্তিযুদ্ধের এমন সব বিরল দলিল দস্তাবেজ যা আগে কোথাওই প্রকাশিত হয়নি। সে সব দলিলের পেছনে তার নিয়মনিষ্ঠ পরিশ্রমের ছাপ, দৌড়াদৌড়ির ছাপ, আর পাশাপাশি মেধা আর প্রাজ্ঞতা তো আছেই। আমার মনে আছে, আমি জোয়ান বায়েজকে নিয়ে লেখা একটি প্রবন্ধ অমি রহমান পিয়ালকে উৎসর্গ করেছিলাম একসময়। এতদিন অস্ত্র ছিল তার ইন্টারনেট। আমি আনন্দিত যে, এই বছর তার সাহসী কাজগুলো, এতদিনের কষ্টের ফসল বই আকারে প্রকাশিত হচ্ছে। বইয়ের শিরোনাম – একাত্তরের মুক্তিবন্ধু। প্রকাশ করছে শব্দশৈলী। মুক্তিযুদ্ধের সময় জাঁ ক্যুয়ে, মারিও রয়ম্যান্স সহ বিদেশী বন্ধুরা জীবন বাজি রেখে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেছিলেন, তাদের জীবন কাহিনী তুলে ধরা হয়েছে এই বইয়ের মাধ্যমে। এই বইটির বাইরেও পিয়ালের আরেকটি বই (যেটি মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের জবাবভিত্তিক লেখার সংকলন), জাগৃতি প্রকাশনী থেকে বের হবার কথা। আমি পিয়ালের বইগুলো নিজে তো কিনবোই, অন্যদেরও কিনতে উৎসাহিত করব।
    • রণদীপম বসু আমার আরেকজন প্রিয় লেখক (ব্লগ লিঙ্ক)। বেদ মনুসংহিতা সহ হিন্দুধর্মের যাবতীয় পুরাণগুলোকে সংশয়বাদী দৃষ্টি থেকে কাটা ছেড়া করতে যার জুড়ি মেলা ভার। তিনি এবারের বইমেলায় বের করছেন ‘টিপলু’ নামে কিশোরদের জন্য একটি গল্পসংকলন। বইটি প্রকাশিত হচ্ছে শুদ্ধস্বর থেকে।

 

    • প্রথাভাঙা লেখক হুমায়ুন আজাদের কন্যা মৌলি আজাদের একটি গল্পের বই প্রকাশিত হয়েছে এই বইমেলায়। নাম – প্রিয়ানা, চোখ ও ঝরনার জলে  স্নাত এক প্রপাতের ফোয়ারা। এটি পাওয়া যাবে আগামী প্রকাশনীর স্টলে।
    • এর বাইরে ড. দীপেন ভট্টাচর্য তার নতুন সাই ফাই গ্রন্থ আমাকে মাস খানেক আগে মেইল করে পাঠিয়েছেন। বইটির নাম দিতার ঘড়ি। চমৎকার এ বইটি প্রকাশিত হয়েছে প্রথমা থেকে। যারা মুক্তমনায় দীপেনদার গল্পের সাথে পরিচিত, তারা সবাই জানেন তার গল্প লেখার অনুপম ক্ষমতার কথা (ব্লগ লিঙ্ক)। বইটি পড়ে আমি সত্যই মুগ্ধ হয়েছি।
    • গল্পগ্রন্থ প্রকাশ করেছেন সুলেখক মোজাফফর হোসেনও। তার ব্যতিক্রমধর্মী নানা স্বাদের গল্পগুলো সবসময়ই মুক্তমনার একাংশের কাছে ছিল আগ্রহের কেন্দ্র। তার গ্রন্থের নাম আদিম বুদবুদ অথবা কাঁচামাটির বিগ্রহ, প্রকাশিত হয়েছে রাত্রি প্রকাশনী থেকে।

 

উপরের বইগুলোর যতটুকু আমার বিভিন্ন ব্লগে এবং অনলাইনে পড়ার সুযোগ হয়েছে, তার ভিত্তিতে নির্দ্বিধায় বলতে পারি, প্রতিটি বইই গুণে মানে অনন্য। এই বইগুলোর দিকে আমি নিঃসন্দেহে উন্মুখ হয়ে তাকিয়ে থাকব।

