অসাম্যের সমাজ ভেঙে সাম্যের সমাজ গড়তে, অমানবিকতায় ভরা পৃথিবীকে মানবিক করে গড়ে তুলতে সমকালীন দর্শন ‘যুক্তিবাদ’-কে ভিত্তি করে “বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সমিতি”-র আনুষ্ঠানিক জন্ম ১ মার্চ। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সমিতি এবং যুক্তিনিষ্ঠ বিজ্ঞান-মনস্ক মানুষেরা এই দিনটিকে আনুষ্ঠানিকভাবে “আন্তর্জাতিক যুক্তিবাদী দিবস” হিসেবে পালন করে আসছে। আমরা বিশ্বের প্রতিটি মুক্তিকামী সংগঠন ও মানুষকে আহ্বান জানাচ্ছি ‘১ মার্চ’-কে “আন্তর্জাতিক যুক্তিবাদী দিবস” হিসাবে পালনের।

আসুন, গভীর উপলব্ধি থেকে উচ্চারণ করি- পৃথিবীর ক্রমমুক্তি হোক যুক্তি ও বিজ্ঞান-মনস্কতার পথে।
নীচের লগোটি “বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সমিতি”র

(আমি আজ কল্যাণের কাছ থেকে আন্তর্জাতিক যুক্তিবাদী দিবস উপলক্ষ্যে মোবাইলে এস এম এস পেয়েই তাকে অনুরোধ করলাম একটি লেখা মুক্ত-মনায় দিতে। আমার অনুরোধে সে একটি বাংলা বার্তাও তৈরি করেছে প্রবীর সাহা নামক একজনের সহযোগিতায় এবং লগোসহ আমাকে পাঠিয়েছে। তাকে মুক্ত-মনায় দিতে বলেছি কিন্তু এ বিষয়ে তার অভিজ্ঞতা নেই বলে জানাল। পাঠক উপভোগ্য বিষয়। কল্যাণ একজন ইঞ্জিনিয়ার এবং যুবক আর আমি সাহিত্যের ছাত্রী ছিলাম এবং প্রৌঢ়ই বলা যায়। যাহোক, আমি কল্যাণের পক্ষে পোস্টিং দিলাম। বিষয়টি যে কো্ন দৃষ্টিকোণ থেকে সঠিক না হলে মুছে ফেলার অনুরোধসহ আগেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।)

[23 বার পঠিত]