পুরুষ প্রতিভূর জন্য একগুচ্ছ সহজাত মায়া

By |2010-01-21T01:25:41+00:00জানুয়ারী 19, 2010|Categories: ব্লগাড্ডা|6 Comments

আঁজলায় ভরে আজ মোহ-মদ, মায়া-মমতা
ঘৃণা সুখ মানসিক গভীর বৈকল্য
এনেছি, এই মুঠোখানা খুলে তুলে দ্যাখ, তোর জন্যে
তোকে দেব, তন্দ্রাচ্ছন মৃন্ময় শহর আমার
উৎসর্গ করেছি আজ, লোকায়ত বুক খুলে মেলে বসেছি;
নারীর সম্ভার কিছু ফুরায় না অযাচিত স্খলনে;
উঁকি মেরে দেখে যা তাত্ত্বিক প্রেমিক আমার!

ভ্রাতার বীরত্ববোধ, প্রচন্ড তৃষ্ণা; পিতার গোপন পাপ
বিধাতার গোপন ঈর্ষা
কামনার রূপ ধরে যেই হ্রদে সাময়িক বিরতিতে
বারবার বর্জ্য ফেলে যায়
আমি সেই বাষ্পের আধার একজন
আর, ওই দূরে বসে বসে
সুখের ফেনার ভারে উচ্ছ্বাসহীন ক্লান্ত তুই
এইসব পুরুষ প্রতিভূ!

পরিহার হয়ে গেছে বাসনার অজান্তে কখন
ধর্মবুলি, নীতি বালখিল্য।
স্নায়ু জুড়ে শরতের ঢাক, পুলকের মুহূর্তমাধুরী শুধু
অক্ষয় অনিবার্য হয়ে থাক।
আজ আমি মানবীয় দুই হাতে পার্থিব জীবনের সঞ্চয়
বয়ে এনে একান্ত রমণীবেশে ডাকি
এসমস্ত পরিত্যাজ্য বিষে
অমৃতের প্রাণ আনা নারী; মুখোশ লাগেনা যার,
সভ্যতার নির্বেদ অংশীদার…

মুখোশকে প্রসাধনী মেনে
আমি ঠিক করে নেই প্রেম
পৃথিবীর বিকাশের দায়ে
ধর্মগ্রন্থে বলিকৃত বিষন্ন রমণী হয়ে,
তবু প্রাণ, তবু এই মায়ার চাদর
আঁজলায় তুলে ধরে আনি!

About the Author:

মন্তব্যসমূহ

  1. মীজান রহমান মে 7, 2010 at 5:28 অপরাহ্ন - Reply

    প্রিয় মনিকা,
    প্রথম শুনেছিলাম তোমার গানের প্রশংসা—উচ্ছ্বসিত উদ্বেলিত প্রশংসা। কৌতূহলী হয়ে ভাবলাম কে এই মেয়েটি যে এমন করে মানুষের মন কেড়ে নেয়। তারপর তোমাকে আসরে বসে গান করতে শুনলাম, দেখলাম। বিস্ময় আরো গাঢ় হল। কে এই মেয়েটি, শুধাই নিজেকে। মন সে কাড়েই না শুধু, দুমড়ে মুচড়ে অবশ করে ফেলে। এবার তোমার কবিতা পড়লাম, বলিষ্ঠ, শক্তিশালী, অথচ সুরেলা কবিতা। সংসারে এমন কি আছে কিছু যা তুমি করতে পারোনা ভালো করে? বিস্ময় কিছুতেই ছাড়ে না আমাকে। কে এই মেয়েটি?
    মীজানভাই।

    • মণিকা রশিদ জানুয়ারী 16, 2015 at 8:02 পূর্বাহ্ন - Reply

      @মীজান রহমান,
      মীজান ভাই! কোথায় চলে গেলেন, আমাদের ফেলে রেখে! ঃ( ঃ(

  2. সাইফুল ইসলাম জানুয়ারী 21, 2010 at 4:51 অপরাহ্ন - Reply

    চমৎকার লেগেছে কবিতাটি।

  3. সৈকত চৌধুরী জানুয়ারী 21, 2010 at 1:09 পূর্বাহ্ন - Reply

    নারীর সম্ভার কিছু ফুরায় না অযাচিত স্খলনে

    -অসাধারণ।

  4. অভিজিৎ জানুয়ারী 21, 2010 at 1:01 পূর্বাহ্ন - Reply

    পরিহার হয়ে গেছে বাসনার অজান্তে কখন
    ধর্মবুলি, নীতি বালখিল্য।
    স্নায়ু জুড়ে শরতের ঢাক, পুলকের মুহূর্তমাধুরী শুধু
    অক্ষয় অনিবার্য হয়ে থাক।

    — অসাধারণ ক’টি লাইন!

  5. নুরুজ্জামান মানিক জানুয়ারী 20, 2010 at 10:28 পূর্বাহ্ন - Reply

    বরাবরের মতই দারুন লাগল মণিকা :rose2: ।

মন্তব্য করুন