বইমেলায় বইয়ের পাশাপাশি পাওয়া যাচ্ছে নানা ধরনের ম্যাগাজিনও। মুক্তান্বেষা এবং যুক্তির মত ম্যাগাজিনের নতুন সংখ্যা বেরুবার সম্ভাবনা আছে মেলায়। তবে যে বিজ্ঞান সাময়িকীটি বেশ কিছুদিন ধরে আমার আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু তা হল বিজ্ঞানের একটি ত্রৈমাসিক পত্রিকা – জিরো টু ইনফিনিটি। পত্রিকাটিতে যেমন আছে তারুন্যের ছাপ তেমনি বিজ্ঞানমনস্কতার অভিব্যক্তি। মেলায় প্রকাশিত হচ্ছে পত্রিকাটির ফেব্রুয়ারি ২০১৩ সংখ্যা। এবারের প্রচ্ছদ আমার একটি প্রবন্ধের উপরে করা -‘স্ফীতি তত্ত্ব ও মহাবিশ্বের উদ্ভব’। পত্রিকাটি পাওয়া যাবে  ‘ছায়াবীথি’  স্টলে।

 

আমরা চাইবো মুক্তমনা ব্লগ-সদস্য, লেখক এবং পাঠকেরা যেন তাদের লেখা কিংবা জানা বইয়ের তথ্যগুলো আমাদের কাছে পাঠিয়ে দেন। এর ফলে সবাই সরাসরি প্রকাশিত কিংবা প্রকাশিতব্য বইয়ের তথ্যগুলো জানতে পারবেন। বইয়ের তথ্য জানানোর জন্য কেউ এই ব্লগে মন্তব্য করতে পারেন কিংবা জানাতে পারেন – ইমেইলে ([email protected] – এই ঠিকানায়)। বইয়ের প্রচ্ছদ হয়ে গেলে প্রচ্ছদের ছবিটিও মন্তব্যে জুড়ে দিন কিংবা এটাচমেন্ট হিসেবে আমাদের কাছে পাঠান। সেই সাথে জানিয়ে দিন নিম্নোক্ত তথ্যগুলো –

বইয়ের সম্পূর্ণ শিরোনাম

বইয়ের লেখক বা সহলেখকদের নাম

বইয়ের বিষয়/ধরণ

বইয়ের পৃষ্ঠা সংখ্যা

বইয়ের প্রকাশকের নাম

বইয়ের প্রচ্ছদ-শিল্পীর নাম এবং

বইয়ের মুদ্রিত মূল্য

বরাবরের মতোই মুক্তমনা লেখকদের প্রকাশিতব্য গ্রন্থের তালিকা সংক্রান্ত পোস্টটি বইমেলা চলাকালীন সময় নীড়পাতায় স্টিকি হিসেবে রেখে দেয়ার চেষ্টা করা হবে। বইমেলা উপলক্ষে মুক্তমনা-লেখকদের বই প্রকাশিত হওয়ার জন্য লেখকদের উষ্ণ অভিনন্দন। (F)

[পোস্টটি নিয়মিত আপডেট হবে

যে ক’টি বইয়ের খবর এর মধ্যে জেনেছি সেগুলো এই পোস্টে আপডেট করে দিলাম। নতুন বইয়ের খবর আসা মাত্র আমরা সেগুলো তালিকায় সংযুক্ত করে দিব। ২০১৩ সালে প্রকাশিত এবং প্রকাশিতব্য বইগুলো:

বই তথ্য
https://i2.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/bishoykor_notebook_sm.jpg?w=669

বিস্ময়কর নোটবুক

লেখক ফরিদ আহমেদ (প্রবন্ধ সংকলন)

প্রকাশক – জনান্তিক

মুদ্রিত মূল্য: ১৫০ টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: []

প্রচ্ছদ – নিলীম আহসান।

 

https://i1.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/manushikota_sm.jpg?w=669 

মানুষিকতা

লেখক রায়হান আবীর (বিজ্ঞান ও দর্শন বিষয়ক গ্রন্থ)।

প্রকাশক – শুদ্ধস্বর

মুদ্রিত মূল্য: ১৩৫ টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: ৮৮

প্রচ্ছদ – সামিয়া হোসেন।

https://i1.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/amar-chokhe-Ekattur_sm.jpg?w=669 

