নূতন ঈশ্বর

আহ্, আজ আবার
মানুষ বিকিয়ে দিয়ে ঈশ্বর কিনেছি,
ধনাধিপ মনুষ্যত্বের বদলে এনেছি
ধনার্থী প্রভূত্বের পাহাড়।

তাই কেউ প্রশ্ন করলে বলি—
মেনেছি যে ঈশ্বরের কঠিন আদেশ
সফল জেনেছি তা— সেখানেই সব প্রশ্নের শেষ;
শাশ্বত শক্তিতে বিশ্বাস
তার অটলতায় সে শক্তিকেও ডিঙিয়ে যায়,
আর যত আর্তনাদ, লাশ
মানবের মাঝে রোজ গুরুত্ব হারায়,
তাও সেই নিত্য সংহারে-
সংঘর্ষে তোমাতে আমাতে,
তোমার ঈশ্বরে আর আমার ঈশ্বরে।

এই তো ক’দিন—
ত্বকহীন হাড়সর্বস্ব নেড়ীর মতন
আমাদেরও জিভ তারপর পা ছোঁবে।
যুদ্ধ সব শেষ হবে,
জিহ্বার লকলকে লোহিত আগুন
পোড়াবে স্রষ্টার সৃষ্টি
আর সৃষ্টির ভ্রষ্ট স্রষ্টাদের। পোড়াবে।
সেই তাপে,
পবিত্রতার সংজ্ঞা দেব নূতন পাপে,
আর যা আছে শুদ্ধ
যা কিছু মহান, চির, তাতে
নিত্য বিদ্ধ হবে শুদ্ধতর ক্ষুধায় ভিক্ষায়
পুরাতন বিধি ও বিধাতা।
আজ এই গুমট বাধা রাতে
আমি চেয়ে আছি সেই আগামীর আগুনের পানেঃ
ঝাপসা চোখের আগে পোড়ে
ধর্ম, প্রেম, শতাব্দীর দর্শন—
যত কিছু যত্নে পুষেছিল অভিজাত মন
দেহের তৃষ্ণার আগে সব আজ- নিতান্ত উঞ্ছ বাঞ্ছা কিছু—
দেহ কই, জিভ্ শুধু—
লকলকে শিখার মতন
পোড়ায় পূজার থালা, দধীচির হাড়, আর
তোমার আমার ক্ষুদ্র মন।

কান-ফাঁটা হাওয়া-কাটা মত্ত চিৎকারে
চোখ বুজি। ভয় হয়, এ জ্বলন্ত চিতা
আমারই চোখের নয়তো?
অথবা, হয়তো,
এ আগুনই দেখেছিল পিতা, পিতামহ, তারও পিতা!
আমাদের বাড়ন্ত জিভ্
তারও চোখে পড়েছিল?
তাই দিতে চেয়েছিল
স্রষ্টার সৃষ্ট জগৎ?
মানবসৃষ্ট স্বর্গ চেয়ে আমরাই কেবল
জ্ঞান কুড়িয়েছি, হয়েছি মহৎ
ধংস আর হননের হাতে
নিজেদের তুলে দিয়ে
আগলেছি কোন এক ইতর ঈশ্বর!
তার তরে আমার ইতরতর মন
নবতর পূজ়ার করছে আয়োজন,
গুমোট জমাট বাধা রাতে।

About the Author:

মন্তব্যসমূহ

  1. আফরোজা আলম জুন 6, 2012 at 3:07 অপরাহ্ন - Reply

    কবিতাটা সত্য ভালো লাগলো।

  2. ফরিদ আহমেদ জুন 6, 2012 at 12:45 অপরাহ্ন - Reply

    মুক্তমনায় স্বাগতম তূর্ণী। (F)

