গান-১ : তুমি কি আমার হাতটা একটু ধরবে

যদি আমার কোনও পালাবার জায়গা
না থাকে – দিন, রাত্রি, অন্ধকারে।
তুমি কি আমার হাতটা একটু ধরবে।।

যদি আমি পড়তে পড়তে থেমে যাই-
মাঝপথে, কিংবা আটকে যাই কার্নিশে
তুমি কি আমার হাতটা একটু ধরবে।।

যদি কেউ বলে আর আমি নেই-
পাহাড়, সমুদ্র, কিংবা আমার ছোট্ট ঘরটিতে।
তুমি কি আমার হাতটা একটু ধরবে।।

যদি আমি হারিয়ে যাই আমিতে
মিশে যায় চুন-সুড়কির নগরীতে
তুমি কি আমার হাতটা একটু ধরবে।।

যদি নিভে যাই অন্ধকারে
যদি ভেসে যাই রোদে
যদি ডুবে যাই পাথরে
তুমি কি আমার হাতটা একটু ধরবে।।

যদি তলিয়ে যাই স্মৃতিতে
যদি ক্ষয়ে যাই জলে
যদি থেমে যাই চলাতে
তুমি কি আমার হাতটা একটু ধরবে।।

ওগো বন্ধু, তুমি কি আমার হাতটা একটু ধরবে।।

গান-২: যেওনা, যেওনা চলে

যেওনা, যেওনা চলে
ভোর হতে এখনো অনেক বাকি
হয়নি বলা এখনো অনেক না বলা কথা
শিশিরে এখনো ভেজেনি ঘাসের ডগা
যেওনা যেওনা চলে, না না যেওনা…
না না না

যেওনা না, যেওনা চলে
রাত জাগা পাখি হয়ে
খুজে পাবে না আপন ঠিকানা
হারিয়ে এই আমাকে।
যেওনা যেওনা চলে, না না যেওয়ানা…
না না না

যেওনা না, যেওনা চলে
অন্ধ করে সন্ধ্যা তারা
মুছে দিয়ে জোছনা মাখা আকাশখানা
এখানো যে অনেক কথা হয়নি বলা।
যেওনা যেওনা চলে, না না যেওয়ানা…
না না না

যেওনা না, যেওনা চলে
যেখানে শুধুই ঠিকানাহীন পথ চলা
বিবর্ণ ফেলে আসা স্বপ্নগুলো
যন্ত্রের গন্ধে জমাট বাধে যন্ত্রণা।
যেওনা যেওনা চলে, না না যেওয়ানা…
না না না

[417 বার পঠিত]