আমার চোখে একাত্তর

লেখক: অধ্যাপক ইরতিশাদ আহমদ (মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ এবং বিশ্লেষণ)

প্রকাশক: চার্বাক

মুদ্রিত মূল্য: ১৩০ টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: ৮৫

প্রচ্ছদ: শ্যামল বিশ্বাস

https://i2.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/udaxer_golok_sm.jpg?w=669 

ইউডক্সাসের গোলক ও অন্যান্য প্রসঙ্গ

লেখক : ড. ফারসীম মান্নান মোহাম্মদী

প্রকাশক: শুদ্ধস্বর

মুদ্রিত মূল্য: [] টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: []

প্রচ্ছদ: []

https://i2.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/book_not_found_sm.jpg?w=669 

উপমহাদেশের ১১ জন পদার্থবিজ্ঞানী

লেখক: ড. প্রদীপ দেব (বিজ্ঞানীদের জীবনী)

প্রকাশনা সংস্থা: শুদ্ধস্বর

মুদ্রিত মূল্য: [] টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: [] পৃষ্ঠা

প্রচ্ছদ: []

https://i2.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/mohabisssher_shekorer_shondhan_sm.jpg?w=669 

মহাবিশ্বের শিকড়ের সন্ধানে

লেখক: আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ (বিজ্ঞান বিষয়ক)

প্রকাশনা সংস্থা: ছায়াবীথি

মুদ্রিত মূল্য: ১৫০  টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: ৬৪ (রঙ্গিন)

প্রচ্ছদ: জাহাঙ্গির আলম সুজন

https://i1.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/ekattuerer_muktibondhu_sm.jpg?w=669 

একাত্তরের মুক্তিবন্ধু

লেখক: অমি রহমান পিয়াল (মুক্তিযুদ্ধের গবেষণাগ্রন্থ)

প্রকাশনা সংস্থা: শব্দশৈলী

মুদ্রিত মূল্য: [] টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: [] পৃষ্ঠা

প্রচ্ছদ: []

https://i0.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/Tiplu_sm.jpg?w=669

টিপলু

লেখক: রণদীপম বসু (কিশোর-গল্প)

প্রকাশনা সংস্থা: শুদ্ধস্বর

মুদ্রিত মূল্য: ১০০ টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: ৪৮ পৃষ্ঠা

প্রচ্ছদ: আবু হাসান

 

https://i2.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/ditar_ghori_sm.jpg?w=669 

দিতার ঘড়ি

লেখক: ড. দীপেন ভট্টাচর্য (বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনি)

প্রকাশনা সংস্থা: প্রথমা

মুদ্রিত মূল্য: ২৮০ টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: ১৯১ পৃষ্ঠা

প্রচ্ছদ: এরিক হ্যারিস

https://i2.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/adim_budbud_sm.jpg?w=669 

আদিম বুদবুদ অথবা কাঁচামাটির বিগ্রহ

লেখক: মোজাফফর হোসেন

প্রকাশনা সংস্থা: রাত্রি

মুদ্রিত মূল্য: ১৬০টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: ১২৮ পৃষ্ঠা

প্রচ্ছদ: চারু পিন্টু

https://i1.wp.com/mukto-mona.net/project/boimela2013/priyana_mouli_sm.jpg?w=669 

প্রিয়ানা, চোখ ও ঝরনার জলে স্নাত এক প্রপাতের ফোয়ারা

লেখক: মৌলি আজাদ

প্রকাশনা সংস্থা: আগামী প্রকাশনী

মুদ্রিত মূল্য: ১২০ টাকা

পৃষ্ঠা সংখ্যা: [] পৃষ্ঠা

প্রচ্ছদ: শিবু কুমার শীল

 

:line:
প্রাসঙ্গিক পোস্ট:
২০১২ সালে প্রকাশিত মুক্তমনা সদস্যদের বই
২০১১ সালে প্রকাশিত মুক্তমনা সদস্যদের বই
২০১০, ২০০৯ এবং ২০০৮ সালে প্রকাশিত মুক্তমনা সদস্যদের বই
:line:

[199 বার পঠিত]