লিখেছেন: রাইট হার্ট

islam

সূচি:

সাধারণ কিছু জিজ্ঞাসা

ইসলামে নৈতিকতা : নারীর মূল্য ও বর্বরতা

ইসলামি বিজ্ঞান : কুরান ও হাদিস

কুরান : কিছু অসামঞ্জস্যতা

কুরান : স্ববিরোধিতা

ইসলামে নিষিদ্ধ বিষয়াবলি

নবী মুহম্মদ ও অন্যান্য

কুরানিস্টদের জন্যে

সাধারণ কিছু জিজ্ঞাসা

প্রশ্ন – ১

বর্তমানে বিশ্বে মাত্র 150 million আরবি ভাষাভাষি মানুষ আছে । আল্লাহ কেন এমন একটা ভাষায় কুরআন নাজিল করলেন না যেটাতে অধিক মানুষ কথা বলে, যেমন English (350 million), Mandarin (800 million), Spanish (358 million), Hindi (200 million) কিংবা Russian (160 million) ?

প্রশ্ন – ২

আল্লাহ কেন মুসলিম অধ্যুষিত অঞ্চল গুলোতেই বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকম্প গুলো ঘটিয়ে থাকেন ? যদি এটা তাদের বিশ্বাসের পরিক্ষা নেওয়াই হয়ে থাকে, তবে এর ফলে যে নিরীহ মহিলা ও বাচ্চাগুলো মারা যাচ্ছে সেটা কি বৈষম্যের পর্যায়ে পড়ে না ?

(Out of the 10 most deadly earthquakes in the last 50 years, 6 of the 8 countries affected were populated by a Muslim majority. Peter Hough – Understanding Global Security)

প্রশ্ন – ৩

মুসলিম দেশ গুলোতে ভুমিকম্পের ফলে যখন মসজিদ গুলো ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়, তখন তার প্রতিরক্ষায় আল্লাহ কেন কোন ব্যবস্থা নেন না ?

লিংক

প্রশ্ন – ৪

বর্তমানে মুসলিম দের সাথে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ চলছে বিভিন্ন দেশে : Hindus in Kashmir / Christians in Nigeria, Egypt, and Bosnia / Atheists in Chechnya / Baha’is in Iran / Animists in Darfur / Buddhists in Thailand / each other in Iraq, Pakistan, Somalia, and Yemen / Jews in Israel. কেন মুসলিমরা সর্বদাই এমন গোড়ামিপূর্ণ এবং ধর্মীয় সংঘর্ষে লিপ্ত যেখানে অন্য ধর্মের অনুসারীরা নয় ?

প্রশ্ন – ৫

আল্লাহর ঘর ‘কাবা’ (Quran 3:96) মুহম্মদের মৃত্যুর পর কয়েকবার ধ্বংসপ্রাপ্ত হয় ! কাবার কালো পাথর (Black stone) বিদীর্ণ হয় বহু খন্ডে, Qarmatians-রা সেটা চুরি করে এবং বহু বছর পরে তার বিনিময়ে মুক্তিপন আদায় করে ! সর্ব শক্তিমান আল্লাহ কেন সমগ্র মুসলিম জাহানের এই পবিত্র ঘর এবং পাথর কে বাঁচাতে কোন ধরনের পদক্ষেপ নিলেন না ?

http://en.wikipedia.org/wiki/Kaaba#After_Muhammad
http://www.al-islam.org/kaaba14/1.htm
http://en.wikipedia.org/wiki/Black_Stone#History_and_tradition

প্রশ্ন – ৬

“The 100 : A Ranking of the Most Influential Persons in History” বই এর লেখক Michael H. Hart । এতে প্রথম পজিশনে আছে ইসলাম ধর্মের প্রতিষ্ঠাতা মুহম্মদ (সঃ), যেটা উল্লেখ করে সকল মুসলিম আত্মতৃপ্তি লাভ করেন !

Michael H. Hart দাবি করেছেন যে, দুটো কারনে তিনি মুহম্মদ কে নাম্বার ১ পজিশনে রেখেছেন –

১) যুদ্ধের নেতৃত্বে সফলতার জন্যে
২) কুরআন রচনা করে ইসলামের ধর্মতত্ব ও আইন প্রতিষ্ঠার জন্যে ।

মুসলিম হিসেবে আপনি কি এই দাবীর সাথে একমত ? যদি না হন, তবে মুহম্মদের এই প্রথম পজিশনে থাকায় আপনি কি এখন আর গর্বিত হবেন ??

(অনেকে এই বইয়ের সূত্র ধরে মুহাম্মদকে ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ পুরুষ বলে প্রচার করেন। তারা কি শ্রেষ্ঠ আর Influential Persons এর মধ্যে পার্থক্য বুঝেন না?)

প্রশ্ন – ৭

পবিত্র স্থান মক্কায় আল্লাহ কতৃক বন্যা ঘটানোর উদ্দেশ্য কি ? নিজের বান্দাদের ঈমানের পরীক্ষা নেওয়া ?

ইসলামে নৈতিকতা : নারীর মূল্য ও বর্বরতা

প্রশ্ন – ১

একজন মুসলিম পুরুষের জন্যে চার পত্নি (Quran 4:3), উপপত্নি, দাসী (Quran 23:5-7, 70:29-30, Malik’s Muwatta hadis 2:23:90, 28:14:33, 28:14:38), যুদ্ধ বন্দিনি (Sahih Muslim 8:3373, 8:3383, 8:3432, Sahih Bukhari 7:62:137, 9:93:506, 5:59:459, Abu Dawud 11:2166) -দের সাথে যৌন সম্পর্ক করা বৈধ । মানুষ হিসেবে আপনার কেমন লাগবে যখন আপনার ধর্ম আপনাকে শেখাচ্ছে বিবাহ বহির্ভুত যৌনসম্পর্ক, পরকীয়া, ধর্ষন, বহুবিবাহ ?

প্রশ্ন – ২

পাকিস্তানি আর্মি কর্তৃক বাঙালি নারী ধর্ষন আপনার চোখে কেন খারাপ প্রতিপন্ন হয় যখন কুরান এবং হাদিসে তারই নির্দেশনা রয়েছে (Quran 4:24, 33:50 Sahih Bukhari 5:59:637, 5:59:459, 7:62:137 Abu-Dawud 11:2150 Sahih Muslim 8:3432) ?

প্রশ্ন – ৩

যুদ্ধ বন্দিনিদের সাথে যৌন সম্পর্ক কে (Sahih Muslim 8:3373, 8:3383, 8:3432, Sahih Bukhari 7:62:137, 9:93:506, 5:59:459, Abu Dawud 11:2166) আপনার দৃষ্টিতে কি ধর্ষন বলে মনে হয় না ? নিশ্চই কোন নারী নিজের স্বামী হন্তকের সাথে স্ব-ইচ্ছায় যৌন সম্পর্ক করতে চাইবে না !

প্রশ্ন – ৪

বলা হয়ে থাকে ইসলাম শান্তির ধর্ম ! তাহলে কেন কুরানের সর্বত্র ছড়িয়ে আছে বিধর্মী বা কাফের দের প্রতি এতো হিংসাত্মক/ আক্রমনাত্মক নির্দেশনা (Quran 1:7, 2:9, 3:28, 3:85, 3:118, 5:51, 5:65, 5:80, 9:23, 60:01, 8:55 … ইতাদি) ?

প্রশ্ন – ৫

আল্লাহ বলেছেন অমুসলিমদের কে ”বন্ধু এবং সাহায্যকারী” হিসেবে গ্রহন না করতে (Quran 5:51, 5:57, 4:144, 3:28) ! তাহলে কেন মুসলিমরা আল্লাহর নির্দেশ অমান্য করে তাদের থেকে প্রতিনিয়ত সাহায্য নিয়ে যাচ্ছে ?

প্রশ্ন – ৬

সমস্ত মানুষ যদি আল্লাহরই সৃষ্ট হয় তবে কেমন করে নিজের সৃষ্টির প্রতি (যারা অবিশ্বাসী) তিনি এমন আক্রোশপূর্ণ বানী (Quran 2:191) উচ্চারন করতে পারেন যা মানুষের মাঝে সংঘর্ষ বাধিয়ে দেয় ?

প্রশ্ন – ৭

ইসলাম তার অনুসারিদের নির্দেশ দেয় অন্য ধর্মাবলম্বিদের জোর পূর্বক ইসলাম গ্রহন করতে, তাদের কে যুদ্ধে উদ্বুদ্ধ করতে যতক্ষণ না অন্যরা ইসলামকে স্বীকার করে নিচ্ছে (Quran 2:193, 9:5, 9:29, 47:4) ! আপনার কি মনে হয়না এসব নির্দেশনা মানবাধিকার কে লঙ্ঘন করছে ?

প্রশ্ন – ৮

ভবিষ্যতে যদি কখনো মুসলিমরা শক্তিশালী হয়ে ওঠে আর কুরান (Quran 4:89) এর নির্দেশ অনুসারে সকল অমুসলিমদের হত্যা করে তবে সেটা কোনভাবেই অন্যায় বলে গন্য হবে না (Quran 3:157, 3:169) ! আপনার কি এরপরও মনে হয় ইসলাম কোন সৃষ্টিকর্তার নির্দেশিত ধর্ম হতে পারে ?

প্রশ্ন – ৯

কুরানে বারবার (প্রায় ১৬৪ টা আয়াতে) মুসলিমদের উৎসাহিত করা হয়েছে জিহাদে যোগদান করার জন্যে (Quran 8:65, 9:29, 9:123, 4:71, 4:74-76, 4:84, 4:89, 4:91, 4:95, 2:193, 2:216, 3:157, 3:169, 9:24) ! আর এ কাজটাই করে যাচ্ছে সকল উগ্রপন্থি ইসলামি গ্রুপ কুরানের নির্দেশনা মোতাবেক ! তাহলে আপনি কোন পরিপ্রেক্ষিতে দাবী করেন যে তারা ইসলাম থেকে চ্যুত হয়েছে ?

লিংক

প্রশ্ন – ১০

কুরানে অন্তত পক্ষে 109 এর মত আয়াত আছে যা সকল মুসলিম কে উদ্বুদ্ধ করে ইসলামি আইন প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্যে অমুসলিম/অবিশ্বাসী দের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে (Quran 2:191, 9:5, 9:123, 8:65, 9:29, 2:193, 5:51, 9:23, 3:28, 3:169, 2:216, 47:4, 8:12, 9:73, 9:111 … ইত্যাদি) ! যে সকল মুসলিম যুদ্ধে অংশ নিতে চায়না তাদের কে বলা হয় ‘hypocrites’ এবং তাদের এই বলে সতর্ক করা হয় যে আল্লাহ তাদের স্থান দেবেন দোজখে যদি তারা হত্যায় অংশ না নেয় (Quran 9:38-39) ! এসব জানার পরেও কি আপনার মনে হয় না যে ইসলাম শান্তির নয় বরং সন্ত্রাসের ধর্ম ?

প্রশ্ন – ১১

ইসলামে পুরুষকে চারটা বিয়ের অনুমতি (Quran 4:3) দেওয়ার মাধ্যমে কি নারীদের যৌন ভোগ্যপন্য হিসেবে উপস্থাপন করা হয় নি ?

প্রশ্ন – ১২

ইসলাম অনুযায়ী নারীদের জন্যে বহু বিবাহ নিষিদ্ধ, বিবাহ পুর্ব বা বিবাহ বহির্ভুত যৌন সম্পর্ক নিষিদ্ধ, স্বামীর গায়ে হাত তোলা নিষিদ্ধ, যদিও এর সব গুলোই একজন পুরুষ পারবে (Quran 4:3, 23:1-11, 4:34) ! একজন পুরুষ সম্পত্তির ক্ষেত্রে নারীর দিগুন পাবে (Quran 4:11) এবং কোর্টে সাক্ষ্য গ্রহনের ক্ষেত্রে একজন নারী একজন পুরুষের অর্ধেক বলে বিবেচিত হবে (Quran 2:282) ! তাহলে একজন মুসলিম কিভাবে দাবি করে ইসলামে নারী ও পুরুষের সমান অধিকার দেওয়া হয়েছে ?

প্রশ্ন – ১৩

নারী কে কেন ইসলাম ধর্মে এতো হেয় প্রতিপন্ন করা হয়েছে (Quran 3:14, 2:223, 2:282, 4:34, 24:31, 2:31, Sahih Muslim 31:5966, 36:6603, 8:3240, 8:3243, 8:3471 Sahih Bukhari 2:24:541, 1:301, 9:493, 5:709, 5:2238, 4:54:460, 7:134 Abu-Dawud 11:2142, 11:2155, 11:2045 Tirmizi Sarif vol-2 page 264, Al-Tabari vol-9 page 112-114 Dictionary of Islam : page 675, 678-679), যেখানে প্রকৃতিতে টিকে থাকতে নারী-পুরুষের সমান অংশিদারত্ব রয়েছে ?

প্রশ্ন – ১৪

বাল্য বিবাহ আধুনিক সমাজে খারাপ হিসেবে দেখা হয় কেননা এতে করে বহু সমস্যার সৃষ্টি হয়, এবং বয়সন্ধির পূর্বেই (below 16 yrs) যৌন সম্পর্ক আইনের দৃষ্টিতে ধর্ষন ! তাহলে কুরানে (Quran 65:4, Sahih Bukhari 7:62:63, Al-Muwatta 29 33.108) কেন সে ধরনের ইঙ্গিতই রয়েছে, যার ফলে বহু ইসলামিক দেশেই বিষয়টাকে বৈধতা দেওয়া হয়েছে ?
লিংক

প্রশ্ন – ১৫

আপনি (for women) কি নিজ বাড়িতে আপনার স্বামীর সঙ্গে তার দাসীদের (sex slaves) যৌন সম্পর্ককে মেনে নেবেন ? কেন নয় যখন তার অনুমোদন এসেছে আল্লাহর কাছ থেকে (Quran 23:5-7, 70:29-30 Malik’s Muwatta hadis 2:23:90, 28:14:33, 28:14:38) এবং যার চর্চা নবী মুহম্মদও করে গেছেন (Sahih Bukhari 9:89:321 or eg. Mariyah) ?
লিংক

প্রশ্ন – ১৬

ইসলাম আদেশ করে যখনই একজন মুসলিম স্বামী ইচ্ছা করবে, তখনই তার পত্নিকে সেক্স এর জন্যে সারা দিতে হবে, যদিনা তার রজচক্র চলে বা অসুস্থ থাকে (Sahih bukhari 8:3368, Mishkat al-Masabih Book I, Section ‘Duties of husband and wife’, Hadith No. 61, Al Tirmidhi Hadith No. 1160 and Ibn Ma’jah Hadith No. 4165) ! ইসলামে নারীদের কোন ব্যক্তি স্বাধীনতা দেওয়া হয়নি কেন ?

প্রশ্ন – ১৭

ইসলাম মেয়েদেরকে ট্রিট করে গৃহ পালিত পশুর মত (Al-Tabari, Vol. 9, p. 113, No. 1754 Sahih Bukhari 1:9:493, 1:9:490 Sahih Muslim 4:1032) ! আপনি (for women) কোন যুক্তিতে এটাকে স্বাভাবিক ভেবে মেনে নিচ্ছেন ?

প্রশ্ন – ১৮

কুরান এবং হাদিস অনুযায়ী একজন পুরুষ চাইলেই তার স্ত্রীর গায়ে হাত তুলতে অর্থাৎ প্রহার করতে পারবে (Quran 4:34, 38:41-44 Sahih Muslim 4:2127, 9:3526-3527 Sahih Bukhari 8:82:828, 1:7:330, 6:60:132, 7:6:715 Abu Dawud 11:2139-2142 Ibn Ishaq: p 496 Al-Tabari, Vol. 9, pp. 112-113) ! প্রশ্ন হলো ইসলাম কেন এভাবে নারী অধিকার কে ক্ষুন্ন করে ?

প্রশ্ন – ১৯

ইসলামে ধর্ষনের অনুমোদন পাওয়া যায় কুরান থেকে (Quran 4:3, 4:24 Tafsir al-Wahidi, 23:5-6, 33:50, 70:22-30) হাদিস থেকে (যুদ্ধবন্দিনি ধর্ষন – Sahih Bukhari 5:59:459 Sahih Muslim 8:3432, 8:3433, 8:3371 Abu Dawud 2:2150, 11:2153 দাসী ধর্ষন – Sahih Bukhari 8:77:600, 3:34:432 Sahih Muslim 8:3383 Abu Dawud 31:4006) ! আপনি (for women) কি মনে করেন ইসলামের এই অনৈতিক বিষয়গুলোকে কোন সৃষ্টিকর্তা প্রদত্ত হতে পারে ?

প্রশ্ন – ২০

আপনার (for women) কি মনে হয় না যে বেহেস্ত পুরুষের জন্যে একটা বেশ্যালয় ছাড়া আর কিছুই নয় ?

(Quran 56:35-37, 78:31-33, 55:56, 55:70-74 see Tafsir Ibn Kathir Al-Tirmidhi Vol-4, Ch-21, No-2687 Sahih Muslim 40:6795, 40:6796 Sahih Bukhari 4:55:544 Al-Itqan fi Ulum al-Quran, page 351 Mishkat al-Masabih Book-4, Ch-42, No-24 Sunan Ibn Maja, Zuhd Book of Abstinence 39 Al-Suyuti, Al-Itqan fi Ulum al-Quran, p. 351)

লিংক

প্রশ্ন – ২১

হাদিস অনুযায়ী মুহম্মদ বিবৃতি করেছেন যে, একজন পুরুষকে কোন মহিলার সাথে এক ঘরে থাকতে হলে ঐ পুরুষটিকে মহিলার বুকের দুধ পান করতে হবে (Sahih Muslim 8:3425) ! এটা কি কোন ভালো পরামর্শ হতে পারে বলে আপনি মনে করেন ?

প্রশ্ন – ২২

ইসলাম নারীর কেমন মর্যাদা দেয় দেখা যাক –

১ নারীর অবস্থান পুরুষের নিচে (Quran 4:34, 2:228)
২ তাদের মর্যাদা পুরুষের অর্ধেক (Quran 2:282, 4:11 Sahih Bukhari 3:48:826, 1:142)
৩ নারী পুরুষের যৌন দাসী (Ibn Hisham-al-Sira al-nabawiyya, Cairo, 1963)
৪ তারা পুরুষের অধিকৃত সম্পত্তি (Sahih Bukhari 5:59:524)
৫ তারা কুকুরের সমতুল্য (Sahih Bukhari 1:9:490, 1:9:493, 1:9:486 Sahih Muslim 4:1032, 4:1034, 4:1038-39 Abu Dawud 2:704)
৬ ভালোবাসার অযোগ্য (Sahih Bukhari 7:62:17 Abu Dawud 41:5119)
৭ তাদের বন্ধক রাখা যায় (Sahih Bukhari 5:59:369)
৮ রজ্বচক্র চলাকালীন তারা অপবিত্র (Quran 2:222 Al-Tabari Vol.1 p.280) হজ্ব করার অযোগ্য (Sahih Bukhari 1:6:302)
৯ তারা নিকৃষ্ট (Sahih Bukhari 9:88:219) বুদ্ধিহীন (Sahih Bukhari 2:24:541) অকৃতজ্ঞ (Sahih Bukhari 1:2:28) খেলার পুতুল (Al-Musanaf Vol.1 Part 2 p.263) হাড়ের মত বক্রতা যুক্ত (Sahih Muslim 8:3466-68 Sahih Bukhari 7:62:113, 7:62:114, 4:55:548)
১০ তারা পুরুষের চাষযোগ্য ক্ষেত্র (Quran 2:223 Abu Dawud 11:2138)
১১ তারা শয়তানের রূপ (Sahih Muslim 8:3240)
১২ তাদের মাঝে নিহিত আছে যাবতীয় খারাপ (Sahih Bukhari 4:52:110, 4:52:111)
১৩ তারা বিশ্বাস ঘাতক (Sahih Bukhari 4:55:547)
১৪ পুরুষের জন্যে ক্ষতিকারক (Sahih Bukhari 7:62:33)
১৫ নেত্রিত্ব দেওয়ার অযোগ্য (Sahih Bukhari 9:88:219)
১৬ প্রার্থনা ভঙ্গ হওয়ার কারন (Sahih Bukhari 1:9:490, 1:9:493)
১৭ স্বামীর যৌন আকাঙ্ক্ষা পূরণ করতে তারা বাধ্য (Sahih Muslim 8:3368)
১৮ পুরুষ কত্রিক ধর্ষনের অনুমোদন (Quran 70:29-30 Abu Dawud 11:2153, 31:4006 Sahih Bukhari 5:59:459 Sahih Bukhari 8:77:600, 8:3432, 8:3371)
১৯ স্বামীর বাধ্য না হলে তাদের প্রার্থনা গৃহিত হবে না (Muslim Scholar Al-Suyuti while commenting on Quran 4:34 Mishkat al-Masabih Book I, Section ‘Duties of husband and wife’, Hadith No. ii, 60)
২০ পুরুষ পারবে চারজন নারীকে বিয়ে করতে (Quran 4:3)
২১ তালাকের অধিকার রয়েছে শুধু পুরুষেরই (Sahih Bukhari 8:4871-82 Mishkat al-Masabih, Book 1, duties of parents, Hadith No. 15)
২২ স্ত্রীর গায়ে হাত তোলার অধিকার রয়েছে পুরুষের (Quran 4:34 Sahih Muslim 4:2127) যার কারনে কোন জবাব চাওয়া হবে না (Abu Dawud 11:2142)
২৩ বেহেস্তে পুরুষের জন্যে রয়েছে বহু (Virgin) রমনী সম্ভগের ব্যাবস্থা (Quran 33:48, 44:51-54, 55:56-58, 78:31-35 Ibn Kathir Tafsir of 55:72 Sahih Muslim 40:6795, 40:6796 Sahih Bukhari 4:54:476 Al-Tirmidhi, Sunan. Vol. IV Chap. 21 Hadith: 2687 Sunan Ibn Maja, Zuhd-Book of Abstinence 39)
২৪ শুধুমাত্র নীরবতাই তাদের বিয়ের সম্মতি (Sahih Bukhari 9:86:100, 9:86:101, 9:85:79)
২৫ স্বামীর অনুমতি ব্যাতিত অন্য পুরুষের কাছাকাছি হওয়া নিষিদ্ধ (Sahih Bukhari 4:52:250)
২৬ তাদের একমাত্র কাজ পুরুষের সেবা করা (Mishkat al-Masabih, Book 1, Duties of Husband and Wife, Hadith Number 62 Mishkat al-Masabih, Book 1, duty towards children Hadith Number 43)
২৭ সর্বদা নিজেদের আবদ্ধ রাখতে হবে পর্দায় (Sahih Bukhari 5:59:462, 6:60:282)
২৮ মৃত্যুর পর তাদের অধিকাংশের জন্যে রয়েছে দোজখের আগুন (Sahih Muslim 36:6596, 36:6597 Sahih Bukhari 7:62:124, 1:2:29, 7:62:124, 2:18:161)

এর পরেও কি মনে হয় ইসলাম আপনাকে (for women) দেয় সামান্যতম সন্মান ?

