রঙধনু

নীলচে ভেজা কলসি ফুলে; টিপটিপিয়ে লুকিয়ে গেলে,
ধরে আসা বৃষ্টি ফাঁকে; কতই দিলেম উঁকি,
একটু খানি দেখেই নাহয়; দিয়ে দিতাম ছুটি,
অঝোর ধারা তাড়িয়ে দিলো; শুধু, মিছেই হুটোপুটি।

হয়ত অনেক বর্ষা হবে; বৃষ্টিখানিক থেমেও যাবে,
আকাশটা ফের রঙ ছড়াবে, নাববে ঘাসে ফিঙে,
তুমিই শুধু লুকিয়ে রবে, আজব ঘরের কোনে,
সব আয়োজন জলেই যাবে, পড়বে না’তো মনে।

অনেক রঙের মিশেল যখন; বিকেল বেলায় হল;
সেই শাড়িটা পরে, তোমার একটু হাসি এলো,
তোমায় ছুঁতে দৌড়ে এলো, রঙের আকাশ যত,
আমিই শুধু দেখতে পেলাম, রঙিন তুমি কত।

About the Author:

মুক্তমনা ব্লগার। আদ্দি ঢাকায় বেড়ে ওঠা। পরবাস স্বার্থপরতায় অপরাধী তাই শেকড়ের কাছাকাছি থাকার প্রাণান্ত চেষ্টা।

মন্তব্যসমূহ

  1. স্বপন মাঝি এপ্রিল 28, 2012 at 3:31 পূর্বাহ্ন - Reply

    এরকম কবিতা পাঠ করলে মনোজগতে যে ছায়া পড়ে, সেই ছায়াটাকে দেখতে গিয়ে, দেখলাম; আমার বয়স দশ বছর কমে গেছে।
    কবিতা পারে; অনেককিছু পারে; এমন কী বয়সটা পর্যন্ত হাওয়া করে দেয়।
    একটা গান বার বার শুনে যেরকম আরাম; কবিতাটা, অনেকটা সেই-রকম হয়ে গেল।

    • কাজী রহমান এপ্রিল 29, 2012 at 9:12 পূর্বাহ্ন - Reply

      @স্বপন মাঝি,

      হেহঃ হেঃ হেঃ; আপনার তো হেব্বি সুবিধা হয়ে গেলো, বান্ধবীদের বয়স ব্যাসার্ধ আরো খানিক বেড়ে গেলো :))

  2. তামান্না ঝুমু এপ্রিল 27, 2012 at 8:21 অপরাহ্ন - Reply

    বৃষ্টির ফাঁকে ফাঁকে উঁকি দিয়ে প্রেয়সীকে লুকিয়ে লুকিয়ে দেখা! খুবই রোম্যান্টিক দেখছি নবীকে!

    • কাজী রহমান এপ্রিল 28, 2012 at 8:09 পূর্বাহ্ন - Reply

      @তামান্না ঝুমু,

      হেঃ হেঃ হেঃ সবই বয়সের দোষ :))

  3. গীতা দাস এপ্রিল 27, 2012 at 3:38 অপরাহ্ন - Reply

    খুবই ভাল লাগা নিয়ে কবিতাটি পড়ছিলাম। কিন্তু নীচের দুই লাইনে কেমন যেন ছন্দ পতন লাগছে!!!(এটা আমার অজ্ঞতাও হতে পারে)
    ‘অনেক রঙের মিশেল যখন; বিকেল বেলায় হোল;
    হঠাৎ এলে একটু হেসে, নীল শাড়িটা পরে,’
    আপনাকে হতাশ করার জন্য কিন্তু এ মন্তব্য নয়। এ লাইন দুটো ছাড়া বাকিটুকুর গীতিময়তা মনকে ছুঁয়ে গেছে। আপনার কলম থেকে অঝোর ধারায় কবিতা ঝরুক— এ প্রত্যাশা করছি।

  4. অরণ্য এপ্রিল 27, 2012 at 1:49 অপরাহ্ন - Reply

    গুনে গুনে সাতটা (রঙধনুর ৭ রঙ বলেই কি?) করে শব্দ মিলিয়ে লিখতে কষ্ট হয়নি? ছন্দের এই মধ্যযুগিও বর্বরতা মেনে নিতে আর ভালো লাগে না ;-(

    • কাজী রহমান এপ্রিল 28, 2012 at 8:16 পূর্বাহ্ন - Reply

      @অরণ্য,

      ব্যাপারটা ধরে ফেলেছেন যে। মিলে গেলে কি আর করা 😉

      ছন্দের এই মধ্যযুগিও বর্বরতা মেনে নিতে আর ভালো লাগে না

      শুধু ছন্দই দেখলেন; আর কিছু না? :-s

  5. কাজি মামুন এপ্রিল 27, 2012 at 12:58 অপরাহ্ন - Reply

    একটু খানি দেখেই নাহয়; দিয়ে দিতাম ছুটি,
    অঝোর ধারা তাড়িয়ে দিলো; শুধু, মিছেই হুটোপুটি।

    লুটোপুটি, হুটোপুটির এই জীবন! আহা!
    অনেক দিন এমন কাটকাট কবিতা পড়িনি! ছয় ছন্দের কি অপূর্ব খেলা! ভাল্লাগছে, রহমান ভাই!

    • কাজী রহমান এপ্রিল 28, 2012 at 8:07 পূর্বাহ্ন - Reply

      @কাজি মামুন,

      লুটোপুটি, হুটোপুটির এই জীবন! আহা!

      খুব রঙিন
      মন রঙিন
      সব রঙিন
      সেই রঙিন 🙂

  6. অরণ্য এপ্রিল 27, 2012 at 11:55 পূর্বাহ্ন - Reply

    তোমায় ছুঁতে দৌড়ে এলো, রঙের আকাশ যত,
    আমিই শুধু দেখতে পেলাম, রঙিন তুমি কত।

    চমৎকার!
    কী দুর্দান্ত চমৎকার
    এই মানব জীবন।
    (Y)

মন্তব্য করুন