ক্রোধান্বিত প্রকৃতি!

By |2012-04-13T02:21:55+00:00এপ্রিল 12, 2012|Categories: কবিতা, পরিবেশ|4 Comments
মনমস্তিস্ক দেহ-গ্রহের কেন্দ্রাবস্থিত;
সেখানে সপ্ত ইন্ত্রিয়ের মহাসাগরে
আর ষড়রিপুর মহাদেশে ক্রোধের দেশ অবস্থিত।
ক্রোধের মোহে আবিষ্ট মন-মস্তিষ্ক ক্রোধান্বিত!
ক্রোধান্বিত মন উগ্রমরুর সাহারায়
উত্তপ্ত বালুর উপর পাগলা ঘোড়ার বেগে
কিংবা মরুর উটের ন্যায় ধেয়ে চলে।
কখনওবা মন মুক্ত-বিহঙ্গের ন্যায়
ষড়-রিপুর মহাদেশে উড়ে বেড়ায় দেশ-দেশান্তরে।
কখনওবা মন লোভাতুর কীট-পতঙ্গের ন্যায় দৌড় ঝাপ দিয়ে পরে,
মোহাগ্নানির শিখায় জ্বলে পুড়ে ছাই হয়ে মরে।
কখনওবা মন সুজলা-সুফলা-শস্যশ্যামলা
কিংবা সুগভীর অরন্য সবুজ-তৃনভুমি,বৃক্ষ-প্রকৃতিতে
দাবানল দহনে দাউ দাউ করে জ্বলে ওঠে
এবং সুদীর্ঘ সময় কাল ব্যাপিয়া জ্বলে
এবং দুর্গন্ধ যুক্ত কালো-ধুঁয়া ছড়ায় আকাশে-বাতাসে,
অতঃপর সবকিছু বিধ্বংসিত করে উড়ে যায় বায়ুমণ্ডলে।
কখনওবা মন সূর্যের উত্তাপের ন্যায়
সুগভীর সমুদ্রের লোনা জলবিন্দুকে জলীয় বাস্পে পরিণত করে।
কখনওবা মন বায়ুমণ্ডলের মেঘেদের দেশে ঘুরে বেড়ায়।
তারপর ক্রোধান্বিত হয়ে মেঘে মেঘে সংঘর্ষে আকাশে বিদ্যুৎ চমকায়!
আবার বৃষ্টির ন্যায় নেমে আসে ধরার ধুলোবালিতে, জলস্থলে সবুজও মরুপ্রকৃতিতে!
কখনওবা মন সমুদ্রের উত্তাল ঢেউ এর মতন ফুলে ফেঁপে উঠে
জলোচ্ছ্বাস-সাইক্লোন-ঘূর্ণিঝড় আর সুনামিতে
সবকিছু করে দেয় লণ্ড-ভণ্ড-পণ্ড!
কখনওবা মন পারমানুবিক শক্তির মতন
বিস্ফোরিত হয় আপন-গ্রহে
ধ্বংস হয় বিশ্বসংসার ও বিশ্ব-প্রকৃতির সবকিছু-
ব্যক্তি-পরিবার,সমাজ-রাষ্ট্র,পরিবেশ-প্রকৃতি!
কেউ রক্ষা পায় না তাতে সবাই মরে,
চূর্ণ-বিচূর্ণ হয় এবং হচ্ছে বিশ্বসভ্যতার
ধর্ম-বিজ্ঞান-দর্শন, শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য!

About the Author:

মুক্তমনা ব্লগার।

মন্তব্যসমূহ

  1. অরণ্য এপ্রিল 15, 2012 at 11:26 অপরাহ্ন - Reply

    সবকিছু করে দেয় লণ্ড-ভণ্ড-পণ্ড!

    তবে এর মধ্যেও আনন্দ আছে।
    প্রকৃতির রূপ অনুসন্ধানের আপনার এই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকুক (Y)

    • শামিম মিঠু এপ্রিল 16, 2012 at 3:23 পূর্বাহ্ন - Reply

      @অরণ্য, প্রকৃতির বৈরী আচরণে অনেক ক্ষতি সাধন হয় এবং অনেক প্রাণ হানী ঘটে; এর মধ্যে কি আনন্দ আছে? অবশ্য প্রকৃতির ভাঙ্গা গড়ার খেলায় আনন্দ আছে!

      আপনার উদ্দীপনামূলক পাঠ-প্রতিক্রিয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

  2. আবুল কাশেম এপ্রিল 14, 2012 at 1:54 পূর্বাহ্ন - Reply

    চমৎকার কবিতা।

    আপনার ভাষায় প্রকৃতির দূর্বার শক্তি প্রকাশ পেয়েছে।

    • শামিম মিঠু এপ্রিল 14, 2012 at 2:16 পূর্বাহ্ন - Reply

      @আবুল কাশেম, আপনার সুন্দর পাঠ-প্রতিক্রিয়ার জন্য ধন্যবাদ এবং নববর্ষের প্রাণ ঢালা শুভেচ্ছা (F) (F)

মন্তব্য করুন