প্রশ্ন – ২৩

একজন ৫৪ বছর বয়স্ক ব্যাক্তির (মুহম্মদ) সাথে ৯ বছরের বালিকার (আয়েশা) যৌন সম্পর্ককে আপনার কি মনে হয় – নৈতিক নাকি অনৈতিক (Sahih Bukhari 7:62:64, 8:73:151, 5:58:234, 5:58:236, Abu-Dawud 2:2116) ?

প্রশ্ন – ২৪

Pedophilic হওয়ায় একজন সাধারন মানুষকে দোষী এবং ঘৃণ্য বলে গন্য করা হয় ! কিন্তু যখন নবী মুহম্মদ তা করেন (Sahih Bukhari 7:62:64, 8:73:151, 5:58:234, 5:58:236, Abu-Dawud 2:2116) তখন কেন মুসলিমরা কোন না কোন অজুহাত খুঁজে বের করেন তাকে ডিফেন্ড করার জন্যে ?

প্রশ্ন – ২৫

ইসলাম কেন দাসপ্রথার মত একটা অমানবিক বিষয় কে অনুমোদন দেয় ??

ইসলামের দাসপ্রথা অনুমোদন – Sahih Bukhari 1:2:29, 3:44:671, 2:24:542, 2:24:543, 2:25:580, 3:36:483 Abu Dawud 11:2126
ইসলাম কতৃক যুদ্ধবন্দিনি ও দাসি ধর্ষনের অনুমোদন – Sahih Muslim 8:3432, 8:3383

দাসপ্রথার প্রতি মুহম্মদের সমর্থন – Sahih Bukhari 1:8:439, 1:8:440, 3:34:307, 3:34:412, 3:36:481
মুহম্মদ এর নিজস্ব দাস-দাসি – Ibn Qayyim al-Jawziyya, Zad al-Ma’ad, Part 1, pp. 114-116, 160
মুহম্মদ এর দাস-দাসি বিষয়ক হাদিস – Sahih Bukhari 3:43:648, 3:47:765, 4:53:344, 5:59:541, 6:60:274, 6:60:281, 6:60:435, 7:62:119, 7:64:274, 7:65:346, 7:65:344, 8:73:182, 8:73:221, 9:91:368
মুহম্মদ কতৃক দাস কেনা-বেচার শুরু – Sahih Bukhari 3:49:860, 3:50:885, 9:83:41 Ishaq:693
মুহম্মদ কতৃক দাস বানিজ্য – Sahih Muslim 10:3901, 3:41:598, 3:34:351, 8:79:707, 9:85:80, 3:41:588, 3:46:711, 9:89:296
মুহম্মদ কতৃক দাস-মুক্তি নিরুৎসাহিত করা – Sahih Bukhari 3:47:765
মুহম্মদ কতৃক দাসদের সাজা প্রদানের নির্দেশ – Abu Dawud 38:4458

আল্লাহ কতৃক দাস প্রথার অনুমোদন – Quran 2:178, 16:71, 16:75, 33:50

প্রশ্ন – ২৬

মুসলিমদের পুর্ণাঙ্গ জীবন বিধান কুরান দাসপ্রথাকে মেনে নেয় (Quran 2:178, 16:71, 16:75, 33:50) আবার দাসমুক্তির কথাও বলে (Quran 90:13) ! কিন্তু এমন একটা অমানবিক বিষয়কে কেন সম্পূর্ণরূপে নিষেধ করে দেয়নি ?

প্রশ্ন – ২৭

কুরান এবং হাদিস আমাদের অনেক কিছুই শেখায় যা বর্তমান সময়ের প্রেক্ষিতে অনৈতিক বলে বিবেচিত ! যেমন, সমকামিদের প্রতি ঘৃনা 1 মিথ্যা বলা ও প্রতারণা 2 শিশুকামিতা ও বাল্যবিবাহ 3 বহু বিবাহ 4 ধর্মীয় বৈষম্য 5 সন্ত্রাসবাদ 6 নারী নির্যাতন 7 দাসপ্রথা 8 ধর্ষন 9 ! কোন ঈশ্বর প্রেরিত ধর্মে কি এসব বিষয় থাকবে বলে আপনার মনে হয় ?

1 (Quran 4:16, 7:80, 26:165, 27:54, 29:28 Sahih Bukhari 7:72:774 Abu Dawud 38:4447, 38:4448, 32:4087 Al-Muwatta 41 41.111 Tirmidhi 1:152 The punishment for homosexuality, Islam Q&A, Fatwa No. 38622)

2 (Sahih Muslim 32:6303, 15:4044, 15:4052, 15:4053 Sahih Bukhari 9:86:100, 9:86:98, 9:86:101, 4:52:267, 4:52:268, 4:52:269, 7:67:427, 9:89:260, 5:59:369 Abu Dawud 14:2629, 14:2631 Quran 3:28 Tafsir Ibn Kathir)

3 (Quran 65:4 http://www.islamicstudies.info/tafheem.php?sura=65#s65_n13, Sahih Bukhari 7:62:63, Al-Muwatta 29 33.108)

4 (Quran 4:3 Sahih Bukhari 1:5:268)

5 (Quran 1:7, 2:9, 3:28, 3:85, 3:118, 4:144, 5:51, 5:65, 5:80, 9:23, 60:01 Sahih Muslim 41:6985, 41:6981-82, 26:5389 Sahih Bukhari 4:56:791)

6 (Quran 47:4, 9:5, 8:12, 8:60, 59:5, 9:29, 2:193, 2:216-17, 4:95 Sahih Bukhari 4:52:220, 4:1062, 4:1063, 1:8:387, 1:2:24, 5:59:435, 9:84:59, 2:23:483, 4:52:280, 5:58:148, 8:74:278, 1:8:367, 4:53:373 Sahih Muslim 19:4324, 2:4696, 19:4368, 19:4369, 8:3432 Abu Dawud 38:4390, 14:2665 Al-Muwatta 21 21.1.4b)

7 (Quran 4:34, 38:41-44, 4:15, 70:22-30, 23:5-6 Sahih Bukhari 8:82:828, 1:7:330, 6:60:132, 4:2127, 7:6:715, 4:52:256, 8:82:822-823 Sahih Muslim 9:3526-3527, 3:684, 19:4322-4323 Abu Dawud 11:2139-2142, 41:5251 Al-Muwatta 30:2:13 Al-Tabari, Vol-9 page 112-113 Ibn Ishaq: page 496)

8 (Quran 2:178, 16:71, 16:75, 33:50 Sahih Bukhari 1:2:29, 3:44:671, 2:24:542, 2:24:543, 2:25:580, 3:36:483 Abu Dawud 11:2126)

9 (Quran 4:3, 4:24, 23:5-6, 70:22-30 Sahih Bukhari 5:59:459, 8:77:600, 3:34:432 Sahih Muslim 8:3432, 8:3433, 8:3371 Abu Dawud 11:2150, 11:2153, 31:4006)

প্রশ্ন – ২৮

ইসলাম ধর্ম ত্যাগ কি এতোটাই খারাপ কাজ বলে আপনার মনে হয় যার সাজা হতে হবে মৃত্যুদন্ড (Quran 4:89, 9:12 Sahih Bukhari 4:52:259-60, 9:84:58, 9:89:271, 8:82:804, 8:82:805) ?

প্রশ্ন – ২৯

ইসলাম মানুষকে শেখায় চুক্তি / প্রতিজ্ঞা ভঙ্গ করতে (Sahih Muslim 15:4053, 15:4057), চুরি ও ব্যাভিচারে লিপ্ত হতে (Sahih Bukhari 7:72:717) ! এগুলো কি আপনার দৃষ্টিতে নৈতিক বলে মনে হয় ?

প্রশ্ন – ৩০

ইসলামে কেন দত্তক (adoption) নেওয়া মত এমন একটা মানবিক বিষয় কে নিরুৎসাহিত করা হল (Quran 33:4) ? এর মধ্যে কি এমন খারাপ নিহিত ছিল যে তা বাতিল করতে হবে ?

প্রশ্ন – ৩১

যারা homosexual ইসলাম কেন তাদের কে হত্যা করতে উদ্বুদ্ধ করছে (Abu Dawud 38:4447, 4448) যেখানে ওই ব্যক্তির homosexuality -র জন্যে দায়ী স্বয়ং আল্লাহ ??

প্রশ্ন – ৩২

যারা প্রার্থনার উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের না হবে তাদেরকে সেই ঘরেই পুড়িয়ে মারার নির্দেশ দিয়েছেন নবী মুহম্মদ (Sahih Bukhari 1:11:626) ! এটা কি কোন শান্তির ধর্মের নমুনা হতে পারে বলে আপনার মনে হয় ?

প্রশ্ন – ৩৩

শুধুমাত্র চুরি করার জন্যে আল্লাহ তার সৃষ্ট বান্দার (নারী /পুরুষ) হাত কেটে ফেলার নির্দেশ দেন (Quran 5:38) ! এটা কি আপনার কাছে কোন ভাবেই মানবিক বলে মনে হয় ?

প্রশ্ন – ৩৪

ইসলামে তার সাথেই সম্পর্ক ত্যাগ করতে বলে (এমন কি নিজের জন্মদাতা হলেও) যে অবিশ্বাসী হয়ে যায় (Quran 9:23, 3:28, 9:113-114) ! আপনি কি এই নির্দেশের সাথে সম্মতি জানান ?

প্রশ্ন – ৩৫

কেউ মদ পান করলে তার জন্যে নির্ধারিত সাজা হচ্ছে চাবুকের আঘাত ! এরপরেও যদি সে মদ পান করে তবে তাকে সরাসরি হত্যা করার নির্দেশ দিয়েছেন নবী মুহম্মদ (Abu Dawud 38:4469 , 38:4467, 38:4470) ! একজন সৃষ্টিকর্তার নবী হয়ে মুহম্মদের এধরনের বিচার কি আপনি যথোপযুক্ত বলে মনে করেন ?

প্রশ্ন – ৩৬

আল্লাহর কাছে প্রার্থনা না করার অপরাধে শিশু নির্যাতনের নির্দেশ দেয় ইসলাম (Abu Dawud 2:494, 2:495 , 2:497) ! আপনার দৃষ্টিতেও কি এটাকে উচিত বলে মনে হয় ?

প্রশ্ন – ৩৭

একজন সৃষ্টিকর্তার পক্ষে কি শোভা পায় কোন যুবসমাজকে লুটের (গনিমতের) মাল (Quran 48:20, 8:41) আর বিধর্মী স্ত্রী-কন্যাদের সম্ভ্রম ভোগের (Quran 4:24, 33:50) সুবিধা দিয়ে উজ্জিবিত করা ?
প্রশ্ন – ৩৮

কুরানের আয়াত (Quran 2:230) অনুসারে, একজন স্বামী তার স্ত্রীকে তালাক দেয়ার পর সেই স্ত্রী অন্য কোন পুরুষের সাথে সংসার করা অবস্থায় সেই পুরুষ মারা গেলে বা তালাক দিলে সেই স্ত্রী প্রথম স্বামীর জন্য হালাল হয়ে যায় ! তবে দ্বিতীয় স্বামী তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীর সাথে যৌনসম্পর্ক না করে তালাক দিলে বা মারা গেলে সেই স্ত্রী প্রথম স্বামীর জন্য হালাল হবে না (Sahih Bukhari 8:4878, 8:4882 Malik’s Muwatta 28:19) ! এমন একটা অশোভনীয়/ দৃষ্টিকটূ বিষয় কি কোনভাবেই ধর্মের অন্তর্গত হতে পারে ?

প্রশ্ন – ৩৯

বিবাহিত ব্যক্তির জিনা বা ব্যাভিচারের শাস্তি হচ্ছে পাথর মেরে হত্যা (Sahih Bukhari 8:4887-4888, 10:6346-6353) ! অবিবাহিত যুবক-যুবতীর (পারস্পরিক সম্মতিতে হওয়া সত্বেও) যৌনসম্পর্কের শাস্তি এক’শ চাবুকের আঘাত এবং এক বছরের জন্যে নির্বাসন (Sahih Bukhari 10:6361-6366) ! কোন অমুসলিম কে হত্যার জন্যে কোন মুসলিমের প্রান নেওয়া যাবে না (Sahih Bukhari 10:6438) ! এগুলো কি মধ্যযুগিয় বর্বরতার সমতুল্য নয় ?

প্রশ্ন – ৪০

সৌদি আরবে ৮ বাংলাদেশি শ্রমিকের প্রকাশ্যে শিরচ্ছেদ করার মত মধ্যযুগিয় বর্বরতাকে কেন আপনার চোখে অমানবিক বোধ হয় যখন সেটার নির্দেশ এসেছে আপনার কথিত আল্লাহর কাছ থেকে (Quran 5:45) ?

প্রশ্ন – ৪১

মানুষের জীবন বিধান কুরানে ব্যাভিচারের সাজা থাকলেও ‘ধর্ষন’ -এর জন্যে কোন ধরনের সাজার নির্দেশ নেই (বরং আরো উৎসাহিত করে), কেন ?

প্রশ্ন – ৪২

বেহেস্ত এ পুরুষের যাবতিয় সেবার জন্যে নিয়োজিত থাকবে চির কিশোরগন (Quran 52:24, 56:17, 76:19) ! কেন কিশোরেরা ? এর মাধ্যমে কি সেখানে পুরুষ-কিশোর যৌনতা যে বৈধ, তারই ইঙ্গিত দেওয়া হচ্ছে না ?

প্রশ্ন – ৪৩

ইসলামি সাজা প্রসঙ্গে আপনি জ্ঞাত আছেন কি ? দেখুন তো নিচের বিষয়গুলো আপনার মনমত হয়েছে কিনা ?

১ কেউ চুরি করলেই তার হাত কেটে ফেলা (Sahih Muslim 17:4183, 17:4185, 17:4190 Sahih Bukhari 5:59:597)
২ বিবাহ বহির্ভুত সম্পর্কের সাজা পাথর মেরে হত্যা (Sahih Muslim 17:4196, 17:4209, 17:4214)
৩ বিবাহপূর্ব যৌন সম্পর্কের সাজা সবার সামনে ১০০ চাবুকাঘাত (Quran 24:2)
৪ মদ্যপানের সাজা প্রথমে চাবুকাঘাত এবং ৪র্থবারের ক্ষেত্রে হত্যা (Abu Dawud 38:4469 Sahih Muslim 17:4226)
৫ ধর্ম ত্যাগের সাজা হবে মৃত্যু দন্ড (Sahih Bukhari 9:84:57, 4:52:260, 9:84:64)
৬ আল্লাহর প্রার্থনায় শরিক না হলে তাকে পুড়িয়ে মারা (Sahih Bukhari 1:11:626)
৭ সোডোমির (গুহ্যদ্বার সেক্স) সাজা পাথর মেরে হত্যা (Abu Dawud 38:4447, 38:4448)
৮ মুহম্মদ কে অপমান করার সাজা মৃত্যু দন্ড (Abu Dawud 38:4348, 38:4349)
৯ এছাড়া অবিশ্বাসি হলেই দোজখের আগুন (Quran 4:56, 40:70-72, 3:131, 14:49-50, 44:43-46 Sahih Bukhari 4:54:489)

প্রশ্ন – ৪৪

অপরাধীকে পাথর মেরে হত্যার মত মধ্যযুগীয় এই বর্বরতাকে চালিয়ে যাওয়ার অনুমোদন দেয় ইসলাম ! এ ব্যাপারে আপনার অভিমতও কি একই ?

Quran 11:82, 7:84, 26:173 Sahih Bukhari 2:23:413, 3:34:421, 3:49:860, 3:50:885, 4:56:829, 6:60:79, 7:63:19, 7:63:196, 7:63:230, 8:78:629, 8:82:803, 8:82:805-806, 8:82:809-810, 8:82:813, 8:82:816, 8:82:842, 9:89:303, 9:92:432, 9:93:633 Sahih Muslim 17:4191, 17:4194, 17:4196, 17:4198, 17:4199, 17:4201.1, 17:4202, 17:4205, 17:4207, 17:4209, 17:4211-4212, 17:4216, 20:4483 Abu Dawud 38:4421, 38:4424, 38:4426, 38:4429, 38:4433 Al-Muwatta 28 28.1126, 36 36.2120, 41 41.11, 41 41.14, 41 41.15, 41 41.16, 41 41.18, 41 41.110, 41 41.620

প্রশ্ন-৪৫

আপনি কি কখনো ভেবে দেখেছেন যে একজন সৃষ্টিকর্তা কখনোই তার বান্দাদের কে যুদ্ধের মত ভয়াবহ কিছুর দিকে উস্কে দিতে পারেন না (Quran 2:216) ?

ইসলামি বিজ্ঞান : কুরান ও হাদিস

প্রশ্ন – ১

কুরানের একটা সিঙ্গেল আয়াতও খুঁজে পাওয়া যায় না যা ইঙ্গিত দেয় যে পৃথিবী গোলাকার (স্ফেরিক্যাল) বরং এটা নির্দেশ করে যে পৃথিবী সমতল (like Carpet) (Quran 15:19, 20:53, 43:10, 50:7, 51:48, 71:19, 78:6, 79:30, 88:20, 91:6, 2:22, 18:86, 18:47) ! তাহলে আপনি কিভাবে দাবি করেন কুরান সকল বিজ্ঞানের উৎস ?

প্রশ্ন – ২

একজন মুসলিমের জন্যে রোজা ফরজ করা হয়েছে (fourth Pillar of Islam) (Quran 2:183, 2:184, 2:187 Sahih Bukhari 1:2:7, 6:60:40 Sahih Muslim 1:9) যা সূর্যের উদয়-অস্তের সাথে সম্পর্কিত (24 hour cycle) ! কিন্তু আল্লাহ উত্তর এবং দক্ষিন মেরুর বাসিন্দাদের ব্যাপারে কিছু ভেবে দেখেননি ! আপনার কি মনে হয় না যে এটা তখনই সম্ভব যখন তিনি মনে করবেন পৃথিবীর সর্বত্র একই সময়ে দিন-রাত্রি ঘটে (অর্থাৎ পৃথিবি সমতল) ?

