ভেবে দেখলাম অনেকের কাছে আমার ঋণ
জড় এবং জীব, মানুষ গাছ আর বাতাস
ঋণ হয়ে আছে পানির কাছে, কাদার কাছে
এমনকি লেজ খসা একটা টিকটিকির কাছেও।

জর্জরিত ক্লান্ত চোখে দূর আকাশে শান্তি খুঁজি
অনন্তে নাকি ঝাঁক ঝাঁক ভালবাসার কুঁড়েঘর
তারার সাথে কথা বলতে যখন মন বাড়াই
নক্ষত্রও বলে বসে ওঁর কাছে আমি নাকি ঋণী।

গাছকে জিজ্ঞেস করলে সে দমকা হাওয়া মারে
অনর্গল বেকুব বেকুব প্রতিধ্বনিতে গাল পাড়ে
লক্ষ বছরের ঝরা মরা লুসি নিশ্চুপ হয়ে রয়;
আর আরডিকে শুধালে সেও সাপচোখে চায়।

আমার ভাবনাগুলো ক্রমশ জটিল থেকে স্বচ্ছ হচ্ছে
অস্তিত্ব বদলাচ্ছে অদ্ভুত থেকে ভুত কিম্বা অন্যে
সাগর নয়, আকাশ নাকি এখন সীমাহীন আশ্রয়;
অতএব বায়বীয় ঋণ আমি শুধবনা, সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

[31 বার পঠিত]