অতিক্রান্ত সময়ের
ভার বয়ে,

ক্ষুধা পেটে
দড়ি বেঁধে,

আজো অপেক্ষায়।

অঙ্গার মনে

অবশিষ্টে উজ্জল

শুধু চোখগুলো,

নতুনদের পানে।

নতুনদের পানে.
ঋজু অথচ;
অভিমানী স্বত্বা।

সাধারণ দিয়ে যায় মূল্য,
নেয় না মোটে,
নেওয়া হয় না,

পথিমধ্যে হয়ে যায় লুট

বদলায় মুখোশ শুধু,
যতসব স্বার্থপর হায়েনায়।

গলিত দেহ একাকার আবর্জনা থেকে,
দেহাবশেষের জানালা বেয়ে,
বেরোয় নতুন চারা।
চেতনার আদর উত্তাপে বড় হয় ওরা,
ছুঁড়ে ফেলে বেনিয়ার চাপানো বিভ্রান্তিকে,
পা বাড়ায় শাশ্বত আলোর খোঁজে।

একাদের এক করে দল বাধে একসাথে।

পাজরের ফাঁক গলে চেতনায় উত্তপ্ত ওরা,
ছ্যাঁদা খুলির দূর্গ ছেড়ে মুক্তাঙ্গনের ওরা,
গনগনে ওরা, আসছে, প্রতিশোধ নিতে।

সাবধান।

[72 বার পঠিত]