নিহার রঞ্জন স্যার

By |2012-07-04T19:38:13+00:00জুলাই 4, 2012|Categories: ব্লগাড্ডা|12 Comments

[উৎসর্গঃ ছোটবেলার অংকের শিক্ষক, নিহার রঞ্জন স্যারকে- শাষন আর ভালবাসার অসাধারন এক সমন্বয়ে স্কুলের দিনগুলোতে আমাদেরকে হাতে ধরে গড়ে তুলেছিলেন যিনি]

মোটা ভ্রু, পুরু গোঁফ
যায়না কো দেখা চোখ;
এলোমেলো, পাকা-কাঁচা
দাঁড়িগুলো খোঁচা খোঁচা।
অতি ভারী চশমা,
রাখা নাকে সমস্যা;
সামনেতে ঝুঁকলে,
রাখতেন আগলে।
চশমার ওপরে
ফাঁকা দিয়ে নজরে
দেখতেন চারদিক,
ইতি-উতি সবদিক।
ডান হাতে ধরা বেত
পালাবে যে ভূত-প্রেত;
ছাত্র তো নষ্যি-
পিটিয়ে মুনিষ্যি
বানাতেন কতকাল
তুলে পিঠের ছাল।
বাম হাতে ডাষ্টার,
ভয়ানক মাষ্টার;
ঠকাঠক মাথাতে
সাথে দুই হাঁটুতে,
বাকি থাকে দু’কনুই
গোঁড়ালীও ছুঁই ছুঁই;
যেথা যেথা হাড়গোড়,
কষে ধরে পিঠমোড়
ডাষ্টারের বাড়িতে
পিটিয়ে যে মাটিতে
দিতেন যে শোয়ায়ে
সাথে নাম ভুলিয়ে।
যোগ-বিয়োগ, ঐকিক
গুন-ভাগ, পরিমাপিক
ভুল হলে অংকে
সবাই আতংকে
কাটাতো মুহুর্ত
গুঁটিসুঁটি সব যত;
সঁপাসঁপ বেত দিয়ে
ছাল তুলে পিটিয়ে
হতেননা ক্ষ্যান্ত,
সাথে অবিশ্রান্ত
ঠকাঠক ডাষ্টার
মারতেন মাষ্টার।
তারপর তিনি নিজে
উঠতেন চোখে ভিজে;
পেটানোর দুঃখেতে
ছাত্রদের সমুখেতে
আকুল হতেন তিনি
ঝরিয়ে চোখের পানি।
এমনটা ভালবাসা
পাওয়া আজ দূরাশা;
স্নেহের এমন দাবী
হারিয়ে গেছেই সবি।
স্মৃতিগুলো তবু আছে
বেঁচে যে মনের মাঝে;
শ্রদ্ধার আসনে
মনের সিংহাসনে
বসা তিনি উঁচু মাথা;
ঘুরে-ফিরে তার কথা
মনে পড়ে বার বার
নিহার রঞ্জন স্যার।।

আমেরিকা প্রবাসী লেখক।

মন্তব্যসমূহ

  1. বিপ্লব রহমান জুলাই 12, 2012 at 6:22 অপরাহ্ন - Reply

    কবিতার সারল্যটুকু ছুঁয়ে গেলো। যদিও বরাবরই বেত্রবিদ্যার বিপক্ষে, তবু মাস্টারকে অনেক শ্রদ্ধা। (Y)

  2. অনিরুদ্ধ দে জুলাই 11, 2012 at 7:08 অপরাহ্ন - Reply

    চমৎকার লাগলো। :rotf্ল।চালিয়ে যান। (F) (F)

  3. মুক্ত-পাগলা জুলাই 10, 2012 at 3:42 অপরাহ্ন - Reply

    ভালো অইচে। (F) (F)

  4. কাজি মামুন জুলাই 5, 2012 at 10:40 অপরাহ্ন - Reply

    বাম হাতে ডাষ্টার,
    ভয়ানক মাষ্টার;
    ঠকাঠক মাথাতে
    সাথে দুই হাঁটুতে,

    অসাধারণ!

    ভুল হলে অংকে
    সবাই আতংকে

    (Y)
    আরো নিয়মিত ছড়া চাইছি লেখকের কাছ থেকে!

    • আব্দুর রহমান আবিদ জুলাই 7, 2012 at 6:51 পূর্বাহ্ন - Reply

      @কাজি মামুন,

      ধন্যবাদ আপনার অনুপ্রেরণামূলক মন্তব্যের জন্যে।

      • আকাশ মালিক জুলাই 7, 2012 at 8:49 পূর্বাহ্ন - Reply

        @আব্দুর রহমান আবিদ,

        মোটা ভ্রু, পুরু গোঁফ
        যায়না কো দেখা চোখ;
        এলোমেলো, পাকা-কাঁচা
        দাঁড়িগুলো খোঁচা খোঁচা।

        এ পর্যন্ত ‘সফদার ডাক্তার / মাথা ভরা টাক তার’ এর মতোই মনে হলো।

        শাষন বানান ঠিক না করলে নিহার রঞ্জন স্যারকে তো চিনেন—

        ডাষ্টারের বাড়িতে
        পিটিয়ে যে মাটিতে
        দিতেন যে শোয়ায়ে
        সাথে নাম ভুলিয়ে।

        ছড়া নিয়মিত লিখুন- (Y)

        • আব্দুর রহমান আবিদ জুলাই 8, 2012 at 7:44 পূর্বাহ্ন - Reply

          @আকাশ মালিক,

          মন্তব্যের জন্যে ও সাথে বানানের ভুল ধরিয়ে দেবার জন্যে ধন্যবাদ।

  5. আসরাফ জুলাই 5, 2012 at 10:02 অপরাহ্ন - Reply

    ভালই লেগেছে।

  6. তাপস শর্মা জুলাই 4, 2012 at 10:53 অপরাহ্ন - Reply

    ছুঁয়ে গেছে লেখাটা। পদ্য হলেও একেবারে জীবন্ত।

মন্তব্য করুন