আমার অপরাধ আমার বয়স আঠারো

By |2010-09-08T17:29:12+00:00সেপ্টেম্বর 8, 2010|Categories: কবিতা|5 Comments

আমার অপরাধ আমার বয়স আঠারো
– তুহিন তালুকদার

আমার অপরাধ আমার বয়স আঠারো,
তাই আমার মনে কেবল বিদ্রোহ জেগে ওঠে,
সমাজের শত অন্যায় দেখে মন কেঁদে ওঠে।
কিন্তু যারা প্রবীণ, যারা প্রৌঢ়,
সব কিছু দেখেও তারা কেমন স্থির, কেমন প্রতিক্রিয়াহীন!
শুধু আমার মনে যন্ত্রণা, ক্রোধের বহ্নিঃশিখা,
শুধু আমার প্রাণে জেগে ওঠার মন্ত্রণা।

আমার অপরাধ আমার বয়স আঠারো,
তাই কেউ আমায় করে না বিশ্বাস,
বক্ষে অবিরত কান্না আর বেদনার দীর্ঘশ্বাস।
আমার রক্তে বয়ে যায় ক্রোধের বন্যা,
সবকিছুকে ধ্বংস করার প্রবল ইচ্ছা।
আমি অশ্রান্ত, আমি উগ্র, আমি অস্থির,
কারণ, আমার বয়স যে আঠারো।
সমাজের যাবতীয় নিয়ম-কানুন
সব অর্থহীন আমার কাছে।
শ্রেষ্ঠ মোর প্রাণের সংবিধান।
হে সমাজ, হে প্রথা, হে ধর্ম,
আমায় শাস্তি দাও।
আমি যে তোমাদের বিরুদ্ধে দণ্ডায়মান
এক স্পর্ধিত সৈনিক।
হে বিধাতা, তুমি মোর কর প্রতিবিধান।
কিংবা নেভাও আমার প্রাণের অনল।

আমার অপরাধ আমার বয়স আঠারো,
তাই আমি অবাধ্য, বেয়াড়া, লক্ষ্মীছাড়া।
আমি মরুঝড়, আমি সমুদ্রের উত্তাল তরঙ্গ,
আমি কালবৈশাখী, আমি বায়ুসখা,
আমি ধ্বংসের বার্তা, আমি অভিশাপ,
আমি বিপ্লবী, আমি ছন্নছাড়া।

আঠারো? এ তো নষ্ট হওয়ার সময়,
পথভ্রষ্ট হওয়ার সময়,
এ যে অন্তর্দহনের সময়,
এ যে জাগার ও জাগানোর সময়,
এ যে ধ্বংস করার সময়,
আবার সৃষ্টি সুখের উল্লাসে মেতে উঠার সময়,
দুর্মর প্রাণের আগুনে দগ্ধ হওয়ার সময়,
বহ্নিঃশিখায় জগৎকে পোড়ানোর সময়।

কিন্তু জগতের সব আশীর্বাদ তো
আঠারোই বয়ে আনে।
সংকটে করে তারা তাজা প্রাণ বলিদান।
আঠারোই পরে বিজয়মাল্য।

তবে কেন বয়স আঠারো হওয়া অপরাধ?

About the Author:

মুক্তমনার অতিথি লেখকদের লেখা এই একাউন্ট থেকে পোস্ট করা হবে।

মন্তব্যসমূহ

  1. Arupa সেপ্টেম্বর 11, 2010 at 9:09 অপরাহ্ন - Reply

    তুহিন আপনার কবিতায় প্রাণ আছে, আমার খুব ভাল লেগেছে, তবে একটি কথা, আত্মা দ্বারা আত্মাকে উদ্ধার করিবে, আত্মাকে অবসন্ন করিবে না। কারণ আপনিই আপনার বন্ধু, আপনিই আপনার শত্রু।

    • তুহিন তালুকদার সেপ্টেম্বর 14, 2010 at 6:58 অপরাহ্ন - Reply

      @Arupa,

      ধন্যবাদ, আপনার মন্তব্যের কারণে।

      তবে একটি কথা, আত্মা দ্বারা আত্মাকে উদ্ধার করিবে, আত্মাকে অবসন্ন করিবে না। কারণ আপনিই আপনার বন্ধু, আপনিই আপনার শত্রু।

      এই কথাটা একটু ব্যাখ্যা করলে ভালো হত।

      • Arupa সেপ্টেম্বর 15, 2010 at 12:48 অপরাহ্ন - Reply

        @তুহিন তালুকদার,
        আঠারো? এ তো নষ্ট হওয়ার সময়,
        পথভ্রষ্ট হওয়ার সময়,
        এ যে অন্তর্দহনের সময়,
        এ যে জাগার ও জাগানোর সময়,
        এ যে ধ্বংস করার সময়,
        আবার সৃষ্টি সুখের উল্লাসে মেতে উঠার সময়,
        তুহিন, আসলে আমি যা বলতে চেয়েছি, বয়স আঠারো বলে, যে নষ্ট হওয়ার প্রবনতা জাগে তা হতে বিরত করে সৃষ্টি সুখের উল্লাসে মেতে উঠার জন্য আহব্বান করেছি এই ব্যাক্যটির মাধ্যমে। নিজের অপ্রমাদ দিয়ে নিজে উদ্ধার করিবে, নিজকে প্রমাদ বসে হীন কাজে জড়াবে না, স্মৃতি সম্প্রজ্ঞান কে ত্যাগ করিবে না। কারণ আপনার ভাল কর্ম আপনার বন্ধু, আপনার খারাপ কর্ম আপনার শত্রু। আপনাকে ধন্যবাদ।

  2. সুমিত দেবনাথ সেপ্টেম্বর 8, 2010 at 11:52 অপরাহ্ন - Reply

    ধন্যবাদ তুহিন তোমার কবিতার জন্য। এটাই তো বয়স পুরাতন জরাজীর্ণকে সরিয়ে নতুন করে জেগে উঠার। নতুন করে বাঁচতে শেখার। :rose2:

    • তুহিন তালুকদার সেপ্টেম্বর 9, 2010 at 12:30 পূর্বাহ্ন - Reply

      @সুমিত দেবনাথ,

      আপনাকেও ধন্যবাদ। :rose2:

মন্তব্য করুন