নিষিক্ত নিঃসঙ্গতা

By |2013-01-16T17:29:43+00:00জানুয়ারী 16, 2013|Categories: কবিতা, স্মৃতিচারণ|3 Comments

নিষিক্ত নিঃসঙ্গতা
কবিতা
আদনান আদনান

উৎসর্গ
টোটন

১। নরকের রঙিন প্রজাপতি

নির্লজ্জ দর্শকেরা নিশ্চুপ ভেজে
অদৃশ্য মৃত্যুর নিখুঁত কারুকার্যে
নরকের রঙিন প্রজাপতির অপেক্ষায় থেকে
মানুষেরা সব ধরে ভাণ অক্ষমতার

আগামীতে আরো অনেক মৃত্যু হবে
জন্ম হবে আরো অনেক নীরবতার
পৃথিবীর পরে মানুষের মানুষ হওয়া হবে
হবে না শুধু তার মানুষ হয়ে উঠা

২। রাত্রির প্রান্তে

ঝরা অন্ধকারে
মানুষেরা খোঁজে
নতুন আলো

মানুষের সন্ধানে
অন্তর গহনে
হারায় ভোর

ক্লান্ত মানুষেরা
ছাড়ে হাল
রাত্রির প্রান্তে

চলবে…

বাঙলাদেশ, বাঙলাদেশ

মন্তব্যসমূহ

  1. রুদ্রাভ জানুয়ারী 22, 2013 at 1:29 পূর্বাহ্ন - Reply

    অনুসন্ধান এবং একাকীত্ত্ববোধ আপনাকে নিয়ে যাক সেখানে যা আপনাকে অভিভূত করবে………

  2. কাজি মামুন জানুয়ারী 16, 2013 at 11:48 অপরাহ্ন - Reply

    পৃথিবীর পরে মানুষের মানুষ হওয়া হবে
    হবে না শুধু তার মানুষ হয়ে উঠা

    যদিও কবিতার অর্থ জানতে চাওয়া রীতিমত অন্যায়, তবু জানার আকুল বাসনা চেপে রাখতে ব্যর্থ হলাম। কি মানে এই লাইনদুটির, আদনান ভাই? (ধরে নিন, কবিতার ক্লাসের কোন ছাত্রের কৌতূহলী প্রশ্ন এটি। 🙂 )

    • আদনান আদনান জানুয়ারী 17, 2013 at 7:06 পূর্বাহ্ন - Reply

      @কাজি মামুন,

      আমরা তো সবাই মানুষ উপরে উপরে, আর নিজেদের ও সুবিধাবাদিদের সামনে। কিন্তু আমাদের “ভিতরে” কি আমরা সবাই মানুষ?

      মুক্তমনাতে “পতন” নামে ছাপানো আমার একটি গল্পের ইংলিশ ভার্শন ছাপা হয়েছে এখানেঃ
      http://www.flash-fiction-world.com/the-fall.html

      ধন্যবাদ।

মন্তব্য করুন