আমিতো চ’লে যাবো একদিন
জীবনের নিষ্ঠুর নিয়মে;
অতি প্রিয় জীবন ছেড়ে
তোমায় ছেড়ে
তোমার ভালোবাসা ছেড়ে
আকাশ, নদী, নক্ষত্র, জোছনা ছেড়ে
ঘাস,লতা,পাতা,ফুল ছেড়ে
পৃথিবীর তামাম ফুলের সুরভী ছেড়ে
মায়াময় পৃথিবী ছেড়ে।

আমার চ’লে যাবার পর
যদি আমায় রাখ তোমার হৃদয়ে
তবে দেখতে পাবে আমায়
নক্ষত্রের বিনিদ্র কম্পিত চোখে
আকাশের মহাশূন্যে, নিঃসীম নীলিমায়।

আমার চ’লে যাবার পর
যদি আমায় রাখ তোমার হৃদয়ে
তবে তোমার তরে আমার গান শুনতে পাবে
পাতার মর্মরে,
নদীর চ্ছল চ্ছল শব্দে।
আমার নিশ্বাস শুনতে পাবে
মৃদু সমীরণে।
আমার হৃৎপিণ্ডের স্পন্দন শুনতে পাবে
তোমার হৃৎপিণ্ডের স্পন্দনে।

আমার চ’লে যাবার পর
যদি আমায় রাখ তোমার হৃদয়ে
তবে আমার হাসি পাবে দেখতে
শিউলির পাপড়িতে
জোছনার শুভ্রধারাতে
প্রভাতের রবিতে।

আমার চ’লে যাবার পর
যদি আমায় রাখ তোমার হৃদয়ে
তবে তোমার কাছ থেকে আমার
দূরে থাকার বেদনা
দেখতে পাবে শ্রাবণমেঘে,
আমার কান্না শুনতে পাবে
আষাঢ়ের বৃষ্টিতে,
আমার দীর্ঘশ্বাস শুনতে পাবে
বৈশাখী ঝড়েতে,
আমার ফোঁটা ফোঁটা অশ্রু দেখতে পাবে
ঘাসের বুকে শিশিরবিন্দুতে।

আমার চ’লে যাবার পর
যদি আমায় রাখ তোমার হৃদয়ে
তবে আমার ভালোবাসা অনুভব করবে সর্বত্র
আমার ছোঁয়া অনুভব করবে সর্বত্র
আমার শূন্যতা অনুভব করবে সর্বত্র।

আমার চ’লে যাবার পর
যদি আমায় রাখ তোমার হৃদয়ে
তবে আমি অদৃশ্যলতার মতো নিবিড়ভাবে
জড়িয়ে রবো তোমার তনু-মনে
জাগরণে-স্বপনে।
তবে আমায় হারানোর বেদনা
অনুভব করবে হৃদয়ে
অনুভব করবে সকল সময়, সকল কাজে
আমি বেঁচে রবো তোমার হৃদয়মাঝে।

[38 বার পঠিত]