ডারউইন দিবস উদযাপনঃ প্রবন্ধ আহবান

মুক্তমনা মডারেশন টিম

 

 

 

ডারউইন দিবস সংবাদ – আপডেট

বিজ্ঞানমনস্কতা আর জনসচেতনতা তৈরি করতে ডারুইন দিবস উপলক্ষে আগামী ১২ই ফেব্রুয়ারী, ২০০৯ তারিখে শিক্ষা আন্দোলন মঞ্চ, বিজ্ঞান চেতনা পরিষদ এবং মুক্তমনার যৌথ উদ্যোগে বর্নাঢ্য র‌্যালীর আয়োজন করা হয়েছে। এ র‌্যালী জাতীয় জাদুঘর থেকে যাত্রা শুরু করে ঢাকার বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করবে।  যারা এতে অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক তারা শিক্ষা আন্দোলন মঞ্চের সভাপতি এবং মুক্তমনার উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য অধ্যাপক অজয় রায়ের সাথে যোগাযোগ করুন।  যোগাযোগের ইমেইল – [email protected]

এ ছাড়া ডারউইনের বৈজ্ঞানিক অবদান এবং এর সামাজিক প্রভাবের উপর একটি সেমিনারের আয়োজন করা হবে। সেমিনারের উদোধন করবেন দ্বিজেন শর্ম্না। এ ছাড়া সারা বছরব্যাপী বিভিন্ন কর্মকান্ড চালনা করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।  

মুক্তমনা মডারেশন টিম

 

 

২০০৯ সাল আমাদের জন্য এক বিশেষ বছর। এ বছরের ফেব্রুয়ারী মাসের ১২ তারিখে উদযাপিত হবে ডারউইনের ২০০তম জন্মবার্ষিকী এবং সেই সাথে প্রকাশের দেড়শত বছর পূর্ণ হবে তার বিখ্যাত গ্রন্থ অরিজিন অব স্পিসিস এর।

 

বিজ্ঞান এবং যুক্তিবাদের সম্মানে প্রতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসের ১২ তারিখে বিবর্তনবাদী জীববিজ্ঞানী চার্ল ডারউইনের জন্মবার্ষিকীতে বিশ্বজনীনভাবেই ডারউইন ডে পালিত হচ্ছে। ক্যালিফোর্নিয়ার প্যালো এল্টোর মানবতাবাদী সম্প্রদায় ১৯৯৫ সালে প্রথম ডারউইন ডে পালন করা শুরু করে এবং এর পর থেকে এটি প্রতি বছর উদযাপিত হতে থাকে বিরামহীনভাবে। বিখ্যাত সংশয়বাদী এবং জীববিজ্ঞানী প্রফেসর মাসিমো পিগলিউসি ১৯৯৬ সালে ইউনিভার্সিটি অব টেনেসিতে ডারউইন দিবস অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন, যা বছর বছর ব্যাপকতর হচ্ছে। এই অনুষ্ঠানের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট হচ্ছে www.darwinday.org. আগ্রহীরা অনুষ্ঠানের আয়োজকদের সাথে সংহতি প্রকাশের জন্য এখানে নিবন্ধিকৃত হতে পারেন।

 

মুক্তমনাও বিগত দুবছর ধরে ডারউইন দিবস পালন করে আসছে। ২০০৬ সালে আমাদের প্রথম প্রচেষ্টা অন্তর্জাল এবং অন্তর্জালের বাইরে ব্যাপক আলোড়ন তুলতে সক্ষম হয়েছিল। মুক্তমনার করা বিশেষ ডারউইন দিবস পৃষ্ঠার জন্য ডারউইন ডে উদযাপন সংস্থার সভাপতি এবং সহ-সভাপতি দুজনেই আমাদের সাইটে এসে মুক্তমনাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। দৈনিক সমকাল, দৈনিক সংবাদ, সায়েন্স ওয়ার্ল্ড মুক্তমনার বিশেষ দিবস নিয়ে প্রতিবেদন ছাপানো হয়। এ উপলক্ষে মুক্তমনার তিন সদস্য বন্যা আহমেদ, অভিজিত রায় এবং ফরিদ আহমেদের সাক্ষাতকার গ্রহণ করে জার্মান বাংলা রেডিও। এর ফলে বাঙালি সম্প্রদায়ের কাছে অজানা অচেনা ডারউইন ডে হঠা করেই আকর্ষণের কেন্দ্রে চলে আসে। গতবছরও আমরা ডারউইন দিবস পালন করেছি। এবছর আরো জমকালো ভাবে এই দিবসকে পালন করার পরিকল্পনা নিয়েছি আমরা।

 

