দুর্নীতির ঐ আস্তাকুড়ে উপড়ে ফেল কঠিন হাতে,
অত্যাচারের সরিসৃপ শেষ যেন হয় গর্ভপাতে।
মুখোশধারীর ছদ্মবেশে লুকিয়ে যারা সু্বোধ সাজে,
রক্ত-পিশাচ হতেও তারা কাপে নাকো চক্ষুলাজে।
ধর্মভীরুর নূর বদনে সুকৌশলে লাগিয়ে মশী,
সমাজপতির ছদ্দবেশে তারাই কুটীল সর্বগ্রাসী।
পারহিজগারীর আসল বিকাশ- ধর্মবোধের যথার্থতাঃ
বিশ্বপিতা করছে প্রকাশ সকল প্রানের একাত্ততা।
মোহর মারা দুই কানেতে ঢুকতে গিয়ে সেসব বানী-
লজ্জা পেয়ে ধুলায় লুটায়, শুধুই বাড়ায় আত্মগ্লানি।
দুর্নীতির ঐ সাম্যবাদে বাজলো যাদের প্রানের বাঁশী,
শেষবিচারে উঠুক শুধুই তাদের গলায় মরনফাঁসি।
সুবোধ প্রানের সুশীল ধারা আকড়ে আছেন স্বতঃই যারা,
অত্যাচারের নিস্পেশনে জীবন তাদের ছন্নছাড়া।
মুক্তি আশে তীব্র নাদে গর্জে উঠাই আসল কথা;
ভ্রষ্টবাদের মৃত্যু হলে স্বস্তি পাবে দেশ-জনতা।

[19 বার পঠিত]