যে পথে আমার পদধ্বণী

By |2010-06-07T15:12:27+00:00এপ্রিল 9, 2010|Categories: ব্লগাড্ডা|14 Comments

আঘাতের দাগ মনে পড়ে
সর্বদা পেছনে ঘোরে কেউ,
এ ভাবেই মৃত্যু দেখি
তার সাথে প্রত্যহ দেখা
এভাবেই সে পরম আত্মীয়।
নিশ্চুঃপ জানালায়
কথা বলে যায়।
আঁধারের ললাটে নিভৃতে
নক্ষত্র পারে না লুকাতে ,

তবু ও সে মৃত্যু —-
গভীর কুয়াশার পিঠে চেপে
ঘরে ফেরে মানুষের মত ।
যে পথে আমার পদধ্বনী
বড়ো খানাখন্দময় ,
শৃংখলিত জীবনের পরিণাম জানি
নদী তটে ক্ষতবিক্ষত
তবু ও তেষ্ঠা মেটেনি ।

About the Author:

মুক্তমনা সদস্য এবং সাহিত্যিক।

মন্তব্যসমূহ

  1. লাইজু নাহার এপ্রিল 10, 2010 at 3:20 পূর্বাহ্ন - Reply

    আফরোজা,

    “সব কিছু পিছে ফেলে তবুও এগিয়ে যেতে হয়-
    জীবনের তৃষনা মেটাতে
    কবিতার পথ ধরে চলতে”। :rose2:

    • আফরোজা আলম এপ্রিল 10, 2010 at 10:23 পূর্বাহ্ন - Reply

      @লাইজু নাহার,
      আপনার মন্তব্যে আমি খুশি ,আপনাকেও একটা :rose2: 🙂

  2. সৈকত চৌধুরী এপ্রিল 9, 2010 at 6:10 অপরাহ্ন - Reply

    কিসের যেন একটা হাহকার শোনা গেল এ কবিতায়।

    অনেক ধন্যবাদ কবি।

    শৃংখলিত জীবনের পরিনাম জানি
    নদি তটে ক্ষতবিক্ষত
    তবু ও তেষ্ঠা মেটেনি ।

    • আফরোজা আলম এপ্রিল 10, 2010 at 1:14 অপরাহ্ন - Reply

      @সৈকত চৌধুরী,
      শৃংখলিত জীবনের পরিণাম জানি
      নদি তটে ক্ষতবিক্ষত
      তবু ও তেষ্ঠা মেটেনি ।”

      মনে হয় এই লাইন আপনার ভাল লেগেছে । আপনাকে ধন্যবাদ ।

  3. রনবীর এপ্রিল 9, 2010 at 3:21 অপরাহ্ন - Reply

    আর এই মন ছেয়ে যাওয়ার কারন, তাদের মনের কিছুটা অংশ কবিতার সাথে মিশে কবিতাকে প্রাণবন্ত করে ।

    ধন্যবাদ আফরোজা, আপনার সুন্দর কবিতার জন্য । আশা করি আপনি খানাখন্দময় পথ অতিক্রম করে লক্ষ্যে পৌছবেন ।

    • আফরোজা আলম এপ্রিল 10, 2010 at 10:22 পূর্বাহ্ন - Reply

      @রনবীর,
      আপনার মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

  4. আবুল কাশেম এপ্রিল 9, 2010 at 2:13 অপরাহ্ন - Reply

    আফরোজার কবিতাগূলো পড়লে কান্নাই চলে আসে।

    কাউকে ভাষা ও ছন্দের মাধ্যমে কাঁদানো সহজ নয়। এটা পারে শুধু মাত্র তারাই যাদের কবিতা মনে ছেয়ে যায়।

    • আফরোজা আলম এপ্রিল 10, 2010 at 9:13 পূর্বাহ্ন - Reply

      @আবুল কাশেম, ভাই
      কাউকে ভাষা ও ছন্দের মাধ্যমে কাঁদানো সহজ নয়। এটা পারে শুধু মাত্র তারাই যাদের কবিতা মনে ছেয়ে যায়।
      আপনার এই উক্তি আমাকে আবার যেন কাঁদাল । আপনি এতো সুন্দর করে বলেন মনে হয় কেউ যেনো ঠান্ডা শিতল হাওয়া বইয়ে দিল । কবিতা আমার “প্রাণ” বলতে পারেন। সব লেখা একবার পড়লেই শেষ হয়ে যায় ।কবিতা বারবার ঘুরে আসে।