বিজ্ঞান এবং মানবতাবাদ ছড়িয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে আমাদের প্রতিশ্রুতির পরিপ্রেক্ষিতে আমরা ফেব্রুয়ারীর ১২ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য আন্তর্জাতিক ডারউইন দিবসের প্রতি আমাদের চলমান সমর্থনকে ব্যক্ত করছি। ডারউইন এবং তার প্রথম গ্রন্থ অরিজিন অব স্পিসিস শুধুমাত্র বিজ্ঞানের ক্ষেত্রেই মানব চিন্তাকে বিকশিত করেনি, বরং মানবতার ক্ষেত্রেও তা বিশাল অবদান রেখেছে। শত শত বছরের সৃষ্টিবাদী ধর্মীয় উপকথাগুলোকে চিরতরে নির্মূল করতে সহায়তা করেছে ডারউইন এবং তার মতবাদ। মানব বিবর্তন এবং জীবনের প্রক্রিয়াকে এর আগে কেউই এমন বৈজ্ঞানিকভাবে এবং সহজবোধ্যভাবে করে যেতে পারে নাই।

 

 

ডারউইন দিবস উপলক্ষে আপনার লেখা (বাংলা বা ইংরেজীতে) মুক্তমনায় পাঠান

প্রবন্ধ পাঠানোর ঠিকানা: [email protected]

কপি করুন এখানে: [email protected]

লেখা পাঠানোর সময়সীমা: ফেব্রুয়ারী ১০, ২০০৯

আপনার পাঠানো ইমেইলের বিষয়ের ঘরেArticle for Darwin Day 2009উল্লেখ করুন।

সেরা লেখককে মুক্তমনার তরফ থেকে পুরস্কৃত করা হবে!

 

 

 

সাড়া বিশ্বজুড়ে বহু মানবতাবাদী, যুক্তিবাদী এবং মুক্তবুদ্ধির চরর্চাকারী অঙ্গসঙ্গঠন বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক সম্প্রদায়ের সাথে এই দিনটি পালন করছে। ১২ই ফেব্রুয়ারী তারিখে এই দিনটি আন্তর্জাতিকভাবে উদযাপনের মাধ্যমে শুধু ডারউইনের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা প্রদর্শনই আমরা করব না, সেই সাথে বিজ্ঞান সচেতনতা এবং মানবিকতাকে ছড়িয়ে দেব পৃথিবীর আনাচে কানাচে। ঈদ, বড়দিন কিংবা বৌদ্ধপূর্ণিমার মত উসবের সাথে আমরা সবাই পরিচিত। সার্বজনীনতার কথা বললেও এ উসবগুলো সবই কিন্তু মোটা দাগে একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের জন্য বরাদ্দ ধর্মীয় উসব ছাড়া আর কিছু নয়। কিন্তু মুক্তমনা-মানবতাবাদীরাও আনদ-ফুর্তি, উসব-উদ্দীপনায় জীবনকে উপভোগ করেন। তারাও তাদের জন্য একটি উসবমুখর দিনের প্রত্যাশা করেন। ডারউইন দিবস বেশ ক’বছর ধরেই ধর্মনিরপেক্ষ বা স্যেকুলার উসব হিসেবে পৃথিবীতে পরিচিতি পেতে চলেছে। চলুন, সম্মিলিতভাবে এই দিবসটিকে আমরা আন্তর্জাতিক স্যেকুলার উসব হিসবে প্রতিষ্ঠিত করে দেই; ডারউইন ডে আমাদের ধর্ম-নিরপেক্ষ সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠুক।

 

আপনাদের প্রতি অনুরোধ রইলো, দয়া করে ডারউইন দিবসের জন্য বাংলায় অথবা ইংরেজীতে লেখা প্রবন্ধ অতিসত্বর মুক্তমনায় পাঠান! প্রবন্ধ [email protected] এই ইমেইলে পাঠান এবং এর একটি কপি দিন [email protected] কে। প্রবন্ধ পাঠানোর শেষ তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারী। ইমেইল সাবজেক্টে ডারউইন দিবস ২০০৯ এর জন্য প্রবন্ধ লিখে দিতে ভুলবেন না যেন। সেরা লেখার লেখকের জন্য মুক্তমনার তরফ থেকে রয়েছে আকর্ষনীয় পুরস্কার।

 

সবাইকে শুভেচ্ছা এবং ধন্যবাদ।

মুক্তমনা মডারেশন টিম

জানুয়ারী ০৭, ২০০৯

প্রাসঙ্গিক লিঙ্ক

প্রবন্ধ পাঠানোর আহবানটি ইংরেজীতে দেখুন

[90 বার পঠিত]