একদিন দুঃসাহসের পাখায় ভর করে,
ছুঁতে চেয়েছিলাম কবিতার শরীর ।
দ্বিখন্ডিত বাংলার মত কবিতা হয়ে উঠলো
ছন্দহীন ।
অর্থহীন যাত্রার “কা কা” চিৎকারে,
ছুটে এলো
প্রতিবাদী পাঠক।

ছন্দভঙ্গের নায়ক
ডানা ভেঙ্গে পড়ি
পুঁথি পুস্তকের এক দোকানে।

আলোক প্রাপ্তির প্রত্যাশায়,
যোগ ধ্যানে কেটে গেলো
ক’ টা বছর ।
ফসলের গোলা ভরলো
ইঁদুর আর তেলাপোকায় ।

অন্য কেউ নয়
ওদের উৎপীড়নে–
আমি নিজেই এবার উড়াল দিলাম
নীল নয়নার দেশে ।

কুকুর আর বিড়াল নিয়ে
গাল-পল্প করে
বয়ে যায় সময় ।

অথচ তখনো করোটির নিভৃত অন্ধকারে
অখন্ড বাংলার মত খেলা করে কবিতা।

[60 বার পঠিত]