লিংক

প্রশ্ন – ৩

কুরান নির্দেশ দেয়, প্রার্থনার সময় একজন মুসলিম যেখানেই থাকুক না কেন তাকে কিবলার (কাবা) দিকে মুখ ফেরাতে হবে (Quran 2:144) । কিন্তু এটা একমাত্র সমতল পৃথিবির মডেলেই সম্ভব, কেননা পৃথিবী গোলাকার হওয়ায় প্রার্থনার সময় তার মুখ থাকবে আকাশের দিকে । যদি তিনি মক্কার বিপরীত পৃষ্ঠে অবস্থান করেন তাহলে কিবলা থাকবে পৃথিবীর কেন্দ্র দিয়ে সোজা নিজের দিকে (Click the link) । এর থেকে কি এটাই প্রতীয়মান হয় না যে কুরান মনে করে পৃথিবী সমতল ?
লিংক

hhhh

প্রশ্ন – ৪

কুরান বলে পৃথিবীর গঠন বিছানা বা কার্পেট এর মত (Quran 15:19, 20:53, 43:10, 50:7, 51:48, 71:1978:6, 79:30, 88:20 and 91:6) ! কিন্তু কেউ কখনো স্ফেরিক্যাল কার্পেট দেখেনি ! এখন কথা হল কেন আল্লাহ পৃথিবীর গঠনের জন্যে “Kurah” (Arabic for spherical) শব্দ খানা ব্যবহার করলেন না ?

প্রশ্ন – ৫

কুরান (Quran 36:38-40, 13:2, 18:86, 18:90) এবং হাদিস (Sahih Bukhari 4:54:421) এর বিবৃতি অনুযায়ী এটাই প্রতিয়মান হয় যে, সূর্য একটি সমতল পৃথিবীর চারিদিকে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত আবর্তন করে এবং রাতের বেলা আল্লার আরশের নিচে অবস্থান করে ! এটাকে কি আপনার বিজ্ঞানের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ বলে মনে হয় ?

প্রশ্ন – ৬

কুরান হাদিসের বিবৃতি অনুযায়ী আমাদের মহাবিশ্ব নিচের ছবির (click the link) অনুরূপ (Quran 43:10, 50:7, 16:15, 70:6-7, 16:15, 31:10, 65:12, 2:29, 41:12, 67:3, 71:15, 21:32, 34:9, 13:2, 11:7, 37:6-7, 21:33, 36:38-40, 18:86, 18:90, 39:5, 67:5, 57:4, 71:16, 2:255, 40:15 Sahih Bukhari 4:54:421, 6:60:326-327, 4:54:414 Abu Dawud 2:475) ! এটাকে কি আপনার কোনভাবেই বিজ্ঞান সম্মত বলে মনে হয় ?

cv gjik

প্রশ্ন – ৭

‘আকাশ’ কি কঠিন পদার্থের তৈরি কোন কিছু (Quran 21:32, 34:9, 13:2, 6:35) ?

প্রশ্ন – ৮

কুরানে বর্নিত আকাশ : আল্লাহ আকাশকে করেছেন ছাদ (Quran 2:22) দৃশ্যমান স্তম্ভ ব্যাতিত (Quran 13:2) যাতে কোন ছিদ্র নেই (Quran 50:6) নেই কোন ফাটল (Quran 67:3), যা স্থির রাখা হয়েছে যেন টলে না যায় (Quran 35:41) বা ভূপৃষ্টে পতিত না হয় (Quran 22:65), যা একসময় গুটিয়ে নেওয়া হবে (Quran 21:104 ) ! তিনি চাইলেই আকাশ কে করবেন খন্ড বিখন্ড (Quran 17:92), যা মানুষের ওপর পতিত করবেন (Quran 34:9) ! কেয়ামতের দিন আকাশ হবে ছিদ্র যুক্ত (Quran 77:9) সৃষ্টি হবে বহু দরজা (Quran 78:19) ! এর পরেও কি আপনার মনে হয় কুরানের আয়াতের সাথে বিজ্ঞানের কোন সম্পৃক্ততা রয়েছে ?

প্রশ্ন – ৯

আল্লাহ কি আসলেই পৃথিবিকে এমন ভাবে স্থির রেখেছেন যাতে তা টলে না যায় (Quran 35:41, 40:64) ?

প্রশ্ন – ১০

কুরানের কোন আয়াতই নির্দেশ করে না পৃথিবি ঘুর্নায়মান ! বরং সর্বত্র রয়েছে সূর্য আর চন্দ্রের নিয়ম করে আবর্তনের কথা (Quran 13:2, 31:29, 36:38-40, 21:33, 16:12, 14:33, 39:5, 35:13, 55:5, 2:258, 18:86-90) ! এটা কি এই প্রমান করে না যে কুরান মনে করে পৃথিবি স্থির (যাকে কেন্দ্র করে সূর্য-চন্দ্র ঘুরছে) ?

প্রশ্ন – ১১

সূর্য আবর্তিত হয় তার জন্যে নির্ধারিত সময় পর্যন্ত (অর্থাৎ সন্ধ্যা পর্যন্ত), অতঃপর সে থামে বিশ্রামের জন্যে এবং পরের দিন পুনরায় উদিত হয় পূর্বের জায়গা থেকে (Quran 13:2, 21:33, 31:29, 36:38-40, 18:86-90 Sahih Muslim 1:297 Sahih Bukhari 4:54:421, 9:93:520) ! এর থেকে কি এটাই বোঝা যায়না যে পৃথিবি নয় বরং সূর্যই ঘুরছে তার চারিদিকে ?

প্রশ্ন – ১২

মহাকাশে যত তারা (Stars) দেখা যায় তা রয়েছে শুধুমাত্র সৌন্দর্য বর্ধনের জন্যে আর কখনো কখনো তাদের (উল্কা পিন্ড) ব্যবহার করা হয় শয়তান তাড়ানোর উদ্দেশ্যে (Quran 67:5, 37:10, 72:9) ! এধরনের কুসংস্কার কি কোনভাবেই বিজ্ঞানের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ বলে বোধ হয় ?

প্রশ্ন – ১৩

ডাইনোসরেরা এই পৃথিবীতে রাজত্ব করে গেছে ১৩৫ মিলিওন বছর, যাদের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া গেছে মাটির তলদেশে ফসিল আকারে ! এতো বড়ো একটা প্রাণীর ব্যাপারে কুরান বা হাদিসের কোথাও বলা নেই কেন ? এটা কি আল্লাহ বা মুহম্মদের অজ্ঞতা নয় ?
লিংক

প্রশ্ন – ১৪

কুরআন মতে (Quran 13:3, 36:36, 43:12, 51:49) আল্লাহ পৃথিবীতে সৃষ্ট সকল কিছু তৈরি করেছেন জোড়ায় জোড়ায় (male and female), তিনি কি নিচে উল্লেখিত জীবদের ব্যাপার কিছুই জানতে না ?

1. Asexual organisms (e.g. bacteria, protozoans, and unicellular algae and fungi).
2. Hermaphrodites (e.g. sponges, snails, slug-like sea hare, and some kinds of deep-sea arrow worms).

প্রশ্ন – ১৫

সৃষ্টিতত্ব মতে ‘আদম ও হাওয়া’ থেকে সমগ্র মানব জাতির উদ্ভব ! কিন্তু বিজ্ঞান বলে মানুষ সহ সকল প্রাণি এসেছে বিবর্তনের মাধ্যমে । বিবর্তনের বাস্তব প্রমাণ থাকা সত্বেও কেন মুসলিমরা আদম-হাওয়ার কল্প কাহিনীকে বিশ্বাস করে যাচ্ছে ?
লিংক

প্রশ্ন – ১৬

মানুষের শুক্রানু উৎপন্ন হয় শূক্রাশয় (Testes) থেকে যা অন্ডথলির (Scrotum) ভেতর অবস্থিত । কিন্তু কুরান দাবী করে তা উৎপন্ন হয় মেরুদন্ড (backbone) এবং পাজরের হাড়ের (ribs) মধ্যস্থল থেকে (Quran 86:5-7) ! এধরনের তথ্য কি আপনার কাছে বিজ্ঞানের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ বলে মনে হয় ?

প্রশ্ন – ১৭

কুরান কেন দাবী করে আল্লাহ পৃথিবীর ভুমিকে ক্রমশ চতুর্দিক থেকে সংকুচিত বা হ্রাস করে আনছেন যা বিজ্ঞানের তথ্যের সাথে সাংঘর্ষিক (Quran 13:41, 21:44) ?

In the geological record, there are indications that the relative proportion of land and ocean, and the average depth of the world’s oceans, has remained relatively constant for at least the last one billion years of the Earth’s history. This is inferred from the fact that the maximum thickness of undisturbed marine sedimentary deposits has remained essentially the same, around 50,000′ [~15 km], for that span of time.

Changing Paleoclimates and Mass Extinctions, The Climatic Models Donald L. Blanchard.

প্রশ্ন – ১৮

মুসলিমরা কোন ভিত্তিতে দাবি করে Quran 65:12 দ্বারা সৌর মন্ডলে বিদ্যমান সাত টা গ্রহের নির্দেশ পাওয়া যায় যেখানে অ্যাস্ট্রোনমারদের মতে গ্রহের সংখ্যা তের (eight ordinary planets and five dwarf planets) ?

প্রশ্ন – ১৯

আল্লাহ সাত আসমান তৈরি করেছেন যার মধ্যবর্তি আসমানে রেখেছেন চাঁদ কে (আলোক রূপে) (Quran 71:15-16) আর নক্ষত্রসমুহকে (Stars) নিকটবর্তি বা নিন্ম আকাশে (Quran 37:6) ! এটা কি বিজ্ঞানের সাথে কোন ভাবেই সঙ্গতিপূর্ণ ?

প্রশ্ন – ২০

কুরানের (Quran 76:13) ভাষ্য অনুযায়ী রাত্রিকালীন (মরু অঞ্চলের) শীতের তীব্রতা চাঁদের প্রভাবের কারনে ঘটে থাকে ! কিন্তু আমরা জানি সূর্য থেকে পৃথিবিতে আগত তাপ রাতের বেলা সহজেই মরুর বায়ু ভেদ করে বের হয়ে যায় বলে তীব্র শীত অনূভুত হয় ! কুরান যদি আল্লাহর বানীই হয়ে থাকে তবে এতে এধরনের ভুল তথ্য থাকবে কেন ?

প্রশ্ন – ২১

কুরান জানায়, আমাদের মহাবিশ্ব সাত স্তর বিশিষ্ট (Quran 71:15) ! কিন্তু প্রকৃত পক্ষে এই মহাবিশ্ব ট্রিলিয়ন সংখ্যক ছায়াপথ আর সাথে বিলিয়ন বিলিয়ন নক্ষত্র নিয়ে গঠিত, যেখানে সপ্তস্তর বলে কিছু নেই ! তবে কেন এ ধরনের অসত্য তথ্য ?

http://en.wikipedia.org/wiki/Galaxy

অনেকেই দাবি করেন আয়াতে উল্লেখিত সপ্তস্তর বলতে আকাশের বায়ু মন্ডলিয় স্তর বোঝানো হয়েছে, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে পৃথিবীর উপরিভাগে বায়ুস্তর রয়েছে পাঁচটা http://en.wikipedia.org/wiki/Atmosphere_of_Earth#Principal_layers

প্রশ্ন – ২২

কুরান অনুসারে, সূর্য এবং নক্ষত্র (Stars) সম্পূর্ণ দুটো ভিন্ন জিনিস (Quran 7:54) ! প্রকৃত সত্যটা কি তাই ?

প্রশ্ন – ২৩

কুরানের আয়াত 21:30, 41:9-11 এবং 2:29 থেকে বোঝা যায় যে পুরো ইউনিভার্স সৃষ্টির আগেই পৃথিবী তৈরি করা হয়েছে বা বর্তমান ছিল ! কিন্তু প্রকৃত পক্ষে বিগব্যাং সংগঠিত হওয়ার মুহুর্তে কোন ম্যাটারেরই অস্তিত্ব ছিলো না, আর পৃথিবী ও তৈরি হয়েছে বহু পড়ে ! আল্লাহ কেন এমন ভুল তথ্য সরবরাহ করলেন ?

http://en.wikipedia.org/wiki/BigBang

প্রশ্ন – ২৪

কুরান অনুসারে, আল্লাহ এই মহাবিশ্ব তৈরি করেছেন কোন ধরনের অসঙ্গতি (বা ফাটল) ব্যতীত (Quran 67:3) ! তিনি কি ব্লাক হোলের (Black Hole) ব্যাপারে কিছুই জানতেন না ?

The evidence of Black Hole indicates certain degree of instability in the galaxy. Black holes absorb stars and even galaxies in regions of space where from which no entity, including light, can escape.

http://en.wikipedia.org/wiki/Black_hole

প্রশ্ন – ২৫

বজ্রপাত (একজন ফেরেস্তা যে আল্লাহর প্রশংসা করে সভয়ে) ঘটার উদ্দেশ্য কি মানুষকে ভয় দেখানো বা কাউকে আঘাত করা (Quran 13:12-13 see Tafsir Ibn Abbas) ?

প্রশ্ন – ২৬

একমাত্র আল্লাহ জানেন গর্ভের সন্তান ছেলে হবে না মেয়ে হবে (Quran 31:34), যা অন্য কারো পক্ষে জানা সম্ভব নয় (Sahih Bukhari 2:17:149) ! তিনি কি জানতেন না ভবিষ্যতে আল্ট্রাসনোগ্রাফি আবিষ্কৃত হবে ?

প্রশ্ন – ২৭

কুরান দাবি করে, ছায়া পড়ে সূর্যের আবর্তনের কারনে (পৃথিবীর নয়) (Quran 25:45) ! আসলেই কি তাই ?

প্রশ্ন – ২৮

আসমান কি শক্ত কিছুর তৈরি যে তা স্তম্ভ বা পিলার (যা মানুষের কাছে অদৃশ্য) দিয়ে খাড়া রাখতে হবে (Quran 13:2) ? (This originated from the ancient Greek myth)

প্রশ্ন – ২৯

আল্লাহ যদি পৃথিবী এবং আকাশমণ্ডলী ছয় দিনে সৃষ্টি করে থাকেন (Quran 50:38) [ যা মানুষের হিসেবে ১০০০ বছর (Quran 22:47, 32:5) অথবা ৫০০০০ বছর (Quran 70:4) ], তবে বিজ্ঞান কেন বলে বিগব্যাং সংগঠিত হওয়ার পর পৃথিবী তৈরি হতে প্রায় কয়েক বিলিয়ন বছর লেগেছে ?

প্রশ্ন – ৩০

আপনার কি মনে হয় পাশাপাশি অবস্থিত সমুদ্রের মাঝে আসলেই কোন অন্তরাল রয়েছে যা তারা অতিক্রম করতে পারে না (Quran 55:19-20) ?

প্রশ্ন – ৩১

পর্বতরাজি কি আসলেই ভুমিকম্প প্রতিরোধ করে বা পৃথিবিকে কম্পন থেকে রক্ষা করে (Quran 16:15 21:31 31:10 79:32-33) ? তবে বিজ্ঞান কেন ভিন্ন কথা বলে (They could form a barrier to a giant earthquake — and they could also easily trigger a giant earthquake) ?

http://www.ouramazingplanet.com/2464-diving-mountains-stop-start-earthquakes-subduction-seamounts.html
http://earthquake.usgs.gov/earthquakes/recenteqsww/

প্রশ্ন – ৩২

কুরান অনুসারে, আল্লাহ পৃথিবীর ওপর পর্বতরাজি কে স্থাপন করেছেন বা পেরেকের মত গুজে দিয়েছেন (Quran 16:15, 15:19, 41:10, 50:7, 78:6-7) ! কিন্তু বিজ্ঞান কেন বলে পর্বত তৈরি হয় lithospheric plate এর গতির ফলে (either orogenic movement or epeirogenic movement) ?

http://en.wikipedia.org/wiki/Mountain_building

প্রশ্ন – ৩৩

ভুমিকম্প আর প্রবল ঘূর্ণিঝড় হওয়ার মূল কারন কি কাফের বা অবিশ্বাসিদের ভয়ভীতি প্রদর্শন বা তাদের নিধন করা (Quran 16:45, 29:37, 17:68) ? তবে মুসলিমদেশ গুলোতে এতো ভুমিকম্প সংগঠিত হয় কেন ?

http://www.ageofislam.com/content/view/5/5/

প্রশ্ন – ৩৪

পুর্বে ধারনা করা হত পৃথিবীর সব কিছু চারটি উপাদান থেকে তৈরি – মাটি, পানি, বায়ু ও আগুন ! কিন্তু এখন আমরা জানি আগুন কোন উপাদান/পদার্থ নয় বরং একধরনের রিঅ্যাকশনারি কেমিক্যাল প্রসেস ! তাহলে জ্বিন (Jinn) কিভাবে আগুনের তৈরি হতে পারে (Quran 55:15) ?

প্রশ্ন – ৩৫

গাভির দুধ কি দেহাভ্যন্তরে অবস্থিত রক্ত এবং গোবর থেকে নিঃসৃত হয় (Quran 16:66) ?

প্রশ্ন – ৩৬

কুরানে বার বার উল্লেখ করা হয়েছে পুরুষের থেকে নির্গত বীর্য থেকে সন্তানের জন্ম হয় (Quran 86:5-6, 76:2, 23:13-14, 53:45-46, 80:19, 2:223) ! কিন্তু স্ত্রীর ডিম্বানুর যে ভুমিকা সে ব্যাপারে কিছুই বলা হয়নি ! এটা কি মুহম্মদের অজ্ঞতা ছাড়া অন্য কিছু হতে পারে ?

The term ‘nutfatun amshaajin’ could just as easily refer to the sperm-menstrual blood union of Aristotle and the ancient Indian embryologists, or the two sperm hypothesis of Hippocrates and Galen, or even the readily observed mingling of semen and vaginal discharge during sexual intercourse. In other words, the fact the Quran does not explicitly state that ‘nutfatun amshaajin’ contains the ovum, together with the existence of other possible explanations, means that it is illogical to assume the former and not the latter.

প্রশ্ন – ৩৭

মাতৃগর্ভে ভ্রূণ অবস্থা থেকে পূর্নাঙ্গ মানবদেহ গঠনে কোন ‘রক্ত পিন্ড বা জমাট রক্ত’ (Blood clot) জাতিয় পর্যায় বা অবস্থা নেই (Quran 96:2) ! তাহলে কুরান কেন এমন দাবি করে ?

প্রশ্ন – ৩৮

কুরানের আয়াত 40:67 অনুসারে, মানব ভ্রুণ মাতৃগর্ভে ‘রক্ত পিন্ড’ (alaqah stage) অবস্থা থেকে সরাসরি শিশু তে রুপান্তরিত করা হয় (এবং গর্ভাশয়ের বাইরে বেরিয়ে আসে) ! যা বিজ্ঞান এবং কুরানের অন্য আয়াত 23:12-14 ‘র সাথে সাংঘর্ষিক ! কেন এ ধরনের ভুলের ছড়াছড়ি ?

প্রশ্ন – ৩৯

মুসলিমরা দাবি করে কুরানের আয়াত 23:12-14 দ্বারা মানুষের এম্ব্রাইয়োলজি (অর্থাৎ ভ্রুণ তত্ব) ব্যাখ্যা করা যায়, যদিও ভ্রুণতত্বের প্রথম ধাপ (১. ধুলা বা কাদা মাটি থেকে তৈরি) এর কোন ব্যাখ্যা তাদের কাছে নেই । এটা কি জো্রপূর্বক কুরান কে বিজ্ঞানময় করার অপচেষ্টা নয় ?

প্রশ্ন – ৪০

কুরানের আয়াত 23:12-14 অনুসারে, মানব ভ্রুণে প্রথমে হাড় তৈরি হয়, পরে তাকে মাংস দ্বারা ঢেকে দেওয়া হয় ! কিন্তু প্রকৃত পক্ষে আগে মাংস (Muscles) তৈরি শুরু হয় (during week 5), এরপর তার মাঝে তরুনাস্থির (cartilage) গঠন হতে থাকে (during week 6) যা পরবর্তিতে হাড়ে (Bones) রুপান্তরিত হয় (অর্থাৎ হাড়কে মাংস দিয়ে ঢেকে দেওয়া বলতে কিছু নেই) ! এর মানে কি এই নয় যে কুরান নিরক্ষর মুহম্মদের নিজস্ব অনুমান ?

প্রশ্ন – ৪১

শিলা (Hail) কি আকাশে অবস্থিত কোন শিলাস্তুপ (sky mountains/ heaven mountains) থেকে নিক্ষিপ্ত হয় (Quran 24:43) ?

