ক’ দিন আগে এখানে অনুষ্ঠিত হল আন্তর্জাতিক জীবন্তমূর্তির(World statues festival) মিলনমেলা।
বলতে পারেন আন্তর্জাতিক “যেমন খুশী সাজ”।

শহরের বিভিন্ন স্কোয়ারে সেদিন দাঁড়িয়েছিল গান্ধী(ধবল শুভ্র একান্তই নিজের পোষাকে), চার্লিচ্যাপলিন তার স্বভাবসুলভ উচ্ছলতায়।কখনও কখনও সুন্দরী পথচারিনী পেয়ে আগ বাড়িয়ে হাতে চুমো খাচ্ছেন।
আপেল হাতে আদিম মানবী ঈভ দাঁড়িয়ে শীত উপেক্ষা করে(যদিও
এখানকার সামার কিন্তু আবহাওয়ায় আমাদের শীতকাল)!
এতে নেদারল্যান্ড, ইংল্যান্ড, ইটালি, ভেনিজুয়েলা, জার্মানিসহ বিভিন্ন দেশ অংশ
নিয়ে ছিল।

করপোরেট লেডী সোফায় ফোনরত!
বেহালা বাদকের গায়ে লীন হয়ে ছিল জীবন্ত ভায়োলিন!

আমার সবচেয়ে ভাল লেগেছে বাচ্চাদের স্কোয়ার!
অত টুকু টুকু বাচ্চারা সারাদিন গায়ে রং মেখে স্থির হয়ে ছিল!
ব্যাপারটা ওদের জন্য কষ্টসাপেক্ষ!বেশী বেশী প্রশংসা ওদেরই প্রাপ্য!
একটা ছোট্ট ছেলে খুব সুন্দর ইন্ডিয়ানা জোনস্ সেজেছিল ব্যাটারি
অফ হওয়ায় আর তুলতে পারিনি!

চলন্ত সুশিবার।নকল, দাঁত, চুল লাগিয়ে জাপানী সেজেছে!
foto1

অহিংসার ধবল অমল গান্ধী। ভারত থেকে একেবারে ইউরোপে!
দেখছেন শহরের ব্যস্ততম স্কোয়ারে!
foto21

চার্লিচ্যাপলিন পথচারীদের সাথে স্বভাবকৌতুকে ব্যস্ত
foto3

আকাশ থেকে কেবলই এসে বসেছেন-
“Angel of the city”
foto4

কর্পোরেট লেডি জরুরী ফোন সেরে নিচ্ছেন।
foto5

ভায়োলিন বাদক বাজাচ্ছে জীবন্ত ভায়োলিন!
foto51

মডার্ন ঈভ আপেল হাতে!
foto6

প্লাষ্টিক বালিকারা!
foto7

জীবন্ত টিভি!
foto8

রংবেরংয়ের মেয়ে!
cimg0190_klein

নাচ ময়ূরীরা!
foto10

পুতুল!
foto11

ট্রয়ের ঘোড়া
foto14

সাইকেলে স্কুল!
foto12

মিষ্টি ও মিষ্টিমেয়ে!
foto13

প্রাচীন ভেনিসের ছোটদের চিত্রশালা
cimg0195_klein

[76 বার পঠিত]