  3. স্বপন মাঝি জুন 6, 2012 at 11:14 পূর্বাহ্ন - Reply

    আগলেছি কোন এক ইতর ঈশ্বর

    ঈশ্বরের আদি অর্থ কিন্তু খুব একটা সম্মানজনক ছিল না, অনেকটা ইতর টাইপের । ঈশ্বর আর ভগবানের আদি অর্থটা কলিম খান খুব চমৎকার করে ব্যাখ্যা করেছেন, তার ‘দিশা থেকে বিদিশায়’।
    ভাল লেগেছে, বললে আসলে কিছু বলা হয় না, শুধু উপস্থিতি জানান দে’য়া ছাড়া। আমরা উন্নততর সমাজে বাস করতে গিয়ে, এখন আড্ডা দে’য়ার সময়টুকুও হারিয়ে ফেলেছি।
    ধন্যবাদ।

  4. সাগর জুন 6, 2012 at 7:35 পূর্বাহ্ন - Reply

    কঠিন বিষয় অনেক সহজে লিখেছেন…… সুন্দর…আব্দার্‌ হল…আরো চাই…।।

  5. মোজাফফর হোসেন জুন 6, 2012 at 2:32 পূর্বাহ্ন - Reply

    খুব ভাল লাগলো।

  6. ভাস্বতী জুন 5, 2012 at 9:06 পূর্বাহ্ন - Reply

    সব্বাইকে অনেক ধন্যবাদ।
    (C) 🙂

  7. বন্যা আহমেদ জুন 5, 2012 at 2:43 পূর্বাহ্ন - Reply

    মুক্তমনায় স্বাগতম।

  8. গীতা দাস জুন 4, 2012 at 4:58 অপরাহ্ন - Reply

    কবিতাটি পাকা মন, পাকা চিন্তা আর পা্ক্কা কলমের লেখা। আশা করি আমরা এমন স্বাদ পেতেই থাকব।

    • ফরিদ আহমেদ জুন 6, 2012 at 12:45 অপরাহ্ন - Reply

      @গীতা দাস,

      কবিতাটি পাকা মন, পাকা চিন্তা আর পা্ক্কা কলমের লেখা। আশা করি আমরা এমন স্বাদ পেতেই থাকব।

      ছোট্ট একটা তথ্য দেই দিদি। এই পাকা কবিতাটার স্রষ্টা কিন্তু একজন কচিকাঁচা। এটা লেখা হয়েছে মাত্র সতেরো বছর বয়সে। 🙂

      • গীতা দাস জুন 6, 2012 at 5:39 অপরাহ্ন - Reply

        @ফরিদ আহমেদ,
        বয়স দিয়ে কি আর পাকা কাঁচা বিচার করা যায়!! যেমন,সুকান্তসহ অনেকের কম বয়সের কবিতা তো বয়স বিচারে মূল্যায়ন করা হয় না।

  9. কাজী রহমান জুন 4, 2012 at 9:50 পূর্বাহ্ন - Reply

    স্বাগতম ভাস্বতী (C)

  10. প্রতিফলন জুন 4, 2012 at 7:46 পূর্বাহ্ন - Reply

    আহ্, আজ আবার
    মানুষ বিকিয়ে দিয়ে ঈশ্বর কিনেছি

    সালাম! :guru:

  11. অভিজিৎ জুন 4, 2012 at 6:51 পূর্বাহ্ন - Reply

    মুক্তমনায় স্বাগতম, আর চমৎকার এ কবিতাটির জন্য অনেক ধন্যবাদ।

    • ভাস্বতী জুন 4, 2012 at 9:40 পূর্বাহ্ন - Reply

      @অভিজিৎ,
      আমার নিজের খুব প্রিয় কবিতা এটা। বেশ আগের লেখা, কিন্তু এখনও কেউ পড়ে পছন্দ করলে খুব তৃপ্তি পাই। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।

  12. আমি কোন অভ্যাগত নই জুন 3, 2012 at 10:25 অপরাহ্ন - Reply

    ভাল লাগল 🙂

    • ভাস্বতী জুন 4, 2012 at 4:39 পূর্বাহ্ন - Reply

      @আমি কোন অভ্যাগত নই,
      অনেক ধন্যবাদ। 🙂

মন্তব্য করুন