মুক্তমনার পাতায় ‘কবিতা’ লিখতে বুকের মধ্যে আজগুবী-ভীতিকর শব্দ হয় দুই চারটা। কিন্তু সবসময় খালি পড়েই যাই, মাঝে মাঝে কিছু লিখতে তো ইচ্ছে করবেই। মুশকিল হলো প্রবন্ধ আমি লিখতে পারিনা। প্রবন্ধ লিখতে যতটা রিসার্চ দরকার বলে মনে হয় তার জন্য সময় দিতে পারিনা…তাই আর কি…কবিতাই সই।
বানান ভুলের ব্যপারটা ধরিয়ে দিলে ভালোলাগবে।

________________________-__
স্মৃতির নরোম খাঁটে
খরপাতা ঘুম ডাকে
জেগে থাকতে ভালোবাসে মানুষ
-মনে কি পড়েনা–
পুরুষ নারীর কাছে
পায়ের নখের কাছে নেমে আসে ঠোঁট
ঝাকড়া চুলের কাছে নীলাভ নিটোল দীর্ঘশ্বাস!
উড়ে যাবো ডানা দাও
ভেসে যাবো ক্ষয়ে যাবো প্লাবন ঘটাও
সমস্তই অতঃপরে নিম্নমুখী সবুজ আপেল!
মুহূর্তের স্ফুলিঙ্গে তরল সাঁতার শেষে
পুরানো সাঁতারু ঘরমুখো
একটি গোলাপ নিয়ে পুরানো টেবিল
বাঁচে, ভিন্ন অবয়বে বাড়ে সামান্য কবিতা!
উপমায় বেঁচে থাকে কালো গহ্বরের চাঁদ
গাছের প্রখর ত্বক-সাদাকালো সময়-আর
অগভীর জীবনের কল্পিত গভীরতা!!

[9 বার পঠিত]