      • মাহফুজ এপ্রিল 10, 2010 at 2:34 অপরাহ্ন - Reply

        @আফরোজা আলম,
        কবিতা নাকি বুঝবার ব্যাপার নয়, এটা উপলব্ধির ব্যাপার– এই কথাগুলি হুমায়ুন আজাদ বলতেন। ব্যাপারটা কি সত্য? একটু বুঝিয়ে বলা যায়।

        • আফরোজা আলম এপ্রিল 10, 2010 at 5:10 অপরাহ্ন - Reply

          @মাহফুজ,

          কবিতা নাকি বুঝবার ব্যাপার নয়, এটা উপলব্ধির ব্যাপার- এই কথাগুলি হুমায়ুন আজাদ বলতেন। ব্যাপারটা কি সত্য? একটু বুঝিয়ে বলা যায়। “

          হ্যাঁ।কথাটা অতি সত্য কেননা সব কবিদের কথা আমি জানিনা ,(তবে মনে হয় সবার ই এমন ই হয়েছে ) আমার মতো নগন্য একজন যে কিনা
          ” নিজে লিখি” এ কথা বলতে লজ্জায় মরে যাই । কিন্তু ,আমার কবিতা লেখার ইতিহাস আমি “ফানুস” গল্পে বলেছি কিছুটা । আমার পিতৃ বিয়োগের পর থেকে মোটামুটি কবিতা রীতিমত লিখতে শুরু করি ,যদিও জানিনা ও গুলো আদৌ কবিতা হয় কী না ।
          আর বিশেষ ভাবে উল্লেখ্য, আমার শ্রদ্ধেয় বড়ো ভাইয়ের প্রচন্ড উৎসাহ আমাকে এগিয়ে যেতে সাহায্য
          করেছে ।
          আর মনের গভীর থেকে অনুভুতি না এলে কবিতা লেখা সম্ভব না । কোন দিন না । আপনাকে অনেক ধন্যবাদ এমন মূ্ল্যবান প্রশ্ন করার জন্য ।

  5. আফরোজা আলম এপ্রিল 9, 2010 at 9:13 পূর্বাহ্ন - Reply

    @ মুক্তমনা এডমিন ,অনুগ্রহ করে আবার একটা পোস্ট মুছে দিন। ভুল ক্রমে দুইবার ক্লিক হয়ে গেছে ।
    মোছার বিষয়ে আমি এক্কবারেই জানিনা ।

    • মুক্তমনা এডমিন এপ্রিল 9, 2010 at 9:16 পূর্বাহ্ন - Reply

      @আফরোজা আলম,

      ধন্যবাদ। অন্যটি মুছে দেয়া হয়েছে।

    • আকাশ মালিক এপ্রিল 10, 2010 at 3:52 পূর্বাহ্ন - Reply

      @আফরোজা আলম,

      আমি হলে এ ভাবে ধ্বনি পরিণাম আর নদী বানান করতাম।

      আমি নিজেই কানা, তারপরও কানার পথ দেখানো আর কি। হা-হা।

      শৃংখলিত জীবনের হাহাকার নয় এবার কিছু শেকল ভাঙ্গার গান শুনান, একটু জয়ধ্বনি করি। :yes: :rose2:

      • আফরোজা আলম এপ্রিল 10, 2010 at 9:10 পূর্বাহ্ন - Reply

        @আকাশ মালিক, ভাই
        আমার একটা সমস্যা আমি “ণ” আর “ন” এই ভুল টা অজান্তেই হয়ে যায় । ভুল ? হ্যাঁ।ওটা তো হয়েই যায় কী করি বলুন তো ? 🙁
        কবিতা যখন মাথায় ভর করে তখন বানান(এইটাও কী ভুল লিখলাম ?) মাথায় থাকেনা। আর পড়াশোনা মনে হচ্ছে গুলে খেয়ে ফেলেছি । :-X
        আপনি সুন্দর করে ধরিয়ে দিলেন । কী বলে যে ধন্যবাদ দেবো ।ভাবছি দেবোনা আমি ভুল করলেই তো আপনার মত নামী দামী মানূষ আমার মত নগণ্য মানুষের লেখা পড়বেন। আমি তখন আরো উৎসাহিত হব। তাই না? 🙂

মন্তব্য করুন