Hail forms in cumulonimbus clouds when supercooled water droplets freeze on contact with condensation nuclei. http://en.wikipedia.org/wiki/Hail#Formation

প্রশ্ন – ৪২

যুলকারনাইন সূর্যের অস্তগমন (অর্থাৎ সর্বপশ্চিম) স্থলে পৌছান যেখানে সুর্য এক পঙ্কিল জলাশয়ে অস্ত যায় (Quran 18:86), এরপর তিনি অন্য এক পথ ধরেন এবং সূর্যের উদয় (অর্থাৎ সর্বপূর্ব) স্থলে পৌছান যা এমন এক সম্প্রদায়ের ওপর উদিত হয় যারা সূর্যের কাছাকাছি হওয়ায় তাপ থেকে কোন আড়াল পায়না (Quran 18:89-90) ! এর থেকেই কি বোঝা যায় না যে পৃথিবী সমতল, যার দুই সর্বশেষ প্রান্ত রয়েছে ?

প্রশ্ন – ৪৩

মানুষ কি চিন্তা করে হৃদয় দিয়ে নাকি মস্তিষ্ক দিয়ে (Quran 11:5) ?

প্রশ্ন – ৪৪

কুরানের প্রতিটা আয়াত (Quran 7:57, 13:17, 15:22, 23:18, 24:43, 25:48-49, 30:24, 30:48, 35:9, 39:21, 45:5, 50:9-11, 56:68, 78:14-15) নির্দেশ করে, বৃষ্টিপাত হয় সরাসরি আকাশ থেকে নয়তো আল্লাহ থেকে ! সূর্যতাপে পানি বাষ্প হয়ে উর্ধ্বাকাশে ঘনিভুত হয়ে যে মেঘ ও পরবর্তিতে বৃষ্টি তৈরি হয় তা কৌশলে এড়িয়ে যাওয়া হয়েছে ! এর থেকে কি কুরান রচয়িতার অজ্ঞতা প্রকাশিত হয় না ?

প্রশ্ন – ৪৫

আল্লাহ মানুষকে তৈরি করেছেন মাটি থেকে (Quran 15:26) যা ঘটেছে মুহুর্তের মধ্যে (Quran 2:117) এবং পরবর্তীতে স্বর্গ থেকে হয়েছে বিতারিত (Quran 2:36) ! আপনার কাছে এধরনের কল্পকাহিনি কি বিবর্তনের প্রমাণিত তথ্য থেকে বেশী গ্রহণযোগ্য ?

প্রশ্ন – ৪৬

বিগব্যাং তত্বকে কোন প্রমাণ না দেখতে চেয়েই মেনে নিতে আপনাদের সমস্যা হয় না, বরং তা কুরানের আয়াত দিয়ে মিলিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন ! অপর দিকে বিবর্তনের এতো এতো প্রমান থাকা সত্বেও আপনি তা মিথ্যা বলে উড়িয়ে দেন, কারন সেটা ধর্মের চিরায়ত আদম-হাওয়া কাহিনিকে মিথ্যা প্রতিপন্ন করে ! জন্ম থেকে পালন করে আসা মিথ্যাকে টিকিয়ে রাখতে কেন আপনি সত্যকে অস্বীকার করে চলছেন ?

http://en.wikipedia.org/wiki/Evolution
http://en.wikipedia.org/wiki/Human_evolution
http://en.wikipedia.org/wiki/Evolutionary_history_of_life
http://news.nationalgeographic.com/news/2006/03/0308_060308_evolution.html
http://atheistzoo.blogspot.com/2010/10/atavisms-blast-from-past.html

প্রশ্ন – ৪৭

কুরানের আয়াত 6:125 অনুসারে, উচ্চতায় উঠতে থাকলে বক্ষ গহ্বর (Chest cavity) সংকুচিত হতে থাকে ! কিন্তু বাস্তবে বিপরীত ঘটনা ঘটতে দেখা যায়, কেন ?

Air is compressible, so the weight of all the air above us compresses the air around us, making it denser. As you go up a mountain, the air becomes less compressed and is therefore thinner (less oxygen to breathe). Several areas of the body also normally contain gas (sinuses of the face, stomach and bowel, middle ear cavity, lungs and air-passages). The laws of gas behavior dictate that as the pressure falls, a given amount of gas will expand (mass and temperature remaining constant). So as a person is subjected to progressively higher altitude (and therefore progressively less air pressure) the collections of gas within the body will expand. If anything, the lower pressure found at higher altitudes would allow your lungs to expand more than at lower altitudes. There is no tightening of the chest. The constrictive sensation experienced at high altitudes is simply a result of having less air to breathe into your lungs, in addition to the gas already there actually expanding.

http://www.webcitation.org/query?url=http://www.pilotfriend.com/aeromed/medical/ascent_descent.htm&date=2011-12-05

প্রশ্ন – ৪৮

মুহম্মদ কতৃক চাঁদ আসলেই দ্বিখণ্ডিত হয়েছিল কিনা সে ব্যাপারে কুরান (Quran 54:1) এবং কিছু হাদিস (Sahih Bukhari 4:56:830-32, 5:58:208-211) ব্যতিত অন্য কোন দেশ ও জাতির ইতিহাসে এতো বড় একটা ঘটনার কোন ধরনের তথ্যপ্রমাণ নেই ! এটা কি তবে এক ধরনের ভাওতা বাজি বা মিথ্যার প্রচারণা ছিল না ?

প্রশ্ন – ৪৯

কুরান অনুসারে, চাঁদকে মধ্য আকাশে রাখা হয়েছে আলোক প্রদানকারী বস্তু হিসেবে [Quran 71:16 Arabic word for reflected (in`ikaas) does not appear in the ayah. In 24:35, the word “Noor” also means an entity that emits light.] ! এর মানে কি এই নয় যে তৎকালীন মানুষের ধারনা গুলোই উঠে এসেছে কুরানে ?

প্রশ্ন – ৫০

বিজ্ঞান দিয়ে কি কোন ভাবেই কারো ৩০০ বছর ঘুমিয়ে থাকা (Quran 18:11) বা ১০০০ বছর বেঁচে থাকা (Quran 29:14) ব্যাখ্যা করা যায় ?

প্রশ্ন – ৫১

আপনি কি কখনো হাদিসের বর্ননার সাথে বিজ্ঞান কে মেলানোর চেষ্টা করে দেখেছেন ?

১ মানুষের আদিপিতা আদম ছিলো ৯০ ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট – Sahih Bukhari 4:55:543 Sahih Muslim 40:6809, 32:6325
২ সূর্য প্রতি রাতে আল্লাহর আরশের নিচে সেজদা দিতে থাকে – Sahih Bukhari 4:54:421 Sahih Muslim 1:297
৩ চাঁদের নিজস্ব আলো আছে – Sahih Bukhari 4:54:422
৪ চন্দ্র-সূর্যের গ্রহন ঘটে মানুষকে ভয় পাওয়ানোর উদ্দেশ্যে – Sahih Bukhari 2:18:158
৫ সাগর দাড়া পরিবেষ্ঠিত মহা বিশ্ব – Abu Dawud 2:475
৬ মহাবিশ্বের বাইরে বৃহদাকার ছাগল – Abu Dawud 40:4705
৭ যৌনকর্মের সময় ‘আল্লাহর ইচ্ছা’ বললেই জন্ম নেবে পুত্র সন্তান – Sahih Bukhari 4:52:74i
৮ মানব ভ্রুণ ৪০ দিন অতিবাহিত করে শুক্রবিন্দু রূপে ৪০ দিন বক্তপিন্ড রূপে ৪০ দিন মাংসপিন্ড রূপে – Sahih Bukhari 4:54:430, 4:55:549, 8:77:593, 9:93:546 Sahih Muslim 33:6390
৯ মানব ভ্রুণ ছেলে হবে নাকি মেয়ে হবে তা নির্ধারিত হয় ১২০ দিন পর – Sahih Bukhari 8:77:594, 4:55:550 Sahih Muslim 33:6397
১০ জন্মের পূর্বে কেউ জানতে পারবে না সন্তান ছেলে না মেয়ে – Sahih Bukhari 2:17:149
১১ জন্মের সময় সন্তান কাঁদে শয়তানের স্পর্শে – Sahih Bukhari 4:54:506
১২ শরীরের জন্ম-দাগ খারাপ দৃষ্টির ফল – Sahih Bukhari 7:71:635
১৩ হাই আসে শয়তান থেকে – Sahih Bukhari 4:54:509
১৪ রাতের বেলা নাকে শয়তান ঘুমায় – Sahih Muslim 2:462
১৫ অধিক ঘুমানোর কারন কানে শয়তানের মূত্র ত্যাগ – Sahih Bukhari 2:21:245
১৬ অমুসলিমের রয়েছে সাতটা অন্ত্র (Intestine) আর মুসলিমের একটা – Sahih Muslim 23:5113 Al-Muwatta 49.49.69, 49.49.610
১৭ পুরুষের থেকে নারীর বুদ্ধি কম হয় – Sahih Bukhari 3:48:826, 2:24:541, 1:6:301
১৮ কেউ জানতে পারবে না কখন বৃষ্টি হবে – Sahih Bukhari 2:17:149
১৯ সন্তানের চেহারা নির্ভর করে বীর্যপাতের ওপর – Sahih Bukhari 55:546
২০ চোখের দৃষ্টি নষ্ট করে ও গর্ভপাত ঘটায় সাপ – Sahih Bukhari 54:527-528
২১ প্রার্থনার সময় ওপর দিকে তাকালে দৃষ্টিশক্তি নষ্ট হওয়া – Sahih Muslim 4:862-863
২২ শীত গ্রীষ্ম হচ্ছে দোজখের নিশ্বাসের ফল – Sahih Bukhari 54:482
২৩ জ্বরের তাপ আসে দোজখের তেজ থেকে – Sahih Bukhari 54:483-86
২৪ কোন বস্তুর প্রতি ভালোবাসা অন্ধত্ব এবং বধিরতার কারন – Abu Dawud 41:5111
২৫ মৃত কুকুর বা রজ্বচক্রের রক্ত পানি দুষন ঘটায় না – Abu Dawud 1:63, 1:68 Sahih Muslim 1:66, 1:67
২৬ পানির অভাবে শৌচ কর্মের জন্যে মাটি বা ধুলার ব্যবহার – Sahih Bukhari 1:7:334
২৭ উঠের মূত্র ওষুধ – Sahih Bukhari 7:71:590, 8:82:796 Sahih Muslim 16:4130
২৮ মাছির পাখায় রয়েছে রোগের প্রতিকার – Sahih Bukhari 4:54:537
২৯ মোরগ এবং গাধা ডাকে ফেরেস্তা/শয়তান দেখে – Sahih Bukhari 4:54:522, Sahih Muslim 35:6581
৩০ বক্ষ বিদির্ন করে জ্ঞান ও বিশ্বাসের পাত্র দান – Sahih Bukhari 8:345
৩১ পাথরও পারে শুন্যে ভেসে বেড়াতে – Sahih Bukhari 1:5:277
৩২ খাদ্যদ্রব্যও জানায় আল্লাহর প্রশংসা – Sahih Bukhari 56:779
৩৩ নবীর আঙ্গুলের ভেতর থেকে নির্গত হয় জলধারা – Sahih Bukhari 56:779, 4:170, 56:772-776
৩৪ ছোয়াচে রোগ বলে কিছু নেই – Sahih Bukhari 8:5302, 8:5353-55
৩৫ নজর লাগলে বা সাপে কামড়ালে ঝার-ফুক করা – Sahih Bukhari 8:5321-5332

প্রশ্ন – ৫২

মুহম্মদ বলেছেন, যদি কেউ প্রতিদিন সকালে সাতটা করে খেজুর খায় তবে কোন ধরণের বিষ ক্রিয়ার প্রভাব
শরীরে পড়বে না (Sahih Bukhari 7:65:356, 7:65:663) ! কথাটা কি Anthrax, Arsenic অথবা Cyanide এর ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য ?

প্রশ্ন – ৫৩

মুহম্মদ বলেছেন, কালো জিরা মৃত্যু ব্যতিত সকল রোগের আরোগ্য ঘটাতে পারে (Sahih Bukhari 7:71:591, 7:71:592) ! এটা কি তবে AIDS, Polio, Diabetes, Bird Flu, Leukemia ইত্যাদি সারাতেও সক্ষম ?

প্রশ্ন – ৫৪

মুহম্মদের ভাষ্যমতে, যদি কোন পুরুষের প্রথমে বীর্য স্থলন ঘটে তবে সন্তানের চেহারা হবে তার (বাবার) মত, যদি স্ত্রীর আগে ঘটে তবে হবে মায়ের মত (Sahih Bukhari 4:55:546) ! নবীর এধরনের মিথ্যাচারে আপনি বিশ্বাস স্থাপন করে যাচ্ছেন কেন ?

http://au.answers.yahoo.com/question/index?qid=20100201220421AATRr1l
http://www.dnaftb.org/1/

প্রশ্ন – ৫৫

বিগব্যাং তত্বানুসারে, এই মহাবিশ্বের সৃষ্টি মুহূর্তে শক্তি ব্যাতিত কোন ধরনের ম্যাটারেরই অস্তিত্ব ছিলো না । ফলে, আকাশ আর পৃথিবী মিশে ছিল যা পরবর্তিতে আলাদা করে দেওয়া হল (Quran 21:30) – এটা দিয়ে কোনভাবেই বিগব্যাং কে ব্যাখ্যা করা যায় না ! তবে মুসলিমরা কেন এমন হাস্যকর দাবি করে থাকে ?

প্রকৃতপক্ষে, প্যাগানসহ মধ্যপ্রাচ্যের অনেক গোত্রের উপকথা এবং লোককথাতেই আকাশ আর পৃথিবী মিশে থাকার আর হরেক রকেমর দেব-দেবী দিয়ে পৃথক করার কথা বলা ছিল যা প্রবেশ করেছে কুরানের বানীতে !

প্রশ্ন – ৫৬

Sahih Bukhari 4:2961 অনুসারে এমন একটা সময় আসবে (কেয়ামত) যখন আল্লাহ সূর্যকে বলবেন পশ্চিম দিক থেকে উদিত হতে ! এর মানে কি এই নয় যে, পৃথিবীতে দিন রাত্রি সংগঠিত হওয়ার মূলে রয়েছে সূর্যের পরিভ্রমণ ?

প্রশ্ন – ৫৭

আপনি যদি কোন অদৃশ্য দানব (জ্বিন Quran 55:15, 15:27) অথবা উড়ন্ত ঘোড়ায় (বোরাক) বিশ্বাস করতে পারেন, তবে ইউনিকর্ন, ড্রাগন, ইয়েতি, ভ্যাম্পায়ার, ড্রাকুলা ইত্যাদিতে বিশ্বাস করতে সমস্যা কোথায় ?

http://en.wikipedia.org/wiki/Buraq

কুরান : কিছু অসামঞ্জস্যতা

প্রশ্ন – ১

যদি আল্লাহকে কেউ নাই দেখে থাকে (Quran 42:51, 6:102-103), তার লিঙ্গ নির্ধারন সম্ভব নয় ! তাহলে তাকে কেন পুরুষ বাচকে আহবান করা হয় (Quran 42:51, 6:102-103) ?

প্রশ্ন – ২

কোন কথা আস্থাযোগ্য না হলেই মানুষ শপথ করে / কছম কাটে ! তবে কেন আল্লাহকে কুরানে এতোবার কছম কাটতে হলো (Quran 57:1-4, 52:1-6, 53:1, 56:75, 70:40, 74:31-34, 84:16-18, 89:1-4, 92:1-3, 95:1-3 … ইত্যাদি) ?

প্রশ্ন – ৩

কুরানের আয়াত (2:1) ‘আলিফ লাম মিম’ এর অর্থ কি সেটা কোন মুসলিমই জানে না ! তাহলে এটাকে কুরানে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার মানে কি যেখানে কুরানেই বার বার বলা হয়েছে যে তা সহজ ভাবে নাজিল হয়েছে যেন সবাই বুঝতে পারে (Quran 2:99, 2:118, 2:187, 2:219, 2:221, 2:242, 2:266, 3:103, 3:138, 12:2, 43:3, 54:32, 54:40, 54:22, 54:17, 24:18) ?

প্রশ্ন – ৪

কুরানের আয়াত (Quran 6:101) অনুযায়ী আল্লাহর কোন সন্তান থাকতে পারেন না যেহেতু তাঁর কোন সঙ্গি নেই ! আবার এও বলে যে মেরির গর্ভে সন্তান আসে কোন পিতা ছাড়াই (Quran 19:20-21) কিভাবে মেরির ক্ষেত্রে এমন একটা ব্যাপার ঘটলো যেটা আল্লাহ পারে না ? এটা কি আল্লাহর ক্ষমতার (Omnipotence means unlimited power, capable of doing absolutely anything) দিকে প্রশ্ন তোলে না ?

প্রশ্ন – ৫

কুরান ‘বৈদিক’ বা ‘বৌদ্ধ’ ধর্মের মত গুরুত্বপুর্ণ ধর্ম গুলো বাদ দিয়ে কেন এমন একটা ধর্মের উল্লেখ করে যার অস্তিত্ব বিলুপ্ত (যেমন Sabians : Quran 2:62) এর মানে কি এই দাড়ায় না যে নবী মুহম্মদের সেসকল ধর্ম সম্পর্কে কোন ধারনাই ছিলো না ?

প্রশ্ন – ৬

মুসলিম দের দাবী অনুসারে কুরান যদি মানুষের জন্যে সৃষ্টকর্তার পাঠানো জীবন বিধানই হবে, তবে কেন এতে পুরো একটা সুরা জুড়ে স্থান পাবে Abu Lahab নামক তৎকালিন এক ব্যক্তির প্রতি আল্লাহর আক্রোশ এবং অভিশাপ পূর্ণ বানী (Quran 111:1-5) এটা কি একজন সৃষ্টিকর্তার জন্যে হাস্যকর নয় ?

প্রশ্ন – ৭

কুরানের ভাষ্যমতে, এটা যদি আল্লাহ ব্যাতিত অন্য কারো রচিত হত তবে তাতে বৈপরিত্য দেখা যেত (Quran 4:82) ! কিন্তু কুরানে প্রচুর আয়াত খুঁজে পাওয়া যায় যেগুলো একটার সাথে অন্যটা সাঙ্ঘর্ষিক (যেমন Quran 29:46 and 9:29) ! এর মানে কি এই নয় যে কুরান আসলে মুহম্মদেরই রচনা ?

প্রশ্ন – ৮

সুরা ফাতিহা’র (Quran 1:1-7) আয়াতগুলো দ্বারা মুহম্মদ কত্রিক আল্লাহর প্রশংসা করাটাকেই বোঝায় ! তাহলে কুরান কি করে আল্লাহর থেকে পাঠানো বানী হতে পারে ?

প্রশ্ন – ৯

কুরানে রয়েছে আল্লাহর প্রতি প্রচুর প্রশংসা / গুন বাচক শব্দ (Quran 2:37,54,105,115,127-129,137,143,148, 173,182,199,209,126-128 …. ইত্যাদি) ! কোন সৃষ্টি কর্তার দ্বারা কি এমন (মানুষের মত) হাস্যকর কাজ করা সম্ভব (নিজের ঢোল নিজে পেটানো) ?

প্রশ্ন – ১০

কুরান আল্লাহর পাঠানো বানী হলে তাতে সর্বদা থাকবে প্রথম পুরুষ বাচক শব্দ (যেমন Quran 2:38) কিন্তু কুরান জুড়েই রয়েছে তিনি/যিনি/তাঁর/আমরা/আল্লাহ (নিজের নাম) ইত্যাদি সহস্র ব্যাকরণগত ভুল (Quran 1:1-7, 2:7-10,26-29,31,33, …. 3:2-9,18-21,32-34,40-41,50-55,62-63,70,73-74, …. 4:1,5,11-15,17,19,26-29,32,34,36, …. 5:7-8,11-12,47,51,54-56, …. ইত্যাদি) ! এ থেকে কি এটাই প্রতিয়মান হয় না যে কুরান নিরক্ষর মুহম্মদের নিজের মুখের কথা ?

প্রশ্ন – ১১

Quran 2:117 অনুযায়ী আল্লাহ যখন কোন কার্য সম্পাদনের সিন্ধান্ত নেন তখন তিনি বলেন, ‘হয়ে যাও’ আর তৎক্ষণাৎ তা হয়ে যায় । তাহলে আকাশ এবং পৃথিবী সৃষ্টিতে তাঁর ৬ দিন (period) লাগলো কেন (Quran 7:54; 10:3; 11:7; 25:59; 32:4; 50:38; 57:4) ? এখানে কি আল্লাহর কাজে এবং কথায় কন্ট্রাডিকশন দেখা যাচ্ছে না ?

