(সামির স্মরণে)

মনের চাপা কষ্টগুলো কাউকে না বলে
সবাইকে ফাঁকি দিয়ে
তুমি কোথায় গেলে চলে?
আর কি কোনদিন আসবেনা ফিরে
আর কোনদিন কি ফিরবেনা তুমি ঘরে?
মা যে তোমার বসে আছেন
তোমার পথ চেয়ে
না খেয়ে,না নেয়ে।

আল্‌সে ছেলে তো ছিলেনা তুমি
তবে কেন আছ এখনো ঘুমিয়ে?
দীর্ঘদিবস, দীর্ঘরজনী গেল পেরিয়ে।
উঠে পড় এবার।
কোনদিন কি জাগবেনা তুমি আর?

আমাদের প’রে অভিমান করে
কোথায় চলে গেলে তুমি?
কেন দিয়েছ আমাদের সাথে আড়ি?
কোথায় বেঁধেছ তোমার ঠিকানাবিহীন বাড়ী?

দেখ তোমার শোকের মাতম পড়েছে মুক্তমনায়
দেখ তোমার শোকের মাতম পড়েছে
তোমার মায়ের আঙিনায়।
তুমি কি শুনছনা মায়ের আর্তনাদ?
তুমি কি দেখছনা তাঁর অশ্রুর প্রপাত?

আর কোনদিন কি তুমি কইবেনা কথা,
কইবেনা কি তোমার মনের ব্যথা?
পৃথিবী মৌলবাদে ছেয়ে গেলেও না?
পৃথিবীর সব রমণীকে বস্তাবন্দী করা হলেও না?
গহীন অন্ধকারে পৃথিবী ডুবে গেলেও না?

কেন এতো অভিমান ছিল আমাদের প’রে
কেন তুমি চলে গেলে চিরতরে?
একটি বার অন্তত আস ফিরে
বলো আমাদের,কি তোমার কষ্ট
কেন এতো অভিমান।
চলে গেছ তুমি কোন্‌ সুদূরে, কোথায়?
মা যে তোমার বসে আছেন তোমার প্রতীক্ষায়।

[28 বার পঠিত]