প্রশ্ন – ১২

কল্পকাহিনী পড়ে ছোট বাচ্ছাদের মনে বিশ্বাস তৈরি হয় যে ”সিন্ডেরেলা” আসলেই পাখি বা ইদুরের সাথে কথা বলতে পারে ! একজন বয়স্ক মানুষ যখন বিশ্বাস করে সোলেমান আসলেই কোন পিপড়ার সাথে কথা বলেছে (Quran 27:18-19), তখন কি তাকে কোন বাচ্চা থেকে পৃথক মনে হয় ?

প্রশ্ন – ১৩

মুসলিমরা দাবি করে কুরান সকল প্রকার অসামঞ্জস্যতা মুক্ত ! তাই যদি হয় তবে এতে কেন একই কথার
এতোবার পুনরাবৃতি ঘটেছে (যেমন Quran 54:17, 22, 32, 40 … 55:13, 16, 18, 21, 23, 25, 28, 30, 32, 34, 36, 38, 40, 42, 45, 47, 49, 51, 53, 55, 57, 59, 61, 63, 65, 67, 69, 71, 73, 75, 77 … ইত্যাদি) ?

প্রশ্ন – ১৪

আল্লাহর কি প্রয়োজন পড়লো তার অনুসারিদের লুটের মাল ঘুষ দেওয়ার (Quran 48:20, 8:41) ?

প্রশ্ন – ১৫

কুরানের বহু আয়াত রয়েছে শূধু মাত্র নবী মুহম্মদের ব্যাক্তিগত সমস্যার সমাধানের উদ্দেশ্যে (Quran 33:28-30, 33:32-33, 33:37-38, 33:50-53, 33:55-59, 66:1-5) ? সমগ্র মানব জাতির জন্যে রচিত জীবন বিধানে নবীর জন্যে আল্লাহর এধরনের ‘বিশেষ’ মাথা ব্যাথা থাকবে কেন ?

প্রশ্ন – ১৬

আল্লাহ কেন Cousin দের মধ্যে বিয়ের অনুমোদন দিয়েছেন (Quran 4:23), এমনকি উৎসাহিত পর্যন্ত করেছেন (মুহম্মদের ক্ষেত্রে, Quran 33:37) ? তিনি কি জানতেন না যে এর ফলে পরবর্তি প্রজন্মে genetic disorder ঘটে থাকে ?

http://www.pnas.org/content/107/suppl.1/1779.full

প্রশ্ন – ১৭

একজন মানুষের ভবিষ্যৎ তার মাতৃগর্ভেই লিখে দেওয়া হয় (Sahih Bukhari 55:550) এবং তাদেরকে ভুল পথে চালিত করার মূলে রয়েছেন স্বয়ং আল্লাহ (Quran 2:6-7, 6:125, 35:8) ! তাহলে কেন তাদের কে কৃত কর্মের জন্যে কিংবা কাফের/অবিশ্বাসী হওয়ার জন্যে পরকালে সাজা পেতে হবে (Quran 2:24, 2:39, 2:90, 2:104, 2:114, 2:126, 2:162, 2:167, 2:174, 2:257, 3:10, 3:12, 3:77, 3:85, 3:106, 3:197, 4:18, 4:55, 4:115, 4:140, 5:34, 6:128, 7:38, 9:73, 9:61, 9:113, 14:17, 22:19, 48:13, 69:30-33) ?

প্রশ্ন – ১৮

কুরান ভুলবশত (?) হত্যার বেলায় একটা সহজ সাজা নির্ধারন করে দিয়েছে – একজন দাস মুক্তি / রক্ত পণ অর্পন (ক্ষতি পূরণ) / দুই মাস সিয়াম (রোজা পালন), যদিও ইচ্ছেকৃত হত্যার বেলায় বেঁচে থাকতে তাঁর কোন সাজা নেই (Quran 4:92-93) ! আপনার কি মনে হয় এটা কোন আল্লাহর তৈরি আইন হতে পারে ?

প্রশ্ন – ১৯

ইসলামি বেহেস্তে রয়েছে পুরুষের জন্যে স্বর্গীয় সুখের আশ্বাস (Quran 52:17-20, 37:40-49, 44:51-54, 55:54-56, 55:72-74, 78:31-34, 56:16-22), কিন্তু নারীর জন্যে কিছুই নয়, বরং তাদের অধিকাংশের জন্যে রয়েছে দোজখের আগুন (Sahih Bukhari 2:24:541) ! আপনার (for women) কি মনে হয় না মুহম্মদের আল্লাহ একজন নারী বিদ্বেষী ?
প্রশ্ন – ২০

কোন বিষয়ে প্রশ্ন করা আল্লাহ ও তার নবীর পছন্দ নয় (Quran 5:101, 5:102, Sahih Bukhari 2:24:55) ! কেন এই চিন্তার পরাধীনতা ? এর কারন কি এই যে তাতে করে ধর্মের মিথ্যা দিক গুলো প্রকাশ পেয়ে যেতে পারে ?

প্রশ্ন – ২১

আল্লাহর ভাষ্যমতে, মৃত্যুর পরে সকল প্রানী (পশুপাখি থেকে শুরু করে কীটপতঙ্গ) মানুষের সাথে যোগ দেবে, যাদের একইসাথে পাপকাজের বিচার অনুষ্ঠিত হবে (Quran 6:38) ! প্রশ্ন হলো, অন্যান্য জীবের বেলায় পাপ কাজের মাপকাটি ধরা যায় কিভাবে ? মানুষের মত তাদের মাঝেও কি কোন নবী নির্বাচিত হয় বা কোন আসমানি কিতাব দেওয়া হয় ? তাদের কি আল্লাহ/সৃষ্টিকর্তা ব্যাপারটা বোঝার মত কোন ধরনের বোধবুদ্ধি আছে ? কিংবা আছে তাঁকে অস্বীকার করার মত কোন বিষয় (অর্থাৎ কাফেরের উপস্থিতি) ?

প্রশ্ন – ২২

মৌমাছি বেঁচে থাকে মধু খেয়ে ! কিন্তু কুরানে উল্লেখ আছে তাদের খাদ্য ফল (Quran 16:68-69) ! এটা কি মুহম্মদের ভুল অনুমানের ফসল নয় ?

প্রশ্ন – ২৩

আল্লাহ ঘোড়া, গাধা এবং খচ্চর কে তৈরি করে দিয়েছেন মানুষের আরোহনের জন্যে (Quran 16:8) ! কিন্তু তিনি কি এটা জানতে না যে এগুলোকে পোষ মানাতে মানুষের বহু বছর লেগেছে (Horses were domesticated approximately 4,000 years ago in East Europe or Central Asia) যার পূর্বে তা ছিল বন্য ? আর ভবিষ্যতে মানুষ আরোহনের জন্যে যে অন্য কিছু ব্যবহার করবে তাও কি তার অজানা ছিলো ?

প্রশ্ন – ২৪

আরব অঞ্চলে সচরাচর যে সকল জীব দেখা যায় অর্থাৎ – যেগুলো বুকে হেটে চলে (সাপ), দুই পায়ে (মানুষ) এবং চার পায়ে (অন্যান্য জন্তু, গিরগিটি) চলে সেগুলোর কথাই উঠে এসেছে কুরানে (Quran 24:45) ! অথচ হাজার পা যুক্ত প্রানীও পৃথিবিতে বিদ্যমান (Millipedes) ! এসব কি মুহম্মদের অজ্ঞতার ফসল নয় ?

প্রশ্ন – ২৫

ইহুদিরা (Jews) সম্পূর্ণ রূপে একেশ্বরবাদী থাকা সত্বেও কুরান কিসের ভিত্তিতে দাবি করে তারা বহুঈশ্বরে বিশ্বাসি (Quran 9:30) ?

http://en.wikipedia.org/wiki/Judaism%27s_view_of_Jesus

প্রশ্ন – ২৬

কুরানে উল্লেখ আছে আল্লাহ মুহম্মদ কে Masjid al-Haram (Sacred Mosque) থেকে Masjid al-Aqsa (farthest Mosque) পর্যন্ত ভ্রমন করান (Quran 17:1) ! কিন্তু মুহম্মদের জীবনকালে Masjid al-Aqsa ‘র কোন অস্তিত্বই ছিল না ! তাহলে এধরনের মিথ্যাচারের কারন কি ?

http://en.wikipedia.org/wiki/Al-Aqsa_Mosque

প্রশ্ন – ২৭

কুরান বলে একজন মুসলিম কে সুর্যোদয় থেকে সুর্যাস্ত পর্যন্ত রোজা পালন করতে হবে (Quran 2:187) ! আবার প্রার্থনার ব্যাপারটাও সুর্যোদয় এবং সুর্যাস্তের সাথে সম্পর্কিত (Quran 17:78) ! কিন্তু সমগ্র মানুষের এই জীবন বিধানে Eskimo দের ব্যাপারে কোন নির্দেশনা নেই ! এটা কি কুরান রচয়িতার অজ্ঞতা নয় ?

In polar regions, there are six months without sunlight and six months perpetual night during winter and summer.

প্রশ্ন – ২৮

কুরান অনুসারে, পবিত্র মক্কা মুসলিম দের জন্যে একটা সুরক্ষিত বা নিরাপদ জায়গা (Quran 2:125, 5:97) (যেটা আল্লাহর একটা মিথ্যা প্রতিশ্রুতি) ! অথচ তিনি কি ভবিষ্যতে এই মক্কাতেই মুসলিম নিধনের ব্যাপারে অজ্ঞেয় ছিলেন না ?

Juhayman al-Otaybi and Abd-Allah ibn al-Zubayr, and Abu Tahir al-Janabi killed thousands of Muslim pilgrims in Mecca. Moreover, Yazid Bin Muawiya sent a battalion of army to attack Mecca and desecrated the Kaaba.

http://www.webcitation.org/mainframe.php
http://news.bbc.co.uk/2/hi/middle_east/2749231.stm
http://topnews.us/content/28575-77-muslims-killed-while-performing-hajj-saudi-floods
http://www.webcitation.org/query?url=http://www.emirates247.com/news/region/20-miscarriage-cases-in-haj-2011-11-05-1.426972&date=2011-11-05

প্রশ্ন – ২৯

আল্লাহর ভাষ্য অনুযায়ী, অমুসলিম/কাফের সম্প্রদায় মূখ, বধির এবং অন্ধ (Quran 2:18) ! অথচ সমগ্র মুসলিম বিশ্বের যাবতিয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির মূলে রয়েছে ওই সব অমুসলিমদের অবদান/আবিষ্কার ! তাহলে আল্লাহর এ ধরনের হাস্যকর দাবির ভিত্তি টা কোথায় ?

Computers, TV’s, space shuttles, helicopters, ipods, nuclear bombs, cameras, satellites, birth control pills, vaccination for smallpox, telephones, radios, light bulbs, microchips, CDs, playstations, refrigerators, microwaves, stainless steel, plastic, aluminium, x-rays, polio-vaccine, anti-biotics, heart-transplants etc. were all invented by non-Muslims. Moreover, statistics show correlation studies indicating that religious conviction diminishes with education level.

প্রশ্ন – ৩০

পৃথিবীর সকল প্রানীই কি মানুষের মত একটা সমাজ বা কমুনিটিতে বাস করে (Quran 6:38) ? কুরান রচয়িতার কি জাগুয়ার (jaguar), লেপার্ড (leopard) বা মাকর্সা (spiders) এদের ব্যাপারে অজানা ছিল ?

প্রশ্ন – ৩১

পৃথিবীতে প্রায় ৫০০০-১০০০০ এর মাঝামাঝি ভাষা রয়েছে ! এর মাঝে শুধু মাত্র আরবীতে কুরান নাজিল (Quran 43:3) হওয়ার মানেই হল অন্য ভাষাভাষিদের জন্যে তা বোঝার (অনুবাদ হওয়া সত্বেও) এবং পড়ার সমস্যার সৃষ্টি হওয়া ! আল্লাহ কেন এই ব্যাপার টার কোন সমাধান তার পূর্নাঙ্গ জীবন বিধানে উল্লেখ করলেন না ? তবে কি ধরে নেওয়া যায় তিনি শুধু আরবীয়দের ঈশ্বর ?

প্রশ্ন – ৩২

কুরানে উত্তরাধিকার সম্পত্তি বন্টনে কেন এমন ভুল থাকবে (Quran 4:11-12) ? একজন সৃষ্টিকর্তার পক্ষে কি মানুষের মত কোন রূপ ভুল হওয়া আদৌ সম্ভব ?

Wife: 1/8 = 3/24
Daughters: 2/3 = 16/24
Father: 1/6 = 4/24
Mother: 1/6 = 4/24

Total = 27/24 = 1.125 (Not equal to 1)

প্রশ্ন – ৩৩

মহাশূন্য ভ্রমনের পথপ্রদর্শক হল অমুসলিমরা প্রায় ৫০ বছর আগে ! বর্তমান প্রযুক্তি ব্যবহার করে মানুষ ইতিমধ্যে সৌরজগতের শেষ সীমা উৎঘাটন করে ফেলেছে ! অথচ কুরান দাবি করে আল্লাহর অনুমতি ব্যতিত কারো পক্ষে আকাশ ভ্রমন বা পৃথিবীর সীমা অতিক্রম সম্ভভপর নয় (Quran 55:33) ! তাহলে কি বলা যায় যে আল্লাহর ইচ্ছে অমুসলিমদের বেলায় কাজ করে না ?

প্রশ্ন – ৩৪

আল্লাহ যদি সর্বজ্ঞ হন (Quran 49:16) তবে তার বান্দাদের পরিক্ষা করে দেখার কোন মানে আছে কি (Quran 2:155) ?

প্রশ্ন – ৩৫

Quran 43:11 অনুসারে আল্লাহ পৃথিবিতে পরিমিত পরিমান বৃষ্টিপাত ঘটান ! তাহলে আপনি কিভাবে বন্যা হওয়ার বিষয়টাকে ব্যাখ্যা করবেন ? এটা কি এই নয় যে, বৃষ্টিপাত বিহিন মরু অঞ্চলে থাকার ফলে কুরান রচয়িতার প্রবল ধরনের ধ্বংসাত্মক বৃষ্টিপাত সম্বন্ধে কোন ধারনাই ছিলো না ?
প্রশ্ন – ৩৬

আল্লহ জানান যে, মুহম্মদ শুধুমাত্র একজন সাধারন মানুষ ব্যতিত আর কিছু নয় যে (Quran 17:90-96) কাফের দের কোন অবিশ্বাস্য ঘটনা দেখাবেন ! আবার এও বলে, মুহম্মদ কাফের দের চাঁদ দ্বিখণ্ডিত করে দেখিয়েছেন (Quran 54:1-2 Sahih Bukhari 4:56:830, 4:56:831) ! এখানে কি আল্লাহ কে মিথ্যাবাদি বলে মনে হচ্ছে না ?

প্রশ্ন – ৩৭

কুরান অনুসারে, একজন পালিত পুত্র কখনোই পরিবারের অন্তর্গত হতে পারে না (Quran 33:4) ফলে তাদের তালাক প্রাপ্ত স্ত্রিকে বিয়ে করায় কোন দোষ নেই ! অন্যদিকে একজন দুধ মাতা বা সেই দিক থেকে বোনেরা পরিবারের অন্তর্গত (Quran 4:23) যাদের বিয়ে করায় রয়েছে নিষেধাজ্ঞা ! এমন একটা ব্যাপার কি আপনার কাছে একটুও দৃষ্টিকটূ লাগে না ?

প্রশ্ন – ৩৮

আল্লাহ দাবি করেন, পৃথিবীতে বিচরণকারী এমন কোন প্রাণী নেই, যার রিযিকের দায়িত্ব তিনি নিজে গ্রহন করেননি (Quran 11:6) ! তাহলে আফ্রিকার লাখ লাখ মানুষকে অনাহারে রাখার পেছনে তাঁর ভুমিকা কি ?

http://thepeacefulplanet.org/2011/01/12/africa-hungry/
http://www.salem-news.com/articles/june062010/world-hunger-cf.php

প্রশ্ন – ৩৯

আল্লাহ কি আসলেই দয়ালু এবং ক্ষমাশীল (Quran 1:3) যিনি কিনা একটা উঠ হত্যার জন্যে পুরো গোষ্টির লোকেদের মেরে ফেলতে পারেন (Quran 7:73-78, 54:26-31) ?

প্রশ্ন – ৪০

যদি কেউ ইসলাম ছাড়া অন্য কোন ধর্ম অনুসরন করে তবে তাঁর জন্যে দোজখে রয়েছে অনন্তকালের শাস্তি (Quran 3:85) ! এটা কি ভয় দেখিয়ে আল্লাহর নিজ দল ভারী করার কৌশল নয় ? এতে কি তাঁর শক্তির মাপকাঠি নিয়ে প্রশ্ন জাগে না (Quran 2:117) ? কিংবা এগুলো যদি তাঁর ‘পরীক্ষার বিষয়’ হয়ে থাকে তবে কি বলা যায় না তিনি সর্বজ্ঞ নন (Quran 49:16) ?

প্রশ্ন – ৪১

আল্লাহ যদি আদমকে আরবী ভাষা শিখিয়েই পৃথিবিতে পাঠান (Quran 2:31-33) তবে তাঁর বংশধরেরা যেখানেই বসবাস শুরু করুক না কেন আরবী ভাষাই ব্যবহার করবে ! তবে আজ সারা পৃথিবি জুড়ে প্রায় পাঁচ হাজারের ওপরে ভাষা বিরাজ করছে কি করে ?

প্রশ্ন – ৪২

পুরো কুরান জুড়ে রয়েছে বহু অতিপ্রাকৃত গাল-গল্পের ছড়াছড়ি ! এগুলো যদি শুধু মুহম্মদের কথা শুনেই বিশ্বাস আনতে হয় তবে ‘আলাদিনের চেরাগ’ কিংবা ‘হ্যারিপটারের জাদুর ছড়ি’ -তে বিশ্বাস করতে নিশ্চই কোন সমস্যা নেই আপনার ?

১ মানুষের বানরে রূপান্তর (Quran 2:65)
২ পৌরানিক werewolves (ইয়াজুজ মাজুজ) দের পৃথিবীতে অবস্থান (Quran 21:96)
৩ আকাশ থেকে খাদ্যের আবির্ভাব (Quran 5:114-115)
৪ লাঠি নিক্ষেপের পর সাপ হয়ে যাওয়া (Quran 7:107)
৫ সোলেমানের জ্বিন আর পাখির সৈন্য থাকা (Quran 27:16-17, 20-22, 23)
৬ নবী ইউনুসের মাছের পেটে যাওয়া এবং প্রার্থনা করা (Quran 37:142)
৭ সোলেমানের পিপড়ার সাথে কথা বলা (Quran 27:18)
৮ পাখা যুক্ত ঘোড়ায় চড়ে মুহম্মদের স্বর্গে গমন (Quran 17:1)
৯ দেহের বিভিন্ন প্রত্যঙ্গ কতৃক মানুষের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যদান (Quran 24:24)
১০ সমুদ্রের দুই ভাগ হয়ে যাওয়া (Quran 2:50)
১১ সোলেমান কতৃক বায়ুকে নিয়ন্ত্রন করার ক্ষমতা (Quran 38:36)
১২ মৃত ব্যক্তি কতৃক তার খুনিকে চিহ্নিত করন (Quran 2:72)
১৩ দানবের সাথে মানুষের কথপোকথন (Quran 27:82)
১৪ দ্যুতিময় যাদুর হাত (Quran 20:22)
১৫ জড় পদার্থ (আকাশ ও পৃথিবী) কতৃক অস্বীকার জানানো (Quran 33:72)

প্রশ্ন – ৪৩

Quran 12:2, 33:53, 9:5 আয়াতগুলো পড়েও কি মনে হয় কুরান সকল সময় এবং সকল স্থানের জন্যে প্রযোজ্য ?

প্রশ্ন – ৪৪

কুরানের পাতায় পাতায় রয়েছে অমুসলিমদের প্রতি তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য, গালাগালি আর অভিশাপ (Quran 2:7, 2:10, 2:15, 2:17, 2:26, 2:88, 2:161, 3:61, 3:87, 3:178, 4:46-47, 4:88, 4:115, 4:143, 4:155, 5:13, 5:14, 5:41, 5:49, 5:60, 5:64, 5:67, 6:25, 6:110, 6:123 … ইত্যাদি) ! স্বাভাবিক দৃষ্টিতে একজন সৃষ্টিকর্তার জন্যে মানুষের মতন এমন আচরন কি হাস্যকর নয় ?

প্রশ্ন – ৪৫

আল্লাহ কি মনে করেন পুরুষের একমাত্র চাহিদা অক্ষত-যোনী রমনী সম্ভগ যার কারনে বেহেস্তে তার লোভ দেখানো হয়েছে বারংবার (Quran 55:56, 37:48-49, 52:20, 55:58, 55:72, 78:33-34, 56:22-23, 56:35-38) (এছাড়াও পুরুষের জন্যে রয়েছে গেলমান বা কিশোর 52:24) ? আল্লাহ কি মুহম্মদের মতই কামুক মনোভাবাপন্ন নয় ?

প্রশ্ন – ৪৬

মানুষের জন্যে নাজিলকৃত পূর্নাঙ্গ জীবন বিধান কুরানের আয়াত গুলো কি কখনো বিশ্লেষন করে দেখেছেন ?

1 কুরানে ৩০০ টির মত আয়াত রয়েছে শুধুমাত্র আল্লাহ কে ভয় করার ব্যাপারে !
2 মাত্র ৪৯ টি আয়াত রয়েছে ভালোবাসা সম্পর্কিত (যার মধ্যে ১৪ টা আয়াত নেতিবাচক অর্থে, ৩ টি আয়াত মানবজাতিকে নির্দেশ দেয় আল্লাহ কে ভালবাসতে, ২ টি আয়াত আল্লাহ কিভাবে বিশ্বাসিদের ভালোবাসেন সে ব্যাপারে ! প্রায় ২৫ টির মত আয়াত আছে আল্লাহ অবিশ্বাসিদের ভালোবাসেন না সে ব্যাপারে ! ৩ টি আয়াত আছে নিজ আত্মিয় বা মুসলিম ভাইদের ভালোবাসার ব্যাপারে, ১ টি আয়াত মুসলিমদের নির্দেশ দেয় আল্লাহকে ভালোবাসতে ! অন্য ১ আয়াতে আছে ভালোবেসে দান খয়রাতের ব্যাপারে) !
3 প্রায় ৬৭% মক্কান আয়াত রয়েছে মুহম্মদ কে মেনে না নেওয়ার কারনে অবিশ্বাসিদের শাস্তি দেওয়া প্রসঙ্গে !
4 প্রায় ৫০% এর ওপর মদিনান আয়াত রয়েছে মুশরিক এবং অবিশ্বাসিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের নির্দেশ দেওয়া প্রসঙ্গে !
5 সমগ্র কুরানে প্রায় ৫০০ ‘র কাছাকাছি আয়াত রয়েছে (বলতে গেলে প্রতি ১২ টার মধ্যে ১ টা) যা মানুষকে জানান দেয় দোজখের ব্যাপারে !
6 কুরানে দোজখ শব্দটা কুরানে উল্লেখ আছে ১৪৬ বার, যার মধ্যে ৯ বার উল্লেখ আছে নীতিবোধ থেকে পতিত হওয়ার অপরাধে ! বাকি ১৩৭ বার অনন্তকাল দোজখে থাকার কথা বলা আছে শুধুমাত্র মুহম্মদের সাথে একমত না হওয়ার জন্যে !
7 প্রায় ৪০০ টির মত আয়াত শিক্ষা দেয় ইহুদি, খৃষ্টান, পৌত্তলিক এবং কাফের দের ঘৃনা করার ব্যাপারে !
8 প্রায় ১৪ টির মত আয়াত আছে যা মুসলিমদের কোন অমুসলিম বা কাফের দের সাথে বন্ধুত্ব করতে মানা করে !
9 প্রায় ১৬৪ টির মত আয়াত রয়েছে যা পরিস্কারভাবে সরাসরি মুসলিমদের নির্দেশ দেয় যুদ্ধ বা জিহাদে অংশ নেওয়া প্রসঙ্গে !
10 কুরান, হাদিস এবং সিরাত – এই তিনটির মাঝে মাত্র ১৭% আল্লাহর সাথে সম্পর্কিত, আর বাকি ৮৩% মুহম্মদের কার্যকলাপ আর কথাসমষ্টির অংশ বিশেষ !

http://godofreason.com/new-page-105.htm
http://www.yoel.info/koranwarpassages.htm

কুরান : স্ববিরোধিতা

প্রশ্ন – ১

আল্লাহর অবস্থান প্রকৃত পক্ষে কোথায় – তার জন্যে নির্ধারিত আরশে (Quran 57:4, 11:7) ? পুর্ব-পশ্চিম সর্বত্র (Quran 2:115) ? কাবা ঘরে (Quran 14:37) ? আমাদের খুব নিকটে (Quran 50:16) ?

প্রশ্ন – ২

আল্লাহই কি মানব সভ্যতার জন্যে একমাত্র রক্ষাকর্তা (Quran 32:4, 18:86, 18:102, 9:116) নাকি তিনি একাই নন (Quran 41:30-31, 5:55, 9:71) ?

প্রশ্ন – ৩

আল্লাহই কি একমাত্র শাসক এবং নির্দেশদাতা (Quran 18:86, 17:111, 3:79-80, 6:71) ? নাকি তার সাথে নবী মুহম্মদও (Quran 4:59, 4:80, 24:56, 26:108, 26:110, 4:64) ?

প্রশ্ন – ৪

একমাত্র আল্লাহই কি অদৃশ্য কিছু দেখার ক্ষমতা রাখেন (Quran 10:20) ? নাকি কিং সোলেমানও সেটা পারেন (Quran 27:39) ?

প্রশ্ন – ৫

আল্লাহর কি সন্তান হতে পারে ? – না (Quran 6:101) এবং হ্যা (Quran 39:4) !

প্রশ্ন – ৬

সঙ্গী বিহীন কি সন্তান ধারন সম্ভব ? – না (Quran 6:101) এবং হ্যা (Quran 19:20-21) !
প্রশ্ন – ৭

আল্লাহ কি সর্বজ্ঞ ? – হ্যা (Quran 49:16) এবং না (Quran 2:155) !

প্রশ্ন – ৮

আল্লাহ কে কি দেখা সম্ভব ? – না (Quran 6:103) এবং হ্যা (Quran 53:1-18) ?

প্রশ্ন – ৯

আল্লাহ কি মানুষ কে পথভ্রষ্ট করেন ? – না (Quran 9:115) এবং হ্যা (Quran 6:25) !

প্রশ্ন – ১০

আল্লাহর কি মানুষের মত কোন আকার আছে ? – না (Quran 112:4) এবং হ্যা (Quran 55:27, 20:49, 5:64, 38:75, 39:67, 68:42, 69:17) !

প্রশ্ন – ১১

আল্লাহ কি আসলেই দয়ালু এবং ক্ষমাশীল ? – হ্যা (Quran 1:3) এবং না (Quran 4:56) !

প্রশ্ন – ১২

আল্লাহ কি কারো সাথে সরাসরি কথা বলেন ? – না (Quran 42:51) এবং হ্যা (Quran 53:11, 2:259, 2:36, 4:164) !

প্রশ্ন – ১৩

আল্লাহ কি সব কিছু ক্ষমা করে দেন ? – হ্যা (Quran 39:53) এবং না (Quran 4:116) !

প্রশ্ন – ১৪

আল্লাহ কি তার সাথে শিরককারীদের ক্ষমা করে দেন ? – না (Quran 4:48, 4:416) এবং হ্যা (Quran 4:153, 25:70) !

প্রশ্ন – ১৫

আল্লাহর একদিন মানুষের কয় দিনের সমান ? – ১০০০ বছর (Quran 22:47) নাকি ৫০০০০ বছর (Quran 70:4) !

প্রশ্ন – ১৬

ফেরেস্তারা কি পৃথিবিতে বিচরন করে বেড়ায় ? – না (Quran 17:95) এবং হ্যা (Quran 2:102) !
প্রশ্ন – ১৭

ফেরেস্তারা কি কাউকে সাহায্য বা রক্ষা করতে পারে ? – না (Quran 2:107) এবং হ্যা (Quran 41:31) !

প্রশ্ন – ১৮

বদরের যুদ্ধে কতজন ফেরেস্তা মুহম্মদ কে সাহায্য করেছিল ? – ৩০০০ (Quran 3:124), ১০০০ (Quran 8:9) নাকি একজনও নয় (Quran 15:8) !

প্রশ্ন – ১৯

শয়তান কি ঈমানদার মুসলিম কে ভুলপথে চালিত করতে পারে ? – না (Quran 38:82-83) এবং হ্যা (Quran 7:16-17) !

প্রশ্ন – ২০

ইবলিশ কি একজন ফেরেস্তা (Quran 2:34) ছিল নাকি জ্বিন (Quran 18:50) ?

প্রশ্ন – ২১

জ্বিন থাকে কোথায় ? – পৃথিবিতে (Quran 55:33) নাকি আকাশে (Quran 37:6-7) !

প্রশ্ন – ২২

আল্লাহ সর্ব প্রথম কি সৃষ্টি করলেন ? – মহাকাশ (Quran 79:27) নাকি পৃথিবী (Quran 41:10-11, 2:29) !

প্রশ্ন – ২৩

আকাশ এবং পৃথিবী কিভাবে আসলো ? – আলাদা ভাবে (universe expanding) (Quran 21:30) নাকি একসাথে (universe contracting) (Quran 41:11) !

প্রশ্ন – ২৪

মহাকাশ এবং পৃথিবী তৈরিতে মোট কত দিন ব্যয় হয়েছে ? – ছয় দিন (Quran 10:3) নাকি আট দিন (Quran 41:9-12) !

প্রশ্ন – ২৫

আল্লাহ মানুষ সৃষ্টি করেছেন কোথা থেকে ? – ধুলা থেকে (Quran 3:59, 30:20, 35:11), কাদা মাটি থেকে (Quran 6:2, 15:26, 32:7, 55:14), বীর্য থেকে (Quran 16:4), রক্তপিন্ড থেকে (Quran 96:2), পানি থেকে (Quran 21:30, 25:54, 24:45) নাকি শূন্য থেকে (Quran 19:67) !

প্রশ্ন – ২৬

যাবতিয় কিছু সৃষ্টিতে আল্লাহর কত সময় লেগেছে ? – ছয় দিন (7:54) নাকি কয়েক মুহুর্ত (Quran 2:117) !

প্রশ্ন – ২৭

কেয়ামতের সময় কতগুলো শিঙ্গায় ফুঁ দেওয়া হবে ? – দুটোয় (Quran 79:7) নাকি একটায় (Quran 69:13) !

প্রশ্ন – ২৮

কেয়ামতের সময় পর্বতরাজির কি হবে ? – পশমের মত হবে (Quran70:9) নাকি অদৃশ্য হবে (Quran 78:20) !

প্রশ্ন – ২৯

কেয়ামতের সময় অবিশ্বাসিরা কি কথা বলতে পারবে ? – না (Quran 27:85) এবং হ্যা (Quran 36:65) !

প্রশ্ন – ৩০

শেষ বিচারের দিনে অবিশ্বাসির দেহের কোথায় তার নিবন্ধগ্রন্থ রাখা হবে ? – কাধে (Quran 84:10) নাকি বাম হাতে (Quran 79:25) !

প্রশ্ন – ৩১

খারাপ কিছু কি আল্লাহ থেকে আসে ? – হ্যা (Quran 4:78) এবং না (Quran 4:79) !

প্রশ্ন – ৩২

আল্লাহ কি খারাপ কোন কিছুর নির্দেশ দেন ? – না (Quran 7:28, 16:90, 6:131) এবং হ্যা (Quran 17:16) !

প্রশ্ন – ৩৩

শেষ বিচারে সময় কি সুপারিশ গৃহিত হবে ? – না (Quran 2:123, 2:47) এবং হ্যা (20:109, 10:3) !

প্রশ্ন – ৩৪

জান্নাতের বিস্তৃতি কয় আসমান সমান ? – এক (Quran 57:21 singular, sama) নাকি বহু (Quran 3:133 plural, samawaat) !

প্রশ্ন – ৩৫

সকল মুসলিম কি কিছু সময়ের জন্যে দোজখে যাবে ? – হ্যা (Quran 19:71) এবং না (Quran 47:12) !

প্রশ্ন – ৩৬

দোজখের খাবার কি হবে ? – শুধুই বিষাক্ত কাটাগাছ (Quran 88:6), শুধুই পুঁজ (Quran 69:36) নাকি বিস্বাদ যাকুম ফল (Quran 37:66) !

প্রশ্ন – ৩৭

মানব সৃষ্টির উদ্দেশ্য কি ? – শূধু আল্লাহর উপাসনা করা (Quran 51:56) নাকি সেই সাথে মুহম্মদের সুন্নাহ অনুসরন করা (Quran 7:158) !

প্রশ্ন – ৩৮

মানুষের সকল জাতিই কি সমান বিবেচিত হবে ? – না (Quran 3:33, 2:47) এবং হ্যা (49:13) !

প্রশ্ন – ৩৯

সবাই কি তার নিজের বোঝাই বহন করবে ? – হ্যা (Quran 6:164, 35:18, 2:286) এবং না (Quran 16:25) !

প্রশ্ন – ৪০

মানুষের কি নিজস্ব ইচ্ছে বলে কিছু আছে ? – না (Quran 10:100) এবং হ্যা (Quran 81:28) ?

প্রশ্ন – ৪১

সবাই কি আল্লাহ কি মান্য করে চলে ? – হ্যা (Quran 30:26) এবং না (Quran 2:34) !

প্রশ্ন – ৪২

মানুষের প্রাণ হরন করে কে ? – একজন ফেরেস্তা (Quran 32:11), কয়েকজন ফেরেস্তা (Quran 47:27) নাকি আল্লাহ (39:42) !

প্রশ্ন – ৪৩

প্রথম মুসলিম কে ? – মুহম্মদ (Quran 6:14, 6:163, 39:12), আদম (Quran 3:33), ইব্রাহিম (Quran 2:132, 3:67), মুসা (Quran 7:143) নাকি মিশরীয়রা (Quran 26:51) !

প্রশ্ন – ৪৪

একজন মুসলিম কয়জন অবিশ্বাসিকে পরাস্ত করার ক্ষমতা রাখে ? – ১০ জন (Quran 8:65) নাকি ২ জন (Quran 8:66) !

প্রশ্ন – ৪৫

মদ খাওয়ার ব্যাপারে কুরান কি বলে ? – খাওয়া যাবে (Quran 16:67) তবে প্রার্থনা না করা অবস্থায় (Quran 4:43), খুবই খারাপ জিনিস (Quran 5:90) যার জন্যে রয়েছে গুনাহ (Quran 2:219) !

প্রশ্ন – ৪৬

মুসলিমদের পবিত্র মাস কত গুলো ? – চারটা (Quran 9:36) নাকি একটা (Quran 5:2) !

প্রশ্ন – ৪৭

ইসলামে কি ভিন্ন ধর্মালম্বিদের ওপর বল প্রয়োগ করা যাবে ? – না (Quran 2:256, 109:6) এবং হ্যা (Quran 8:12, 9:29) !

প্রশ্ন – ৪৮

আল্লাহ কি অমুসলিমদের ভালো কাজের পুরস্কার দেবেন ? – হ্যা (Quran 99:7) এবং না (Quran 9:17) !

প্রশ্ন – ৪৯

অবিশ্বাসিদের ভুল পথে চালিত করার মূলে কে ? – আল্লাহ (Quran 6:25, 35:8, 10:100), শয়তান (Quran 15:39, 114:5, 4:119) নাকি তারা নিজেরাই (9:70, 6:12, 30:9) !

প্রশ্ন – ৫০

কাদের জন্যে রয়েছে দোজখ থেকে পরিত্রান ? – যেকোন ধর্মপ্রাণ আস্তিকের জন্যে (Quran 5:69, 2:62) নাকি শুধুই মুসলিম দের জন্যে (Quran 3:85, 3:19) !

প্রশ্ন – ৫১

যারা পরকালে বিশ্বাসী নয় তাদের সাথে কেমন আচরন করতে হবে ? – দয়াপূর্ণ (Quran 45:14, 25:63) নাকি হিংসাত্মক (Quran 9:29) !

প্রশ্ন – ৫২

অবিশ্বাসী পরিবারের সাথে কি বসবাস করা যাবে ? – হ্যা (Quran 31:15) এবং না (Quran 9:23) !

প্রশ্ন – ৫৩

একজন মুসলিম কি অমুসলিমদের বন্ধু হিসেবে গ্রহন করতে পারবে ? – হ্যা (Quran 5:82, 57:27) এবং না (Quran 5:51) !

প্রশ্ন – ৫৪

খৃষ্টান আর ইহুদিরা কি পরস্পরের বন্ধু (Quran 5:51) নাকি ঘৃণার পাত্র (Quran 5:64) ?

প্রশ্ন – ৫৫

একজন মুসলিম কি কোন অমুসলিমকে বিয়ে করতে পারবে ? – না (Quran 2:221) এবং হ্যা (Quran 5:5) !

প্রশ্ন – ৫৬

মুসলিম আর অমুসলিমরা কি একই ঈশ্বরের প্রার্থনা করে ? – না (Quran 109:1-3) এবং হ্যা (Quran 29:46) !

প্রশ্ন – ৫৭

সকল মুসলিম নবীই কি সমান ? – হ্যা (Quran 2:285) এবং না (Quran 2:253) !

প্রশ্ন – ৫৮

নবীরা কি অলৌকিকত্ব দেখাতে পারে ? – না (Quran 29:50) এবং হ্যা (Quran 2:253) !

প্রশ্ন – ৫৯

সকল নবীই কি ইব্রাহিমের বংশধর ? – হ্যা (Quran 29:27) এবং না (Quran 16:36) !

প্রশ্ন – ৬০

ইব্রাহিম কি পৌত্তলিক ছিলেন ? – হ্যা (Quran 6:76) এবং না (Quran 2:135) !

প্রশ্ন – ৬১

নবী ইউনুস কি সমুদ্র তীরে নিক্ষিপ্ত হয়েছিলেন ? – হ্যা (Quran 37:145) এবং না (Quran 68:49) !

প্রশ্ন – ৬২

পরকিয়া (Adultery) কি অনুমোদিত ? – না (Quran 24:33) এবং হ্যা (Quran 23:6, 4:24) !

প্রশ্ন – ৬৩

অগম্যাগমন (Incest) কি অনুমোদিত ? – না (Quran 4:23) এবং হ্যা (Quran 7:172) !

প্রশ্ন – ৬৪

নারী পুরুষ কি সমান ? – হ্যা (Quran 3:195) এবং না (Quran 4:34, 2:228) !

প্রশ্ন – ৬৫

কোন ব্যক্তি নিষ্কলঙ্ক নারীর ওপর মিথ্যা আরোপ করলে তার কি ক্ষমা হবে ? – হ্যা (Quran 24:5) এবং না (Quran 24:23) !

প্রশ্ন – ৬৬

কুরান কিভাবে নাজিল হল ? – এক পবিত্র রাতে (Quran 44:3, 97:1) নাকি পুরো রমজান মাস জুড়ে (Quran 2:185, 17:6, 25:32) !

প্রশ্ন – ৬৭

কুরান কি সহজ বোধ্য ? – হ্যা (Quran 11:1) এবং না (Quran 3:7, 2:1) !

প্রশ্ন – ৬৮

কুরান কি বিশুদ্ধ আরবি তে ? – হ্যা (Quran 16:103) এবং না (Quran 17:35 Qistas – foreign word, Quran 15:74 al-sijjil – foreign word) !

প্রশ্ন – ৬৯

আল্লাহ কি তার কথার পরিবর্তন করেন ? – না (Quran 6:115, 10:64, 18:27) এবং হ্যা (Quran 2:106, 16:101) !

প্রশ্ন – ৭০

আল্লাহর প্রেরিত উঠকে কতজন মেরেছিল ? – একজন (Quran 54:29) নাকি কয়েকজন (Quran 7:77) !

প্রশ্ন – ৭১

মক্কার পৌত্তলিকদের মাঝে কি কোন নবী পাঠানো হয়েছিল ? – হ্যা (Quran 10:47) এবং না (Quran 34:44) !

প্রশ্ন – ৭২

আল্লাহ প্রকৃত পক্ষে কতজন ? – একজন (Quran 40:62) নাকি অনেক (Quran 21:7, 23:14) !

প্রশ্ন – ৭৩

ফেরাউন কি মারা গিয়েছিল ? – না (Quran 10:90-92) এবং হ্যা (Quran 17:102-103) !
প্রশ্ন – ৭৪

আদ জাতিকে হত্যা করতে কত সময় লেগেছিল ? – একদিন (Quran 54:19-21) নাকি এক সপ্তাহ (Quran 69:6-7) !

প্রশ্ন – ৭৫

গর্ভে ধারন আর লালন-পালন করতে কত সময় গিয়েছিল ? – ৩০ মাস (Quran 46:15) নাকি ২৪ মাস (Quran 31:14) ?

প্রশ্ন – ৭৬

আল্লাহর কত গুলো cardinal point রয়েছে ? – এক (Quran 2:115) নাকি দুই (Quran 55:17) ?

প্রশ্ন – ৭৭

কত জন ফেরেস্তা মেরির সাথে কথা বলেছিল ? – একজন (Quran 19:16-19) নাকি তার বেশি (Quran 3:42, 3:45) !

প্রশ্ন – ৭৮

একজন মানুষ কি ইচ্ছে মত তার বিশ্বাস স্থাপন করতে পারে ? – হ্যা (Quran 2:256, 18:29, 109:6) এবং না (Quran 3:32, 30:45, 18:29, 3:85, 3:28, 4:89, 4:144, 5:51, 60:1, 4:101, 9:123) !

প্রশ্ন – ৭৯

মহা প্লাবনে নূহ নবীর কোন পুত্র কি মারা গিয়েছিল ? – না (Quran 21:76, 37:75-77) এবং হ্যা (Quran 11:42-43) !

ইসলামে নিষিদ্ধ বিষয়াবলি

প্রশ্ন – ১

আল্লাহ কেন হাঁচি দেওয়া পছন্দ করেন কিন্তু হাই তোলাকে করেন না (Sahih Bukhari 8:73:245) ? তিনি কি এটা জানেন না যে হাঁচি দেওয়ার ফলে বাতাসে জীবানু ছাড়ায় আর অন্য দিকে হাই তুললে আমাদের শরীর প্রচুর অক্সিজেন পায় ?

প্রশ্ন – ২

প্রার্থনার সময় সকল মুসলিম কে নিচের দিকে মুখ করে রাখতে হয়, কেননা ওপর দিকে (আকাশের দিকে) তাকালে তারা দৃষ্টি শক্তি হারাবে (Sahih Muslim 4:862, 4:863) ! আপনি বা অন্যকেউ কি এমনটা কারো সাথে ঘটতে দেখেছেন বা শুনেছেন ?

প্রশ্ন – ৩

অ্যালকোহল বা মদকে কে কুরানে ঘৃনিত বস্তু যা শয়তানের তৈরি বলে উল্লেখ করা হয়েছে (Quran 5:90-91), আবার সেই কুরানই কেন এই মদের প্রশংসা করছে (Quran 16:67) এবং বেহেস্তে পাওয়া যাবে বলে জানাচ্ছে (Quran 47:15) ?

প্রশ্ন – ৪

দাবা একটা বুদ্ধি দিপ্ত খেলা ! এই খেলাকে কেন ইসলামের দৃষ্টিতে এতো খারাপ প্রতিপন্ন করে নিষেধ করা হল (Sahih Muslim 28:5612, Al-Muwatta 52 2.7) ?

প্রশ্ন – ৫

ছবি তোলা / আঁকার মাঝে কি এমন খারাপ নিহিত আছে যে সেটাকে ইসলামে নিষিদ্ধ করা হয়েছে (Sahih Bukhari 1:8:419, 2:23:425, 3:34:299, 3:34:318, 3:34:428, 3:34:440, Sahih Muslim 4:1076, 24:5254, 24:5255, 24:5261, Abu Dawud 1:227, 27:3746) ?

প্রশ্ন – ৬

ট্যাটু (tattoos) লাগানো কি মানুষ হত্যার থেকেও খারাপ যে তা নিষিদ্ধ করা হলো (Sahih Bukhari 7:72:815, 3:34:299, 7:72:827) অথচ হত্যায় উৎসাহ দেওয়া হলো (Quran 2:191) ?

প্রশ্ন – ৭

ইসলাম তার অনুসারীদের কুকুর (বিশেষ করে কালো গুলো) পেলেই হত্যা করার নির্দেশ দেয় (Sahih Muslim 24:5248, 16:2840, 16:2839) ! তাই যদি হবে তবে আল্লাহ কেন এই প্রজাতিটিকে পৃথিবীতে পাঠালেন ?

প্রশ্ন – ৮

সঙ্গীত মানুষের জীবনের অপরিহার্য একটা বিষয় ! কিন্তু বাদ্যযন্ত্র ব্যবহার করে যেকোন ধরনের সঙ্গীত ইসলামে হারাম কারন তা আল্লাহর অপছন্দ (Sahih Bukhari 7:69:494v) ! আল্লাহর এমন অদ্ভুত মানুষিকতা নিয়ে আপনার মনে কি কোন প্রশ্ন জাগে না ?

প্রশ্ন – ৯

অ্যালকোহল সহ অন্যান্য নেশার দ্রব্য ইসলামে কঠিন ভাবে নিষিদ্ধ (হারাম) (Quran 5:90-91 Sahih Muslim 4962, 4228 Sahih Bukhari 8:81:764-768 Abu Dawud 38:4469) কিন্তু পরিমিত অ্যালকোহল গ্রহনের প্রচুর ভালো দিক (সাস্থ্যগত) থাকায় এটা কে সম্পূর্ণ রূপে নিষিদ্ধ করার যৌক্তিকতা কোথায় ?

1 Lower mortality rates
http://onlinelibrary.wiley.com/doi/10.1111/j.1530-0277.2010.01286.x/abstract
http://www.time.com/time/magazine/article/0,9171,2017200,00.html

2 Lower risk of heart disease and stroke
http://stroke.ahajournals.org/content/39/11/2936.full
http://circ.ahajournals.org/content/102/5/500.abstract
http://circ.ahajournals.org/content/102/5/494.abstract

3 Lower risk of diabetes
http://www.reuters.com/article/2010/04/27/us-drinking-diabetes-idUSTRE63Q43920100427

4 Lower risk of suffering from rheumatoid arthritis
http://edition.cnn.com/2010/HEALTH/07/27/drinking.rheumatoid.arthritis/index.html#fbid=XGFBTvQDW97&wom=false

5 Lower risk of osteoporosis (brittle bones)
http://www.telegraph.co.uk/health/healthnews/6014310/Beer-could-stop-bones-going-brittle.html

6 Lower risk of suffering from depression
http://www.ncbi.nlm.nih.gov/pubmed/19686521
http://www.time.com/time/health/article/0,8599,1928187,00.html?iid=sphere-inline-sidebar

প্রশ্ন – ১০

সিল্কের কাপড় পড়া নিয়ে ইসলামের এতো মাথা ব্যাথা কেন (Sahih Bukhari 3:47:782) ? এটা কি শুধু কাফেরদের তৈরি এই কারনে ?

নবী মুহম্মদ ও অন্যান্য

প্রশ্ন – ১

ইসলাম ধর্ম মতে মেয়েদের ঋতুস্রাব, গর্ভধারনের কষ্ট এবং কম বুদ্ধিমত্তা থাকা ‘হাওয়া’ -র গন্ধম ফল খাওয়ার সাজা থেকে প্রাপ্ত (Al-Tabari vol-1 page 277-279, Sahih Bukhari 1:6:301) ! আদমের ক্ষেত্রে আল্লাহ এ ধরনের কোন সাজা দিলেন না কেন, যেহেতু ফল সেও খেয়েছিল ?

প্রশ্ন – ২

হাদিস বলে, যে ব্যক্তি আল্লাহর ৯৯ টা নাম জানে সে বেহেস্ত এ যাবে (Sahih Bukhari 3:50:894) ! এটা কি একজন serial rapist / murderer এর ক্ষেত্রেও সত্য ? অথবা একজন অবিশ্বাসীর বেলায় যে মনে করে মুহম্মদ একটা fraud এবং pedophilic ?

প্রশ্ন – ৩

যদি মুসলিমরা মুহম্মদ কে এতোই বিশ্বাস করে থাকে তবে তার প্রস্তাবিত ওষুধ (উঠের মূত্র, মুখের লালা, ধুপ, মধু, কালো জিরা, খেজুর, মাছি … ইত্যাদি) ব্যবহার না করে পাশ্চাত্যের ওষুধের দরকার হয় কেন ?

(Sahih Bukhari 7:71:590, 8:82:796, 5, 7:71:673, 7:71:595, 7:71:600, 7:71:587, 7:71:614, 7:65:356, 7:65:663, 7:71:591, 7:71:592, 7:71:619, 7:71:620, 7:71:622, 7:71:641, 7:71:596, 7:71:616 Abu Dawud 3:28:3886, 41:5111 Ash Shifa, page 178 Ghazali, page 2.19, 4.239, 3.67)

প্রশ্ন – ৪

মুহম্মদ দাবী করেছেন, জমজমের পানিতে (Islamic holy water) রয়েছে এক অলৌকিক ব্যাপার যা যেকোন রোগের প্রতিকার করতে সক্ষম১ ! কিন্তু এতে রয়েছে খুবই উচ্চ মাত্রার আর্সেনিক (প্রায় তিন গুণ) এবং নাইট্রেট লেভেল, এবং অন্যান্য ক্ষতিকর ব্যাক্টেরিয়া২ ! আল্লাহ কি তার অনুসারীদের মাঝে এভাবে বিষকৃয়া ঘটাতে চান৩ ?

http://www.webcitation.org/query?url=http://www.sundayobserver.lk/2005/01/30/fea36.html&date=2011-05-07
http://www.webcitation.org/query?url=http://www.bbc.co.uk/news/uk-england-london-13267205&date=2011-05-07
http://www.webcitation.org/query?url=http://en.wikipedia.org/wiki/Arsenic_poisoning&date=2011-05-07

প্রশ্ন – ৫

৭ম সতাব্দিতে এক আরব ব্যাক্তি ডানাওয়ালা এক ঘোড়ায় চড়ে স্বর্গে যায় এবং সৃষ্টিকর্তার থেকে এই নির্দেশ নিয়ে আসে যে, প্রত্যেক মানুষ কে সৌদি আরবে অবস্থিত এক চতুষ্কোন ঘর অভিমুখে দিনে পাঁচবার মাথা ঝুকাতে হবে ! বিষয়টাকে কেন আপনাকে অন্ধ ভাবে বিশ্বাস করতে হবে ?

http://gurumia.com/2010/07/09/meraj-night-ascension-isra-and-miraj-night-journey-shab-e-meraj-lailat-ul-miraj-miraj-un-nabi/

প্রশ্ন – ৬

মুহম্মদ আল্লাহর সাথে দেখা করে (মেরাজ) মুসলিমদের জন্যে দিনে ৫০ ওয়াক্ত নামাজ (Sahih Bukhari 4:2970) পড়ার নির্দেশ নিয়ে আসেন (যা পরে মুসার কথায় ৫ ওয়াক্ত করা হয়) ! আল্লাহ কি এতোটাই নির্বোধ যিনি মানব জাতিকে সারাদিন শুধুমাত্র তাঁর প্রার্থনা করারই নির্দেশনা দেন (যা মানতে গেলে সারাদিনে মানুষের আর অন্যকোন কাজ করার সময় থাকে না) ?
প্রশ্ন – ৭

নবী মুহম্মদের ভাষ্যমতে, তিনি ডানা ওয়ালা এক ঘোড়ায় (বোরাক) চড়ে সাত আসমান পাড় হয়ে আল্লাহর সাথে দেখা করতে যান (মেরাজ গমন) ! বায়ুশূন্য মহাকাশে চলার জন্যে বোরাকের ডানার প্রয়োজনীয়তা পড়লো কোনদিক দিয়ে ? মহাকাশ যে বায়ুশূন্য সে ব্যাপারে কি মুহম্মদের কোন ধারনাই ছিলো না ?

প্রশ্ন – ৮

মসজিদুল আকসা (Temple at Jerusalem) তৈরি হয়েছে 958-951 BC তে কিং সোলায়মান (970-930 BC) কত্রিক ! তাহলে হাদিস (Sahih Bukhari 4:55:636) অনুযায়ী মসজিদুল হারাম (Kaaba) তৈরির সময়কাল দাড়ায় মোটামুটি 998-991 BC ! কিন্তু কুরান (Quran 2:125) অনুযায়ী মসজিদুল হারাম (Kaaba) নির্মিত হয়েছে আব্রাহামের সময়কালে 1812-1637 BC তে ! এখন প্রশ্ন হল, আল্লাহ এবং তার নবীর কথায় এ ধরনের কন্ট্রাডিকশন তৈরি হল কেন ?

http://en.wikipedia.org/wiki/Temple_in_Jerusalem
http://en.wikipedia.org/wiki/Abraham

প্রশ্ন – ৯

কুরানের বহু আয়াত নাজিল হত মুহম্মদের নিজস্ব সুবিদার্থে ! নবীর ইচ্ছেমত বিয়ে করার ব্যাপারে যখন আয়াত 33:50 নাজিল হয় তখন আয়েশার মন্তব্য থেকেই প্রতিয়মান হয় যে তিনি বুঝতে পেরেছিলেন আল্লাহ নবীর ইচ্ছে পূরণে সর্বদাই ব্যতিব্যস্ত (Sahih Bukhari 62:48) ! কুরান যে মুহম্মদের বানানো তা বোঝার জন্যে কি এটা একটা উদাহরন নয় ?

প্রশ্ন – ১০

আয়েশার ওপর ব্যাভিচারে অপবাদ আরোপিত হলে সে সমস্যা নিরশনে আল্লাহর আয়াত (Quran 24:3-5) নাজিল হতে প্রায় এক মাসের ওপর সময় ব্যয় হয় (Sahih Bukhri 6:3832) ! এ থেকে কি এটাই বোঝা যায় না যে মুহম্মদ আল্লাহ কে দিয়ে কি ধরনের আয়াত নাজিল করাবেন (বা তিনি কি সিদ্ধান্ত নিবেন) তা নিয়ে কনফিউসড ছিলেন ?

প্রশ্ন – ১১

মুহম্মদ সর্বসমক্ষে যায়েদ কে পালক পুত্রের মর্যাদা দিয়েছিলেন (Misqat V.3 P.340) ! কিন্তু পরবর্তিতে নারী লিপ্সু মুহম্মদ (পালক) পুত্রবধু যয়নব কে বিয়ে করার মত দৃষ্টিকটূ বিষয়টাকে সর্বসম্মত করার উদ্দেশ্যে আল্লাহ কে দিয়ে আয়াত নাজিল করেন (Quran 33:4), যা সন্তান দত্তক নেওয়ার মত একটা মানবিক কাজকে নিরুৎসাহিত করে ! আল্লাহর এহেন কার্যকলাপ গুলো কি আবালিয় বলে মনে হয় না ?

প্রশ্ন – ১২

Sahih Bukhari 61:512 হাদিসটি পড়লে সহজেই বোঝা যায় কুরান আল্লাহর বানী নয় বরং মুহম্মদের নিজের তৈরি ! এছাড়া Sahih Bukhari 1:8:395 থেকে বোঝা যায় কিছু আয়াত এসেছে ওমরের কাছ থেকে ! এসব বুঝতে পেরেও মুসলিমরা কেন চোখ বন্ধ করে মিথ্যাকে মেনে নিচ্ছে ?

প্রশ্ন – ১৩

আব্দুল্লাহ বিন সা’দ প্রথম বুঝতে পেরেছিলেন কুরান আল্লাহর নয় বরং মুহম্মদের নিজের কথা, ফলে তিনি ইসলাম ত্যাগ করেছিলেন, যার কারনে মুহম্মদ পরবর্তিতে তাকে হত্যার নির্দেশ দেন (click the link for details) ! আপনি বিংশ শতাব্দির মানুষ হয়েও এটা বুঝতে চাইছেন না কেন ?

http://www.answering-islam.org/Quran/Sources/sarh.html

প্রশ্ন – ১৪

মুহম্মদ আল্লাহর প্রেরিত নবী হলে তাঁর পুত্র ইব্রাহিম (দাসী Mariyah ‘র গর্ভে জন্ম নেওয়া অবৈধ সন্তান) মারা যেত না – এ কথা বলার জন্যে নবী মুহম্মদ al-Shanba’ bint ‘Amr al-Ghifariyyah কে তালাক দেন (al-Tabari vol.9 p.136) ! মুহম্মদের সন্তানদের এভাবে অকাল মৃত্যু হওয়া দেখে আপনার মনেও কি একই ধরনের প্রশ্ন উদয় হয় না ?

প্রশ্ন – ১৫

ইসলামে, নবী মুহম্মদ কে al-Insān al-Kāmil (the perfect human) এবং uswa hasana (an excellent model of conduct) হিসেবে মানা হয়, যার স্বীকৃতি আল্লাহও দেয় (Quran 68:4, 33:21) কিন্তু কথা হলো ‘ওসামা বিন লাদেন’ কোন ক্রাইম টা করেছে যেটা মুহম্মদ করেননি ?

১ শত্রুতা করা – Sahih Muslim 41:6985 Sahih Bukhari 4:56:791
২ ঘুষ দেওয়া – Sahih Bukhari 4:55:558
৩ শিশু নির্যাতন – Abu Dawud 2:494, 2:495
৪ শিশু হত্যা – Sahih Muslim 38:4390 Sahih Bukhari 4:52:256
৫ প্রতারনা করা – Ishaq 323
৬ প্রবঞ্চনা করা – Sahih Muslim 30:5654 Sahih Bukhari 8:73:220
৭ মদ্যপান করা – Sahih Muslim – hadith 3753
৮ ঘৃণা ছড়ানো – Abu Dawud 40:4582
৯ মিথ্যা বলা – Sahih Bukhari 7:67:427
১০ হত্যার নির্দেশ – Sahih Bukhari 4:52:260, 9:84:58, 9:89:271, 8:82:804, 8:82:805
১১ গন হত্যা ঘটানো – Ishaq 464
১২ ক্ষমতার আকাঙ্ক্ষা – (Megalomania) – Sahih Bukhari 1:2:13, 1:2:14, 6:60:226, 6:60:1, 6:60:170 Ishaq 233
১৩ শিশুকামিতা – (Pedophilia) – Sahih Muslim 8:3310
১৪ জোড় পুর্বক দখল (plunder) – Sahih Bukhari vol-4 page 104
১৫ বহু বিবাহ – Sahih Bukhari 1:5:268
১৬ সুবিধাবাদী – Sahih Bukhari 6:60:311
১৭ ধর্ষন – Sahih Bukhari 1:8:367 al-Tabari vol.9 p.141 Sahih Muslim vol.4 footnote 2835. p.1351 Sirat e Rasulullah, Ibn Hisham, page 766 Kitab al-Tabaqat al-Kabir page 151 (Mariyah)
১৮ অত্যাধিক যৌন আকাঙ্ক্ষা – Sahih Bukhari 7:62:142, 1:5:268 Sahih Muslim 8:3240
১৯ দাস চর্চা – Ibn Qayyim al-Jawziyya, Zad al-Ma’ad, Part 1, pp. 114-116
২০ সন্ত্রাস সৃষ্টি – Sahih Bukhari 4:52:220
২১ অত্যাচার করা – Ishaq 595 Sahih Bukhari 1:11:626
২২ যুদ্ধের প্ররোচনা দেওয়া – Al-Tabari, Vol. 7, p. 15
২৩ ধন অর্জন – Sahih Bukhari 3:37:495 Abu Dawud 19:2961 Sahih Bukhari 2:24:497
২৪ আত্মহত্যার প্রবনতা – Sahih Bukhari 9:87:111
২৫ বৌ পেটানো – Sahih Muslim 4:2127

প্রশ্ন – ১৬

ইসলাম প্রতিষ্ঠিত হয়েছে মুহম্মদের হাতে অসংখ্য মানুষের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে (কেউ কেউ বিনা দোষে) ! আপনার কি মনে হয় না যে একজন সৃষ্টিকর্তার প্রেরিত নবী কখনই রক্তের ওপর ধর্ম প্রতিষ্ঠা করতে পারে না ?

(Sahih Bukhari 5:59:462, 5:59:369, 5:59:371, 5:59:372, 4:52:264, 3:45:687, 4:52:270, 4:52:271, 4:52:281, 4:56:826, 4:52:261, 1:4:23, 5:59:505, 7:71:623, 8:82:794, 8:82:796, 8:82:797, 9:83:37, 2:24:577, 8:82:795, 5:59:662, 4:56:817, 3:29:72, 5:59:582, 4:52:259, 1:11:626, 4:52:286 Sahih Muslim 19:4436, 16:4131, 16:4130, 16:4132, 16:4133, 7:3145 Abu Dawud 38:4348, 1:1244, 19:2996, 38:4356, 38:4357, 33:4153, 38:4349, 38:4414 Ishaq: 133-137, 162-163, 308, 365, 369, 372, 434, 438, 458, 464, 482, 492, 515, 550, 551, 675, 676 Ibn Sa’d Vol-1 page 37 Vol-2 page 31-32, 168, 172-174 Al-Tabari, Vol-7 page 29, 97, 99-101, 112, 147-150 Vol-8 page 22, 38, 40, 90, 123, 178-181, Vol. 9 page 58-59, 120, 121, 167)

প্রশ্ন – ১৭

একজন মানুষ হিসেবে আপনি কি নবী মুহম্মদ এর একটা পুরো জাতির লোকেদের (banu qurayza) শিরোচ্ছেদ করা টাকে সমর্থন করেন, যদি তারা দোষিও হয়ে থাকে, এমনকি যেখানে বয়সন্ধির বাচ্চা গুলোকে পর্যন্ত রেহাই দেওয়া হয়নি ?

Alfred Guillaume – The Life of Muhammad: A Translation of Ibn Ishaq’s Sirat Rasul Allah – pp. 461-464. The History of Al-Tabari: The Victory of Islam, translated by Michael. F. Volume 8. page. 38. Abu Dawud 38:4390.

প্রশ্ন – ১৮

নবী মুহম্মদের স্ত্রী সংখ্যা ছিলো ১১ জন (Sahih Bukhari 1:5:268) মতান্তরে আরো বেশি (al-Tabari vol.9 p.126-127) ! এছাড়াও ছিলো কিছু যৌন দাসী/ উপপত্নি ! আপনার কি মনে হয় না তিনি প্রকৃত পক্ষে একজন (সুবিধাবাদী) নারী লিপ্সু ছিলেন ?

1 Khadijah – Sahih Bukhari 4:55:642, 5:58:164 Sahih Muslim 31:5974
2 Sawda – Sahih Muslim 8:3451 Sahih Bukhari 1:4:148, 3:47:766
3 Aisha (নয় বছর বয়সি) – Sahih Muslim 8:3310 Sahih Bukhari 4:55:623
4 Umm Salama – Sahih Muslim 8:3443, 2:3539-3544
5 Hafsa – Sahih Bukhari 5:59:342, 7:62:119 Sahih Muslim 9:3511 Muwatta Malik 42.19.14
6 Zainab bint Jash (পোষ্যপুত্র বধু) – al-Tabari vol.39 p.180-182 Sahih Bukhari 9:93:517, 3:47:755 Sahih Muslim 8:3332, 8:3240 Abu Dawud 3:4880
7 Juwairiyah (যুদ্ধবন্ধিনী) – Sahih Muslim 19:4292 Abu Dawud 29:3920
8 Umm Habiba – al-Tabari vol.9 p.133 Sahih Bukhari 7:62:38
9 Safiyah (যুদ্ধবন্ধিনী) – Sirat e Rasulullah, Ibn Hisham, page 766 al-Tabari vol.39 p.185 Sahih Bukhari 1:8:367, 3:34:437
10 Maimuna bint Harith – Sahih Muslim 8:3284, 5:59:559
11 Fatimah – al-Tabari vol.9 p.39 vol.39 p.187 vol.9 p.139
12 Qutaylah bint Qays – al-Tabari vol.9 p.138-139
13 Sana bint Sufyan – al-Tabari vol.39 p.188
14 Zaynab bint Khozayma (যুদ্ধবন্ধিনী) – al-Tabari vol.7 p.150 footnotes 215-216, vol.39 p.163-164
15 Sharaf bint Khalifah – al-Tabari vol.9 p.138
16 Ghaziyyah bint Jabir – al-Tabari vol.9 p.139

(Divorced)

1 Asma’ bint Noman – al-Tabari vol.9 p.137 vol.10 p.185 and footnote 1131 p.185
2 Mulaykah bint Dawud – al-Tabari vol.8 p.189
3 al-Shanba’ bint ‘Amr – al-Tabari vol.9 p.136
4 al-‘Aliyyah – al-Tabari vol.9 p.138
5 Amrah bint Yazid – al-Tabari vol.39 p.188, Women in Islam – Anne Sofie Roald p.22

(Concubines)

1 Mariyah (উপহার হিসেবে পাওয়া দাসী) – al-Tabari vol.9 p.141 Sahih Muslim vol.4 footnote 2835. p.1351 al-Tabari vol.9 p.39 vol.39 p.194 vol.39 p.22
2 Raihana (যুদ্ধবন্ধিনী) – al-Tabari vol.8 p.39 vol.9 p.137,141 vol.39 p.164-165 Ibn Ishaq p.461-70
3 Khawlah bint al-Hudayl – al-Tabari vol.9 p.139 vol.39 p.166

(Muhammad proposed but ended up not marrying) (al-Tabari vol.9 p.140-141)

1 Umm Hani’ bin Abi Talib
2 Duba’ah bint ‘Amir
3 Saffiyah bint Bashshamah (যুদ্ধবন্ধিনী)
4 Umm Habib bint al-‘Abbas
5 Jamrah bint Al-Harith.

প্রশ্ন – ১৯

Quran 4:3 মতে একজন মুসলিম পুরুষ সর্বোচ্চ চার টা বিয়ে করতে পারবে, আবার Quran 33:50 বা 33:51
(Sahih Bukhari 6:60:311) এর কোথাও বলা হয়নি নবীর ক্ষেত্রে চার জনের অধিক স্ত্রী থাকতে পারবে ! তাহলে নবী মুহম্মদ কেন আল্লাহর তৈরি আইন অমান্য করে ১১ টার অধিক বিয়ে করলেন (al-Tabari vol.9 p.126-127 Sahih Bukhari 1:5:268) ?

প্রশ্ন – ২০

আল্লাহর নবী হয়েও মুহম্মদ কুরানের নির্দেশ মেনে চলতেন না ! এর মানে কি এই নয় যে তিনি জানতেন কুরান আল্লাহর বানী নয় ?

1 রোজা চলাকালিন নারী সংসর্গ – Quran 2:187 Sahih Bukhari 5:59:523, 5:59:524
2 ইদ্দতের নিয়ম ভঙ্গ – Quran 2:228, 2:234 Sahih Bukhari 4:52:143
3 চারের অধিক বিবাহ – Quran 33:52 al-Tabari vol.9, p.120-141
4 নির্দেশিত সাজার (অবৈধ যৌনাচারের) নিয়ম ভঙ্গ – Quran 24:2 Sahih Bukhari 8:82:812
5 রজ্বচক্র চলাকালিন নারী সংসর্গ – Quran 2:222 Sahih Bukhari 1:6:298 Abu Dawud 1:270
6 ইহরাম (Ihram) এর সময় বিয়ে ও যৌন সম্পর্ক – Quran 2:197, 2:187 (Abu Dawud 10:1837 Sahih Bukhari 26:596) Abu Dawud 10:1840
7 বিবাহযোগ্য নারীর সাথে একত্রে অবস্থান – Quran 24:30-31 (Sahih Bukhari 8:4852) Martin Lings p.33, 101, 103-104, 299; Ibn Ishaq p.184, Tabari vol.9 p.186 Sahih Bukhari 7:63:182

প্রশ্ন – ২১

ইসলামের প্রতি আনুগত্যের পাঁচটি শপথের মধ্যে একটা হলো – অবৈধ যৌন সম্পর্ক থেকে বিরত থাকা (Sahih Bukhari 9:89:320) । কিন্তু নবী হয়েও তিনি কেন এই শপথ ভঙ্গ করতেন (Muhammad’s captive slave Mariyah) এবং তাঁর অনুসারীদেরকেও তা ভঙ্গ করতে উৎসাহিত করতেন (Sahih Muslim 8:3432, 8:3383) ?

প্রশ্ন – ২২

আল্লাহ কুরানে ‘ব্যাভিচারি’ (unlawful sexual intercourse) হতে নিষেধ করেছেন (Quran 17:32) ! তাই যদি হয় তবে নবী আর তাঁর অনুসারীদের যুদ্ধবন্দিনি বা দাসীদের সাথে যৌন সম্পর্ক কি আল্লাহর দৃষ্টিতে ব্যাভিচার নয় (Sahih Bukhari 5:59:459, 8:77:600, 3:34:432 Sahih Muslim 8:3432-33, 8:3371, 8:3383 Abu Dawud 2:2150, 11:2153, 31:4006) ?

প্রশ্ন – ২৩

নবী মুহম্মদ ও তাঁর অনুসারীরা মক্কা বিজয়ের পর যারা ইসলাম কবুল করেনি তাদেরকে ধরে ধরে হত্যা করেছে, আশে পাশের অপ্রস্তুত ইহুদি গোষ্ঠির লোকদের আক্রমন করে পুরুষদের হত্যা করতো, নারীদের বন্ধি করে গনীমতের মাল হিসেবে নিজেদের মাঝে ভাগ করে নিত যৌন আনন্দের জন্যে, লুট করে নিত তাদের ধন সম্পদ, দাস বানানো হতো তাদের সন্তান-সন্ততিদের (Sahih Bukhari 59:510, 2:14:68 Sahih Muslim 19:4292) ! এতো কিছুর পরেও কি আপনার মনে হয় না যে মুহম্মদ কোন নবী নয় বরং একজন লুটেরা, ধর্ষক বা সুবিধাবাদীই ছিলেন ?

প্রশ্ন – ২৪

নবী মুহম্মদ তার জীবন কালে ‘মুতাহ’ (Mut’ah – Temporary marriage) বিয়েকে অনুমোদন দিয়েছেন (Sahih Bukhari 7:62:51 Sahih Muslim 8:3247, 8:3252, 7:2874) যদিও পরবর্তিতে তা নিষিদ্ধ হয় ! আপনি কি এধরনের বিয়েকে সমর্থন জানান ?

প্রশ্ন – ২৫

মুহম্মদের কথায়, কবিতা দিয়ে মাথা ভর্তি করার চেয়ে পুঁজ দিয়ে উদর পূর্ণ করা উত্তম (Sahih Bukhari 8:73:175) ! মানুষের প্রতিভাকে হত্যা করার ব্যাপারে মুহম্মদের অবদান ভেবে দেখেছেন ?

প্রশ্ন – ২৬

ক্ষমতার লোভে নিজ কন্যাকে (ফাতেমা) চাচাতো ভাইয়ের (হযরত আলী) সাথে বিয়ে দিয়ে (Sahih Bukhari 7:62:157) তিনি কি কুরানের আইন (Quran 4:23) অমান্য করেন নি ? তাছাড়া এমন একটা ঘৃনিত কাজ কি একজন নবীর পক্ষে করা শোভা পায় ?

প্রশ্ন – ২৭

মুহম্মদ কেন মৃত্যুর পূর্বে একজন নেতা নির্বাচন করে গেলেন না, যেটা করলে মুসলিমরা শিয়া, সুন্নি বা অন্য কোন সেক্টরে ভাগ হয়ে যেত না ? তবে কি বলা যায় আল্লাহর নবী হয়েও তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানতেন না ?

প্রশ্ন – ২৮

যদি শিয়ারা ভুল হয়ে থাকে তবে আল্লাহ কেন আলি এবং তার শিয়া যোদ্ধাদের তিনটি পৃথক যুদ্ধে (Bassorah, Siffin এবং Nahrawan) সুন্নিদের পরাজিত করতে দিলেন ?

প্রশ্ন – ২৯

আপনি কেন শিয়াদের মুতাহ (Mut’ah – temporary contact marriage) বিয়ের সমালোচনা করেন যখন সুন্নিরাও ঐ একই ধরনের (Misyar) বিয়ের চর্চা চালায় ?

http://en.wikipedia.org/wiki/Nikah_Mut%27ah
http://en.wikipedia.org/wiki/Nikah_Misyar

প্রশ্ন – ৩০

ইসলাম কি প্যাগান ধর্মের নতুন সংস্করন নয় যেখান থেকে তাদের রীতিনীতির অনেক কিছুই উঠে এসেছে ?

১ দিনে পাঁচবার প্রার্থনা করা (The Encyclopedia of Islam – edited by Eliade, P. 303FF)
২ রোজা রাখা (Sahih Bukhari 5:58:172)
৩ কাবার চারিদিকে ঘোরা/ তাওয়াফ এবং ইহরাম (Sahih Bukhari 2:26:710 Sahih Bukhari 2:26:706)
৪ কালো পাথরে চুম্বন (Sahih Bukhari 2:26:667, 2:26:675 The Book of Idols, p 14 Encyclopedia Britannica – Arabian Religions, p1059, 1979)
৫ বাকা চাঁদের প্রতিক (http://www.bible.ca/islam/islam-moon-god-hubal.htm)

Islamic ritual, including the Hajj, the stand, the throw and the run were all practiced by the pagans long before Muhammad adopted them into Islam. Muhammad took these pagan practices and declared them to be the correct way to worship a monotheistic Allah. In this way, the pagans could keep their old pagan practices and apply them to one god rather than hundreds. It made conversion to Islam very easy for the Arabs since Islam felt the same as their paganism. http://www.bible.ca/islam/islam-polytheism-moon-worship.htm

প্রশ্ন – ৩১

আপনি কি জানেন যে ‘আল্লাহ’ শব্দটি ইসলাম পূর্ব প্যাগান দের থেকে আগত যে কিনা তাদের উপাস্য দেবতা ছিল ?

A Comprehensive Commentary on the Quran, Osnabrück: Otto Zeller Verlag, 1973, p.7
Robert Morey, The Islamic Invasion, Eugene, Oregon, Harvest House Publishers, 1977, pp.50-51

http://en.wikipedia.org/wiki/Arabian_religion#Gods_in_Arabian_mythology
http://www.bible.ca/islam/islam-allah-pre-islamic-origin.htm
http://paulmarcelrene.wordpress.com/tag/pagan-roots-of-islam/

প্রশ্ন – ৩২

দেখুন তো নিচের হাদিস গুলোকে আপনার কাছে হাস্যকর মনে হয় কিনা ?

১ মেয়েদের ব্যবহার করতে হবে গন্ধবিহীন পারফিউম (Abu Dawud 32:4037)
২ মুত্রত্যাগের পর লিঙ্গাগ্রে ঢিলা-কুলুপ (মাটির তৈরি) ব্যবহার না করলে দোজখ (Sahih Bukhari 1:4:215)
৩ যৌনকর্মের শুরু এবং শেষ আল্লাহর নাম নিয়ে করলে সন্তান শয়তান থেকে দূরে থাকে (Sahih Bukhari 1:4:143)
৪ শৌচকর্ম শেষে ব্যবহার্য পাথরের সংখ্যা হতে হবে বেজোড় (Sahih Muslim 2:463 Sahih Bukhari 1:4:162)
৫ ভোরবেলা সূর্য ওঠে শয়তানের মাথায় দুই প্রান্তের মধ্য দিয়ে (Sahih Bukhari 4:54:494)
৬ ভালো স্বপ্ন দেখায় আল্লাহ আর খারাপ দেখায় শয়তান (Sahih Bukhari 4:54:513)
৭ উকুন থেকে পরিত্রাণ পেতে প্রয়োজন রোজা রাখা / খাওয়ানো / ছদকা দেওয়া (Sahih Bukhari 7:71:604)
৮ কেয়ামত আসার লক্ষন বোঝার উপায় নারীর পশ্চাদ্দেশ (Sahih Bukhari 9:88:232)
৯ অবৈধ যৌন সম্পর্ক করলে পাথর মেরে হত্যার বিধান বানর প্রজাতিতেও বিদ্যমান (Sahih Bukhari 5:58:188)
১০ জন্মের সময় সন্তান কাঁদে শয়তানের স্পর্শে (Sahih Bukhari 4:54:506)
১১ চন্দ্র-সূর্যের গ্রহন ঘটে মানুষকে ভয় পাওয়ানোর উদ্দেশ্যে (Sahih Bukhari 2:18:158)
১২ যৌনকর্মের সময় ‘আল্লাহর ইচ্ছা’ বললেই জন্ম নেবে পুত্র সন্তান (Sahih Bukhari 4:52:74i)

প্রশ্ন – ৩৩

মুহম্মদ নিজ মুখেই স্বীকার করেন তিনি ইসলাম প্রতিষ্ঠা করেছেন সন্ত্রাসি কর্মকান্ডের মাধ্যমে (Sahih Bukhari 4:52:220, 5:59:512, 9:87:127 Sahih Muslim 4:1062-63, 4:1066-67), যার নির্দেশ বা অনুপ্রেরণা এসেছে আল্লাহ/ কুরান থেকেই (Quran 7:4, 8:12, 8:57, 8:67, 33:26, 59:2) ! তবে আপনার দাবি ‘ইসলাম মানেই শান্তি’ কথাটির যুক্তি কোথায় ?

http://www.islam-qa.com/en/ref/43087

প্রশ্ন – ৩৪

আল্লাহর প্রিয় নবী মুহম্মদের যাবতীয় সমস্যা সমাধানের জন্যে যে আল্লাহ সর্বদা এতো তৎপর থাকতেন, তিনি কেন তার নবীর (কাফের কতৃক) বিষক্রিয়া জনিত মৃত্যুর ব্যাপারে সতর্ক করে দিবেন না (Sahih Bukhari 3:47:786, 5:59:713) ?

প্রশ্ন – ৩৫

একমাস ব্যাপী রোজা রাখা বিষয়টা ইসলামে অন্তর্ভুক্ত করার উদ্দেশ্য কি যার রয়েছে প্রচুর সাস্থ্যগত সাইড ইফেক্ট (click the link) এবং যা এসেছে ইসলামপূর্ব কুরাইশদের থেকে (Sahih Bukhari 5:58:172) ?

http://www.bangladeshiatheist.com/dr_mushfique/451.html

কুরানিস্টদের জন্যে

প্রশ্ন – ১

আপনি কেন হাদিস কে অস্বীকার করতে চান ? এর মানে কি এই যে আপনি আপনার নবী ও তার অনুসারীদের কার্যকলাপে লজ্জিত হন ?

প্রশ্ন – ২

হাদিস ছাড়াও কুরানেই বহু অনৈতিক বিষয়ের সমর্থন পাওয়া যায়, যেমন, সমকামিদের প্রতি ঘৃণা 1 মিথ্যা
বলা ও প্রতারনা 2 শিশুকামিতা ও বাল্যবিবাহ 3 বহু বিবাহ 4 ধর্মীয় বৈষম্য 5 সন্ত্রাসবাদ 6 নারী নির্যাতন 7 দাসপ্রথা 8 ধর্ষন 9 (mentioned earliar) ! এ বিষয়গুলো নিয়ে কি আপনাকে বিব্রত করে না ?

প্রশ্ন – ৩

কুরান কখনোই বলে না কিভাবে সালাত (নামাজ) আদায় করতে হবে (It only says, there should be 3 daily prayers) ! যদি হাদিস নাই মানেন তবে আপনি কেমন করে জানলেন দিনে পাঁচবার নামাজ পড়তে হবে বা কিভাবে পড়তে হবে ?

প্রশ্ন – ৪

কুরানে Abu Lahab নামক এক ব্যক্তির নাম উল্লেখ রয়েছে (Quran 111:1-5) ! আপনি যদি হাদিসকে মেনে না নেন তবে কেমন করে জানবেন উনি কে ছিলেন যার প্রতি নিক্ষিপ্ত হয়েছে আল্লাহর ঘৃণা আর অভিশাপ ?

প্রশ্ন – ৫

কেন আপনাদের মাঝে কেউ কেউ শুধু সে হাদিস গুলোই মেনে নেন যেগুলোতে মুহম্মদের ভালো দিক গুলো প্রতিয়মান হয়, আর সে গুলোকে corrupted বলে দাবী করেন যা বর্তমান প্রেক্ষিতে মুহম্মদ কে খারাপ প্রতিপন্ন করে ?

প্রশ্ন – ৬

কুরান কিভাবে মুহম্মদের ওপর নাজিল হলো ? তিনি কিভাবে সেটা ছড়িয়ে দিলেন তাঁর অনুসারীদের মাঝে ? কিভাবে ইসলাম প্রতিষ্ঠা হলো ? তাঁর কতজন স্ত্রী বা সন্তান ছিলো ? তিনি কিভাবে মারা যান ? হাদিস ব্যতিত আপনি আপনার নবী সম্বন্ধে আদৌ কি কিছু বলতে পারেন ?

প্রশ্ন – ৭

কুরানের অনেক আয়াত নাজিল হয়েছে ভিন্ন ভিন্ন পরিস্থিতিতে যার ব্যাখ্যা হাদিস ছাড়া কোনভাবেই পাওয়া সম্ভব নয় (যেমন Quran 33:37 বা 24:12-17) ! সেগুলোর ব্যাপারে আপনার কোন excuse আছে কি ?

Online Quran
Online Hadith
‘যেকোন ধর্মগ্রন্থেরই সামান্যতম ভুল খুঁজে পাওয়া মানেই ওই ধর্ম এবং তাতে বর্ণিত ঈশ্বরের অস্তিত্ব বিলীন হয়ে যাওয়া’

(চলবে)

[14819 বার পঠিত]